কলারোয়ায় আড়ৎ ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে জখম


219 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
কলারোয়ায় আড়ৎ ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে জখম
জানুয়ারি ২৫, ২০২০ কলারোয়া ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

কে এম আনিছুর রহমান,কলারোয়া (সাতক্ষীরা) প্রতিনিধি
সাতক্ষীরার কলারোয়ায় দীপক কুমার ঘোষ (৫০) নামে এক আড়ৎ ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে জখম করা হয়েছে। এ সময় তাকে বাঁচাতে এগিয়ে আসা তার ছোট ভাই স্বরজিত কুমার ঘোষকেও (৩৫) এলোপাতাড়ী ভাবে পিটিয়ে জখম করা হয়। এ বিষয়ে কলারোয়া থানায় ৭ জনকে আসামী করে একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। অভিযোগ সুত্রে ও আহত ব্যবসায়ী কলারোয়া পৌর সদরের তুলসীডাঙ্গা গ্রামের ক্ষিতিশ চন্দ্র ঘোষের ছেলে দীপক কুমার ঘোষ জানান, জমাজমি নিয়ে হাকিম সরদার, ইয়াছিন সরদার, রুহুল আমিন, রফিকুল ইসলাম, তাসের সরদার, শাহিন সরদার, ইছাক সরদারদের সহিত দীর্ঘ দিন ধরে বিরোধ চলে আসছে। তারই জের ধরে শনিবার সকালে তারা দলবদ্ধ হয়ে তাদের জমিতে প্রবেশ করে অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ দিতে থাকে। এতে প্রতিবাদ করাতে তারা ক্ষিপ্ত হয়ে ব্যবসায়ী দীপক কুমার ঘোষকে ধরে বেধড়ক মারপিট করা হয়। এক পর্যায়ে ধারালো দা দিয়ে তার মাথায় কোপ দিয়ে হত্যার চেষ্টা করে। রক্তাক্ত জখম ব্যবসায়ী দীপক কুমার ঘোষকে তার ভাই স্বরজিত কুমার ঘোষ উদ্ধার করতে আসলে তাকেও পিটিয়ে জখম করা হয়। পরে ওই সন্ত্রাসীরা দীপক কুমার ঘোষ ও তার পরিবারবর্গকে বাংলাদেশ ছেড়ে ইন্ডিয়ায় চলে যাওয়ার হুমকি দিয়ে চলে যায়। বর্তমানে তারা দুই ভাই কলারোয়া হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। কলারোয়া থানার সেকেন্ড অফিসার রাজ কিশোর পাল জানান-অভিযোগ পেয়ে পুলিশ ঘটনা স্থান পরিদর্শন করেছেন।
এ দিকে কলারোয়া উপজেলা হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সভাপতি বাবু সিদ্ধেশ^র চক্রবর্তী, সাধারণ সম্পাদক সন্দীপ রায় ও পৌর সভার সাধারণ সম্পাদক উত্তম কুমার রায় এঘটনার তিব্র নিন্দা জানান। একই সাথে আসামীদের গ্রেফতারের জন্য পুলিশ প্রশাসনের প্রতি অনুরোধ জানান।

#

কলারোয়ায় লাইব্রেরীতে গাইড বই থাকায় দুই দোকানদারকে অর্থদন্ড

কে এম আনিছুর রহমান,কলারোয়া(সাতক্ষীরা)প্রতিনিধি ॥
সাতক্ষীরার কলারোয়ায় নোট গাইড বন্ধের উপর অভিযান চালিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। আদালত চলাকালে দুই লাইব্রেরীকে অর্থদন্ড দেওয়া হয়েছে। শনিবার বেলা ১২টার দিকে এ অভিযান পরিচালনা করেন উপজেলা নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট (সহকারী কমিশনা ভুমি) আক্তার হোসেন। তিনি সাংবাদিকদের জানান, জেলা প্রশাসনের নির্দেশ মোতাবেক কলারোয়া উপজেলায় নোট গাইড বন্ধের জন্য বিভিন্ন স্থানে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হয়। আদালত চলাকালে কলারোয়া বাজারের তৌহিদ লাইব্রেরীতে ৫ম থেকে ৯ম শ্রেণীর সকল গাইড বই থাকায় প্রাথমিক ভাবে তাকে দুই হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। একই সাথে তার দোকান বন্ধ করে দেওয়া হয়। পরে উপজেলার কাজিরহাট বাজারের তারিক লাইব্রেরীতে কিছু গাইড বই থাকায় তাকে সর্তক করাসহ দুই হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। এসময় ভ্রাম্যমাণ আদালতের সহযোগিতা করেন-কলারোয়া থানার এএসআই হুমায়ুন কবীর ও বেঞ্চসহকারী মাকসুদুর রহমান প্রমুখ।

#

কলারোয়ায় কারিতাসের উদ্যোগে শিক্ষা বৃত্তি প্রদান

কে এম আনিছুর রহমান,কলারোয়া(সাতক্ষীরা)প্রতিনিধি
সাতক্ষীরার কলারোয়ায় কারিতাস খুলনা অঞ্চল আইসিডিপি ঋষি প্রকল্পের আওতায় ছাত্র/ছাত্রীদের শিক্ষা উপকরণ ক্রয় ও পরীক্ষার ফরম পূরণের জন্য বৃত্তি প্রদান করা হয়েছে। শনিবার সকালে উপজেলা কারিতাসের কলারোয়া অফিসে এ বৃত্তি প্রদান করা হয়। কলারোয়া থানার অফিসার ইনচার্জ শেখ মুনীর উল গীয়াস প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত থেকে এ বৃত্তির টাকা প্রদান করেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন ও বক্তব্য দেন-কারিতাস খুলনা অঞ্চল আইসিডিপি ঋষি প্রকল্পের প্রকল্প ইনচার্জ আনন্দ দাস, সিডিএ প্রশান্ত দাস, পিআইসি সদস্য শিরিল মন্ডল, ফেডারেশনের সভাপতি লুকাস মন্ডল, কারিতাস খুলনা অঞ্চল আইসিডিপি ঋষি প্রকল্পের কলারোয়া শাখার সিডিও সুকুমার দাস, সিডিএ তপন হালদার, কলারোয়া পৌর প্রেস ক্লাবের সভাপতি জুলফিকার আলী প্রমুখ। উল্লেখ্য-এ বছর ৭২ ছাত্র/ছাত্রীদের শিক্ষা উপকরণ ক্রয় ও পরীক্ষার ফরম পূরণের জন্য ৮৬ হাজার ৪শ’ টাকা বৃত্তি হিসাবে প্রদান করা হয়েছে।