করোনা মহামারী মোকাবেলায় সক্রিয় যুব শক্তি


151 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
করোনা মহামারী মোকাবেলায় সক্রিয় যুব শক্তি
জুন ৭, ২০২১ কালিগঞ্জ ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

সুফল পাচ্ছে সাতক্ষীরার কালিগঞ্জ উপজেলা

সাতক্ষীরার কালিগঞ্জ উপজেলার ১২ টিইউনিয়নে নবযাত্রা প্রকল্পের আওতায় ৬০০ জন দুর্যোগ ঝুঁকি হ্রাস সম্পর্কিত সেচ্ছাসেবক পরিকল্পিতভাবে দুর্যোগ মোকাবেলা করতে সক্ষমতা অর্জনের জন্য নবযাত্রা প্রকল্পের আওতায় প্রশিক্ষণ গ্রহণ করে এবং তাদের সাথে একযোগে উপজেলার ১০টি যুব ক্লাবের শতাধিক যুব ও যুব নারী সদস্য উপজেলা করোনা এক্সপার্ট টিমেরসদস্য হিসেবে অর্ন্তভূক্ত হয়ে কালিগঞ্জ উপজেলা প্রশাসনের অধীনে করোনা মোকাবেলায় এ্যাডভাঞ্চ প্রশিক্ষণ গ্রহণ করছে। দূযোর্গ মোকাবেলায় ও জরুরী সাড়া প্রদানে সমন্বিত ভাবে প্রতিটি ইউনিয়ন পরিষদের সাথে সুসমন্বয়ের মাধ্যমে ঘূর্নিঝড় আম্ফান,বুলবুল ও ইয়াস মোকাবেলাসহ করোনা মহামারী মোকাবেলায় নবযাত্রা প্রকল্প হতে প্রদান কৃত ২৬১টি হ্যান্ড মাইকের মাধ্যমে ১২টি ইউনিয়নের প্রতিটি(২৪৫)টি গ্রামে,বাজারে,মহল্লায় এবং বাড়িতে পরিস্থিতি মোকাবেলার জন্য সচেতনতা বৃদ্ধি সহায়ক বার্তা প্রচার করছে।নবযাত্রা প্রকল্প হতে ১০টি যুবক্লাবের মধ্যে ৫টি ক্লাবে প্রাথমিক ভাবে ল্যাপটপ,প্রিন্টার ও রাউটার প্রদানসহ ডিজিটাল তথ্য সেবা কেন্দ্র হিসেবে প্রস্তুত করা হয়েছে যাতে স্থানীয় নাগরিকদের কাছে সর্বশেষ তথ্য থাকে। কালিগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা খন্দকার রবিউল ইসলামের নির্দেশনা ও উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তার নেতৃত্বে যুব ক্লাব সদস্যরা অনলাইনে বিস্তর আলোচনার মাধ্যমে বর্তমান পরিস্থিতি মোকাবেলার জন্য প্রয়োজনীয় নির্দেশনা গ্রহণ করেন এবং সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ইউএনও’র প্রতিনিয়ত নির্দেশনা এক্ষেত্রেসহায়ক ও কার্যকরী ভূমিকা পালন করছে। বর্তমানে সীমান্তবর্তী জেলা ও করোনাভাইরা সসংক্রমনের মাত্রাবৃদ্ধি পাওয়ায় সাতক্ষীরা জেলায় জেলা প্রশাসন জুন মাসের ০৪ তারিখ থেকে জুনমাসের ১১ তারিখ পর্যন্ত সর্বাতœক লকডাউন ঘোষনা করেছে।সরকারী নির্দেশনা বাস্তবায়নের মাধ্যমে জনগনকে সচেতন করার মাধ্যমে যুবভলান্টিয়ার, করোনাএক্সপার্ট সদস্যগন এবং যুবক্লাবের সদস্যরা নিয়মিতভাবে প্রচারকার্যক্রমে জোড়ালো ভূমিকা পালন করছে। নাজিমগঞ্জ বাজার ও ফুলতলা বাজারঘুরে দেখা যায় যে সকলেবিধি-নিষেধমেনে মাস্ক ব্যবহার করছেন এবং দূরত্ব বজায় রেখেচলাচলকরছেন। যুবনারী সেচ্ছা সেবক শারমিন সুলতানা বলেন, ”করোনা মহামারিতে গত এক বছরে আমাদের মাঝ থেকে অনেকেই মৃত্যুর কোলে ঢলে পরেছেন এবং আরো কেউ করোনার কারনে এই মিছিলে যুক্ত হোক আমরা তা চাইনা”তিনি আরো বলেন, প্রত্যন্ত অঞ্চলের পিছিয়ে পরা জনগোষ্ঠির সচেতনতার অভাবে কোন পরিবারের সদস্যের অকালেমৃত্যুবরন কাম্য নয়। পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হওয়া পর্যন্ত আমাদের এই উদ্যোগ অব্যাহত থাকবে।

#