কপিলমুনি প্রেসক্লাবে এক ঘের ব্যবসায়ীর পুত্রের সংবাদ সম্মেলন


280 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
কপিলমুনি প্রেসক্লাবে এক ঘের ব্যবসায়ীর পুত্রের সংবাদ সম্মেলন
ডিসেম্বর ১৭, ২০১৫ খুলনা বিভাগ ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

পলাশ কর্মকার, কপিলমুনি :
কপিলমুনি সিটি প্রেসক্লাবে এক ঘের ব্যবসায়ীর পুত্র প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন করেছেন।

সংবাদ সম্মেলনের আয়োজক কপিলমুনির নাছিরপুর গ্রামের মোঃ আব্বাস আলী বিশ্বাস ছেলে মোঃ নাজমুল ইসলাম লিখিত বক্তব্যে বলেন গত ১৩ ডিসেম্বর দৈনিক আলোকিত সংবাদ সহ বিভিন্ন তারিখে কয়েকটি পত্রিকায় আমার পিতার বিরুদ্ধে একটি কুৎচক্রি মহল সাংবাদিকদের নিকট অসত্য তথ্য সরবরাহ করে মাছ চোরের অপবাদ দিয়ে যে সংবাদ প্রকাশ করিয়েছে তা সম্পূর্ন বানেয়াট ও উদ্দেশ্য প্রনোদিত।
এহেন সংবাদ প্রকাশ করে আমার পিতা ও পরিবারকে সামাজিক ভাবে হেয় প্রতিপন্ন করার অপচেষ্টা চালানো হয়েছে মাত্র। নাজমুল আরো বলেন, কপিলমুনি বাজারের রায় সাহেব মৎস্য মার্কেটে আমার পিতার মেসার্স নাজমুল মৎস্য আড়ৎ নামে একটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান রয়েছে।
কিন্তু অত্যন্ত দুঃখের সাথে জানাচ্ছি যে, আমার পিতাকে সু পরিকল্পিত ভাবে হেয় প্রতিপন্ন করার জন্য গত ১১ ডিসেম্বর রাত আনুমানি ২.৩০মিনিটে আমার পিতার পার্শ¦বর্তী ঘের মালিক নাছিরপুর গ্রামের মোঃ খোরদেশ বিশ্বাস ও ঘের ব্যবসায়ী হান্নান ঐক্যবদ্ধ হয়ে ১০/১২ জন সংগী নিয়ে মিথ্যা চুরির অপবাদ এনে অতর্কিভাবে আমার পিতার মৎস্য ঘেরের বাসা ভাংচুর করে বাসার ভিতর থেকে আমার পিতাকে টেনে হেচড়ে বাহিরে এনে বেধড়ক মারপিট করে। এ খবর পাওয়ার পরে ঐ রাতে আমরা মুমূুর্ষ অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে পাইকগাছা থানা স্বাস্থ্য কমপে¬ক্সে ভর্তি করি।
সেখান থেকে মঙ্গলবার কর্তব্যরত ডাক্তারের পরামর্শ মতে আমার পিতাকে বাড়ীতে নিয়ে আসি এবং ডাক্তারের পরামর্শ মতে তার চিকিৎস্য অব্যহত রয়েছে। গত কয়েক মাস পূর্বে খোরশেদ আলী এর ছোট ছেলে দিদারুল ইসলাম এর বিরেুদ্ধে মাছ চুরির অপবাধে কপিলমুনি পুলিশ ফাঁড়িতে ঘের ব্যবসায়ী আঃ হান্নান সরদার অভিযোগ করেন।

এছাড়াও দিদারুলের বিরুদ্ধে পাইকগাছা থানায় গাড়ী ভাংচুর মামলা রয়েছে। শুধুমাত্র পূর্ব শত্রুতার জের ধরে আমার পিতা ও আমার পরিবারকে বিভিন্ন সময় বিভিন্ন ভাবে হয়রানী করতে ব্যর্থ হওয়ায় সর্বশেষ এই পরিকল্পিত নাটকের সৃষ্টি করেছে।