কলারোয়ার ছলিমপুর হাজী নাছির উদ্দীন কলেজের পাশে কৃষি জমিতে ইটভাটা নির্মাণ বন্ধের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন


449 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
কলারোয়ার ছলিমপুর হাজী নাছির উদ্দীন কলেজের পাশে কৃষি জমিতে ইটভাটা নির্মাণ বন্ধের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন
আগস্ট ২১, ২০১৫ কলারোয়া ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

প্রেস বিজ্ঞপ্তি :
সাতক্ষীরার কলারোয়া উপজেলার ছলিমপুর গ্রামের হাজী নাছির উদ্দীন কলেজের পাশে কৃষি জমিতে ইটভাটা নির্মাণ করা হচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে। পরিবেশ দুষন রোধে ওই ইটভাটা নির্মাণ বন্ধের দাবি জানিয়েছেন এলাকাবাসী। শুক্রবার সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে এলাকাবাসীর পক্ষে এই দাবি জানান ছলিমপুর গ্রামের খলিলুর রহমান সরদারের ছেলে মোঃ মিঠু সরদার।
সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে মিঠু সরদার বলেন, ছলিমপুর গ্রামের মৃত সেকেল সরদারের ছেলে চিহিৃত আদম ব্যবসায়ী ও শিবির ক্যাডার মিনাজ উদ্দিন সরদার প্রভাবশালী মহলের ইন্ধনে স্থানীয় হাজী নাছির উদ্দীন কলেজের পাশে কৃষি জমির উপর  ইটভাটা নির্মাণ করার চেষ্টা করছেন। ইতিমধ্যে ভাটা নির্মাণের যাবতীয় সরঞ্জামাদি সেখানে জমা করা হয়েছে। তিনি বলেন, এলাকার ১১ টি গ্রামের প্রায় ১২’শ ছেলে মেয়ে ওই কলেজে লেখা পড়া করে। তাছাড়া নির্মাণাধীন ইটভাটার পাশে প্রায় ৩০-৪০ বিঘা জমিতে বিভিন্ন ফলা-ফলাদির বাগান রয়েছে। ইরি-বোরো মৌসুমে এই এলাকার শত শত বিঘা জমিতে ধান চাষ করা হয়। এখানে ইটভাটা নির্মাণ করা হলে কলেজ ও এর আশপাশ এলাকার পরিবেশ দুষনের পাশাপাশি  চারপাশের আবাদী জমিতে ফসল হবে না। এছাড়া কলেজের উত্তর পাশে খোরদো-কলারোয়া সড়কে বিভিন্ন ধরনের যানবাহন চলাচল করার কারনে প্রায়ই যানজটের সৃষ্টি হয়। এই অবস্থায় কলেজের পূর্ব পাশে ও সড়কের দক্ষিন পাশ দখল করে ভাটা নির্মাণের সরঞ্জামাদি জমা করার কারনে ছাত্র-ছাত্রীদের যাতায়াতের পথে যে কোন সময় বড় ধরনের দুর্ঘটনা ঘটতে পারে। এসব আশংকার কথা বিবেচনা করে পরিবেশ দুষন রোধে কলেজের পাশে ইটভাটা নির্মাণ বন্ধের দাবি জানিয়ে এলাকাবাসীর পক্ষ থেকে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, পরিচালক পরিবেশ অধিদপ্তর, সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক ও বিভাগীয় কমিশনার খুলনা বরাবর পৃথক দরখাস্ত করা হয়েছে। দেয়াড়া ইউপি চেয়ারম্যান, কলারোয়া উপজেলা আ’লীগের সাধারন সম্পাদক ও  সভাপতি এবং স্থানীয় সংসদ সদস্যে এসব দরখাস্তে সুপারিশ করেছেন। বিষয়টি বর্তমানে তদন্তাধীন আছে।
তিনি এলাকার পরিবেশ দুষন রোধকল্পে কলেজের পাশে ইটভাটা নির্মাণ বন্ধ করতে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের জরুরী হস্তক্ষেপ কামনা করেন। সংবাদ সম্মেলনে একাবাসীর পক্ষে জমির মালিক মোঃ বাপ্পি খান ও মোঃ কামরুল ইসলাম উপস্থিত ছিলেন।