কপোতাক্ষ নদের পানিতে তালার ধানদিয়া ইউনিয়নের একাধিক গ্রাম প্লাবিত : জনদুর্ভোগ


437 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
কপোতাক্ষ নদের পানিতে তালার ধানদিয়া ইউনিয়নের একাধিক গ্রাম প্লাবিত : জনদুর্ভোগ
জুলাই ২৪, ২০১৫ তালা ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

 

মাহফুজুর রহমান মধু,পাটকেলঘাটা :
কয়েকদিনের টানা বৃষ্টিতে কপোতাক্ষ তীরবর্তী তালা উপজেলার ধানদিয়া ইউনিয়নের উত্তর সারসা, দক্ষিন সারসা, কুটিঘাটা ও কৃঞ্চনগর এলাকার বেশ কিছু বাড়ীতে পানি উঠে গেছে। পানিতে তলিয়ে গেছে কৃষকের আমন বীজতলা। নষ্ট হয়েছে তরীতরকারী শাকসবজির ক্ষেত । কপোতাক্ষ নদের কোমরপুর নামক স্থানে কাঠের সাকোতে শেওলা জমে নদের পানি চলাচলে প্রতিবন্ধকতার সৃষ্টি হওয়ায় পানি নিস্কাশন হচ্ছে না ।
শুক্রবার সরেজমিনে কপোতাক্ষ নদের কোমরপুর খেয়াঘাট এলাকায় গিয়ে দেখা গেছে খেয়া ঘাট থেকে কুটিঘাটা বাজার পর্যন্ত প্রায় এক কিলোমিটার এলাকা শেওলায় পরিপূর্ন হয়ে পানি চলাচল বন্ধ করে রেখেছে। স্থানীয়রা জানান সাগর দাড়ি, চিংড়ি, বিষœুপুর এলাকা থেকে আসা শেওলা নদীতে পানি চলাচল কিছুটা বন্দ করে দিয়েছে, যার ফলে পানি বাধাপ্রাপ্ত হয়ে এলাকার নিন্মাঞ্চল ডুবে ব্যাপক ক্ষয় ক্ষতি হয়েছে।
কুটিঘাটা গ্রামের রউপ গাজী ,গফুর গাজী, আব্দুল মান্নান গাজী ও ওহাব গাজী জানান, গত বছর আমরা নির্বিঘেœ ধান চাষ করেছিলাম মনে অনেক আশা ছিল কপোতাক্ষ খনন হয়েছে এ বছর আরো ভাল ভাবে ধান পাট চাষাবাদ করব কিন্ত এবছর শুরুতেই আমাদের সব বীজতলা পানিতে ডুবে নষ্ট হয়ে গেছে। প্রতিদিন পানি বৃদ্ধি পাচ্ছে। তাতে নতুন করে আর বীজতলা তৈরী করা সম্ভব নয়। গত বছর বিলে ধানের বাম্পার ফলন হয়েছিল ।এ বছর কোন কৃষক ধান চাষ করতে পারবে না। উত্তর সারসা এলাকায় বসবাসরত ৭ নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য আনন্দ হালদার জানান, আমার ওয়ার্ডের মাঠপাড়া এলাকার  অনেকবাড়ীতে পানি প্রবেশ করেছে । নিচু এলাকা পানিতে ডুবে একাকার হয়ে গেছে। জমি চাষবাসের অনুপযোগি হয়ে গেছে। তিনি বলেন সুড়িঘাটা কোমরপুরসহ নদের বিভিন্ন পয়েন্টে পানি বাধার কারনে আমাদের এলাকা প্লাবিত হচ্ছে। অনেকে তাদের গরু ছাগল আতœীয়ের বাড়ীতে নিয়ে যেতে বাধ্য হচ্ছে। ধানদিয়া ইউনিয়নের কুটিঘাটা গ্রামের বাসিন্দা বিশিষ্ট্য ব্যবসায়ী গাজী হামিজউদ্দীন জানান, গতবছর কপোতাক্ষ বেশী খনন করা হয়নি তবুও আমাদের এলাকায় চাষাবাদ সহ জলাবদ্ধতার কোন সমস্যা ছিল না। এবছর কপোতাক্ষ খনন করে এলাকার মানুষের দঃখ আরও বেশী হয়েছে। তিনি দ্রুত এলাকার জলাবদ্ধতা দুরীকরনে স্থানীয় সাংসদ সহ জনপ্রতিনিধিদের সুদৃষ্টি কামনা করেন।তালা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ঘোষ সনৎ কুমার বলেন, কপোতাক্ষ নদ খনন করে তালাবাসীর ব্যাপক উপকার হয়েছে। তা না হলে এসময় তালা পানিতে ডুবে একাকার হয়ে যেত। ধানদিয়া এলাকার কথা শুনেছি দ্রুত ব্যবস্থা নিয়ে সমস্যা সমাধান করা হবে। সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক নাজমুল আহসান  ভয়েস অব সাতক্ষীরা ডটকমকে জানান,  বিষয়টি জানার পর তালা উপজেলা  নির্বাহী কর্মকর্তাকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের নির্দেশ দেয়া হয়েছে।