কপিলমুনির স্থপতি রায় সাহেবের ৮৭ তম মৃত্যু দিবস সোমবার


161 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
কপিলমুনির স্থপতি রায় সাহেবের ৮৭ তম মৃত্যু দিবস সোমবার
জানুয়ারি ১৬, ২০২২ খুলনা বিভাগ ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

পলাশ কর্মকার ::

দক্ষিণ খুলনার অন্যতম সমাজ সেবক স্বর্গীয় দানবীর রায় সাহেব বিনোদ বিহারী সাধু’র ৮৭ তম মৃত্যু বার্ষিকী সোমবার । ১৯৩৫ সালের এ দিনে ক্ষণজন্মা মানুষটি এই পৃথিবী থেকে চিরবিদায় নেন। আধুনিক কপিলমুনির স্থপতি বিনোদ তার কর্ম জীবনের সঞ্চিত প্রায় সকল অর্থ ব্যয় করেছিলেন সমাজ সেবায়। জীবনের প্রতিটি সময় তিনি এলাকার মানুষের কল্যাণ করার ভবাবনায় বিভোর ছিলেন। ব্রিটিশ সরকার তার সমাজ সেবায় খুশি হয়ে স্বীকৃতি সরুপ তাকে ”রায় সাহেব” উপাধীতে ভূষিত করেছিলেন।
জানাযায়, খুলনা জেলার পাইকগাছা উপজেলার অবহেলিত জনপদ কপিলমুনি গ্রামে জন্ম নেন দানবীর রায় সাহেব বিনোদ বিহারী সাধু। পিতা যাদব চন্দ্র সাধু ও মাতা সহচরী দেবী। পিতা মাতার ৪ সন্তানের মধ্যে ৩য় তিনি। তিনি বিশ্ব বিখ্যাত বিজ্ঞানী পিসি রায় প্রতিষ্ঠিত আর কে বি কে হরিশচন্দ্র ইনষ্টিটিউটে ৬ ষষ্ঠ শ্রেণী পর্যন্ত পড়ালেখা করেছিলেন, তারপর মাত্র ১৪ বছর বয়সে ব্যবসা শুরু করেন তিনি। বিজ্ঞানী পি সি রায়ের পরামর্শে তিনি ব্যবসা করে সে সময় ব্যাপক সফলতা অর্জন করেন। তিনি এলাকার মানুষের জন্য নিজ খরচে প্রতিষ্ঠা করেন কপিলমুনি সহচরী বিদ্যা মন্দির, ভরত চন্দ্র হাসপাতাল, যাদব চন্দ্র দাতব্য চিকিৎসালয়, অমৃতময়ী টেকনিক্যাল স্কুল, লেদ, সুগার মেশিন, বাজারের মধ্যভাগে পানীয় জলের জন্য ৬ বিঘা বিশাল পুকুর ও নিজ নামে প্রতিষ্ঠা করেন বিনোদগঞ্জ বাজার।
এদিকে প্রয়াত এই দানবীরের মৃত্যু দিবসে তার প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদনে কপিলমুনি বাজারের সকল দোকানপাঠ বন্ধ রাখার সিন্ধান্ত নিয়েছেন ব্যবসায়ীরা। এছাড়া, বিনোদ স্মৃতি সংরক্ষণ পরিষদ ও বিনোদ স্মৃতি সংসদ কর্তৃক মাল্যদান, শোক র‌্যালী, স্মৃতিচারণ সভার আয়োজন করা হয়েছে। কপিলমুনি গুণীজন স্মৃতি সংসদ স্মৃতি চারণ মূলক পত্রিকা গুনীজন বার্তা প্রকাশ করেছে।