কলারোয়ায় এক ভন্ড কবিরাজকে পুলিশে দিলো জনতা


134 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
কলারোয়ায় এক ভন্ড কবিরাজকে পুলিশে দিলো জনতা
এপ্রিল ১৫, ২০২১ কলারোয়া ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

কে এম আনিছুর রহমান ::

সাতক্ষীরার কলারোয়ায় আবারো এক ভন্ড কবিরাজকে স্থানীয় জনতা আটক করে থানা পুলিশে সোপর্দ করেছে। বৃহষ্পতিবার (১৫ এপ্রিল) সকালে উপজেলার কেরালকাতা ইউনিয়নের ইলিশপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। ওই গ্রামের এক গৃহবধূকে কুপ্রস্তাব দেওয়ার ঘটনায় স্থানীয় জনতা তাকে আটকিয়ে পুলিশ দেয়। আটক কবিরাজ ইব্রাহিম হোসেন (৫০) উপজেলার লাঙ্গলঝাড়া ইউনিয়নের মাহমুদপুর গ্রামের ইসমাইল হোসেনের ছেলে। বর্তমানে তিনি উপজেলার ওই গ্রামেই ঘরজামাই থাকেন।
স্থানীয় ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, উপজেলার ইলিশপুর গ্রামের এক গৃহবধূ তার পারিবারিক অশান্তি নিরসনে তার শাশুড়ি ও মা’কে নিয়ে কয়েকবার মাহমুদপুর গ্রামের ইব্রাহিম কবিরাজের নিকট গিয়েছেন। এরইমধ্যে একপর্যায়ে কবিরাজ গৃহবধূকে কুপ্রস্তাব দিতে থাকে। এতে গৃহবধূ ক্ষুব্ধ, বিরক্ত ও অপমানিত হয়ে কৌশলের আশ্রয় নেন। পরিবারের অন্যদের সাথে পরামর্শ করে ওই কবিরাজকে বৃহষ্পতিবার সকালে ইলিশপুরের বাড়িতে আসতে বলে। কবিরাজ সেখানে গেলে বাড়ির লোকজন, প্রতিবেশি ও স্থানীয় জনতা কৌশলে তাকে আটকিয়ে দেন। বিষয়টি জাতীয় সেবা নং-৯৯৯ এ ফোন করে পুলিশকে অবহিত করা হয়। তাৎক্ষনিক কলারোয়া থানা পুলিশের একটি টিম সেখানে গেলে জনতা ভন্ড কবিরাজকে পুলিশে সোপর্দ করেন। পুলিশ ওই ভন্ড কবিরাজ এবং ভূক্তভোগি গৃহবধুসহ তার পরিবারের কয়েকজনকে পুলিশের গাড়িতে করে থানায় নিয়ে যায়।
কলারোয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মীর খায়রুল কবীর জানান, ওই ব্যক্তিকে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। এখন পর্যন্ত লিখিত কোন অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পেলে পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। মুঠোফোনে ভুক্তভোগিরা জানিয়েছেন, তাদেরকেও থানায় আনা হয়েছে। অভিযোগ দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। এদিকে, স্থানীয় জনতা ভন্ড কবিরাজের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছেন। উল্লেখ্য, এক গৃহবধূকে ধর্ষনচেষ্টার অভিযোগে আরেক ভন্ড কবিরাজ উপজেলার কয়লা গ্রামের আইয়ুব দফাদারের ছেলে আব্দুল গণি (৫০) কে গত ৮ এপ্রিল গ্রেপ্তার করে পুলিশ। ওই ঘটনায় থানায় মামলা (নং-১৯(৪)২১) হয়।