কপিলমুনির কাশিমনগর বাজারটি ধ্বংস করতে একটি প্রভাবশালী মহল তৎপর!


563 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
কপিলমুনির কাশিমনগর বাজারটি ধ্বংস করতে একটি প্রভাবশালী  মহল তৎপর!
আগস্ট ৩, ২০১৬ খুলনা বিভাগ ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

পলাশ কর্মকার,কপিলমুনি :
কপিলমুনির কাশিমনগর বাজারটি ধ্বংস করতে একটি প্রভাবশালী  মহল বহুবিধ ষড়যন্ত্রে মেতে উঠেছে। বাজারটির উন্নয়নে সম্প্রতি মৎস্য আড়ৎ সম্প্রসারণ করলেই মূলত তাদের গাত্রদাহ শুরু হয়।

অভিযোগে প্রকাশ, পাইকগাছা উপজেলার অন্যতম প্রধান কপিলমুনি হাটের ইজারাদারদের বহুবিধ চাপ ও অত্যাচারে অতিষ্ঠ হয়ে সেখানকার মৎস্য আড়ৎদারদের একটি বড় অংশ অন্যত্রে চলে যাচ্ছিল। বিষয়টি জানতে পেরে কাশিমনগরের ইউপি সদস্য শেখ রবিউল ইসলাম ও বাজার কমিটির সাধারণ সম্পাদক তাদেরকে স্থানীয় বাজারে আশ্রায় দেওয়ায় মুলত কপিলমুনির বাজারের ইজারাদার বিভূতি মিশ্র গং কাশিমনগর হাট ও মৎস্য আড়ৎদারদের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র শুরু করেছেন।

মৎস্য আড়ৎদারদের লিখিত অভিযোগে আরো উঠে আসে, বুধবার একটি পত্রিকায় তাদের বিরুদ্ধে হয়রানীমূলক সংবাদও পরিবেশন করা হয়েছে। ওই সংবাদটিতে কাশিমনগর বাজারকে অবৈধ আখ্যা দিয়ে কপিলমুনি ভূমি অফিসের তহশীলদার আবু বক্কর সিদ্দিকীর উদৃতি দিয়ে লেখা হয়েছে, ২ আগষ্ট তিনি কাশিমনগর বাজার পরিদর্শনে গেলে কতিপয় ব্যবসায়ীরা তোকে লাঞ্চিত করেছে। প্রকৃতপক্ষে ওই অভিযোগ সঠিন নয় বলে দাবী করেন মৎস্য আড়ৎদাররা।
আড়ৎদাররা লিখিত ওই অভিযোগে আরো বলেন, ‘আমরা স্থানীয় ইজারাদারকে নিয়মিতভাবে খাজনা দিয়ে যাচ্ছি। ‘তহশীলদার আবু বকর সিদ্দিকী সম্প্রতি আমাদের কাছে উৎকোচ দাবী করেন। যা দিতে ব্যর্থ হওয়ায় একটি প্রভাবশালী মহলকে সাথে নিয়ে ইজারাদার বিভূতি ঘোলা পানিতে মাছ শিকারের চেষ্টা করছেন।

এব্যাপারে তহশীলদার আবু বকর সিদ্দিকীর বক্তব্য নিতে বুধবার বিকেলে তাঁর দপ্তরে গেলে তাঁকে পাওয়া যায়নি, এমনকি তাঁর মুঠোফোনটি বন্ধ পাওয়া যায়।