কলারোয়ার স্থগিতকৃত কেরালকাতা ইউপি নির্বাচনে নৌকা প্রতীকের প্রার্থীর বিরুদ্ধে স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থীর বাড়িতে হামলার অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন


1490 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
কলারোয়ার স্থগিতকৃত কেরালকাতা ইউপি নির্বাচনে নৌকা প্রতীকের প্রার্থীর বিরুদ্ধে স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থীর বাড়িতে হামলার অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন
জুলাই ৩১, ২০১৬ কলারোয়া ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

স্টাফ রিপোর্টার :
সাতক্ষীরার কলারোয়া উপজেলার স্থগিত হওয়া কেরালকাতা ইউপি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী স ম মোরশেদের বিরুদ্ধে স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থীর বাড়িতে হামলার অভিযোগ উঠেছে। রোববার দুপুরে সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করে স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী ফারুক হোসেন অভি তার বাড়িতে হামলার অভিযোগ এনে স ম মোরশেদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান।
এ সময় লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, গত ২২ মার্চের ইউপি নির্বাচনে ইউনিয়নের সাত নম্বর ওয়ার্ডের একটি কেন্দ্রে স ম মোরশেদ ও তার ভাই সরদার মুজিবের নেতৃত্বে ভোট কাটার ঘটনায় নির্বাচন স্থগিত হয়ে যায়। পরবর্তীতে ফারুক হোসেন অভিকে স ম মোরশেদ ও সরদার মুজিব তাদের পক্ষে সমর্থনে নানা প্রলোভনে দেখায়। কিন্তু তাদের কথা না শোনায় প্রাণনাশের হুমকি দিতে থাকে। এরই ধারাবাহিকতায় গত ২৯ জুলাই মোরশেদ ৫০-৬০টি মোটরসাইকেলের বহর নিয়ে তার বাড়িতে হামলা চালায়। ওই সময় তারা ইটপাটকেল নিক্ষেপসহ দুইটি বোমা বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটায়। এতে কয়েকজন আহত হয়। রাত ৯টার দিকে ঘটনাস্থলে পুলিশ উপস্থিত হয়। তখন ফারুকের ছোটভাই আতাউর রহমানকে রাম দা দিয়ে কুপিয়ে জখম করে মোরশেদের লোকজন। পরে এলাকাবাসীর সহযোগিতায় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে। ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ দুটি অবিস্ফোরিত বোমা উদ্ধার করে। পরে আতাউর রহমান ও আহত গ্রামবাসীদের উদ্ধার করে প্রথমে কলারোয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও পরে সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।
সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ করা বলা হয়, মোরশেদের নেতৃত্বে হামলা চললেও সে ফারুক হোসেন অভিসহ তার সমর্থকদের নামে মিথ্যা মামলা দায়ের করেছে। একই ঘটনায় এলাকার নিরীহ মানুষদের পুলিশ গ্রেফতার করেছে। এ ঘটনার জের ধরে গত ৩০ জুলাইও গ্রামের দুইজন নিরীহ মানুষকে মারপিট করেছে সন্ত্রাসীরা।
সংবাদ সম্মেলনে তিনি তার বাড়িতে হামলার ঘটনায় স ম মোরশেদসহ তার বাহিনীর সন্ত্রাসীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান। ##