কলারোয়ার চন্দনপুর ইউপি’র ৪নং ওয়ার্ডে পুন:নির্বাচনের দাবিতে পরাজিত দুই মেম্বর প্রার্থীর সংবাদ সম্মেলন


407 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
কলারোয়ার চন্দনপুর ইউপি’র ৪নং ওয়ার্ডে পুন:নির্বাচনের দাবিতে পরাজিত দুই মেম্বর প্রার্থীর সংবাদ সম্মেলন
মার্চ ২৭, ২০১৬ কলারোয়া ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

কে এম আনিছুর রহমান,কলারোয়া প্রতিনিধি :
সাতক্ষীরার কলারোয়ায় ৭নং চন্দনপুর ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ডের (গয়ড়া) গোলাম হোসেন ও আবু সিদ্দিক নামে দুই পরাজিত মেম্বর প্রার্থী সংবাদ সম্মেলন করেছেন। রোববার বেলা ১২ টায় কলারোয়া প্রেসক্লাবে নির্বাচিত ফলাফল বাতিল করে পুনঃ নির্বাচনের দাবিতে এ সংবাদ সম্মেলন করা হয়। সংবাদ সম্মেলনে পরাজিত মেম্বর প্রার্থী গোলাম হোসেন লিখিত বক্তব্যে বলেন, গত ২২ মার্চ নির্বাচনে ওই ওয়ার্ডে তিনি,আবু সিদ্দিক সরদার ও আব্দুল হামিদ সরদার মেম্বর পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। ওই নির্বাচনে জনগণ তাকে (মোরগ প্রতীকে) বিপুল ভোট প্রদান করেন। কিন্তু অপর প্রতিদ্বন্দ্বি প্রার্থী আব্দুল হামিদ মোটা অংকের টাকা দিয়ে ষড়যন্ত্র করে ওই কেন্দ্রের প্রিজাইডিং কর্মর্তার যোগসাজশে অল্প ভোটের মাধ্যমে তাকে পরাজিত করে নির্বাচনের ফলাফল ঘোষনা করা হয় । তার পোলিং এজেন্ট হাসানুজ্জামান স্ব-চোখে দেখে প্রিজাইডিং কর্মকর্তা রফিকুল ইসলামের কাছে ভোট গণনার সময় বার বার মোবাইল ফোনে কল আসছিল। ভোট গণনার সময় তার মার্কা মোরগ প্রতীকের ব্যালটে হাত দিতে দেওয়া হয়নি। এমনকি একেকাট ব্যান্ডেলে কতটি ব্যালট পেপার আছে তাও দেখতে বা গুনতে দেওয়া হয়নি। তবে এরই মধ্যে আলাদা করা তার প্রতিদ্বন্দ্বি প্রার্থী আব্দুল হামিদের ১০০ শত ফুটবল প্রতীকের তাড়ি গণনা করে দেখা যায় তাতে তার প্রতীক ১০ টি মোরগের ব্যালট পেপার আছে। এরপর থেকে আর অন্যান্য কোন ব্যালট পেপার গুণতে দেওয়া হয়নি। এরপর কোন কিছু বুঝে উঠার আগেই তার প্রতিদ্বন্দ্বি প্রার্থী ফুটবল প্রতীকের আব্দুল হামিদকে ৭৪০ ভোট দেখিয়ে বিজয়ী ঘোষনা করা হয়। আর তাকে অর্থাৎ মোরগ প্রতীকে ৭১৭ ভোট ও আরেক প্রার্থী আবু সিদ্দিককে ১৪৮ ভোট দেখিয়ে পরাজিত ঘোষনা করে। এমনকি তার মোরগ প্রতীকের ৮৪টি ভোট বাতিল দেখানো হয়। তাছাড়া ভোট চলাকালীন সময় আব্দুল হামিদ তার শ্যালকের মাধ্যমে যশোরের শার্শা থেকে বহিরাগত ভাড়াটে সন্ত্রাসীরা তার দুই পোলিং এজেন্টকে হুমকী-ধামকি দিয়ে কাজে বাধা দেয়। তাই তিনি সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে অভিযোগ করেন সম্পূর্ণ নীল নকসা করে সুক্ষ¥ ও স্থুল কারচুপির মাধ্যমে তাদেরকে পরাজিত করে আব্দুল হামিদকে বিজয়ী ঘোষণা করা হয়েছে। বিধায় তিনি সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে অনুষ্ঠিত নির্বাচনের ওই ফলাফল বাতিল করে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের নিকট পুনঃ নির্বাচনের দাবি জানিয়েছেন।