কলারোয়ায় করোনার প্রভাবে নিম্ম আয়ের মানুষের জনজীবন বিপর্যস্থ


108 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
কলারোয়ায় করোনার প্রভাবে নিম্ম আয়ের মানুষের জনজীবন বিপর্যস্থ
মার্চ ২২, ২০২০ কলারোয়া ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

কে এম আনিছুর রহমান ::

মহামারী করোনার প্রভাবে সাতক্ষীরার কলারোয়ায় নিম্ম আয়ের মানুষের জনজীবন বিপর্ষস্থ হয়ে পড়েছে। দুদর্শা আর দুচিন্তা কিছুতেই পিছু ছাড়ছেনা যেন তাদের। রোববার সরজমিনে কলারোয়া উপজেলার কয়েকটি এলাকা ঘুরে ব্যাবসায়ীদের সাথে একান্ত আলাপকালে এ সকল তথ্য জানা যায়।
কলারোয়া বাজারের কয়েকজন চায়ের দোকান দার বাবু , খাদেমআলী, আকরামসহ কয়েক নি¤œ আয়ের ক্ষুত্র ব্যাবসায়ী জানান, করোনা আতঙ্কের কারনে বর্তমানে মানুষ হাট বাজার থেকে শুন্য প্রায় । আমাদের সীমিত আয়ের মধ্যদিয়ে ৪/৫ জনের সংসার কোন রকমে চলে। আমরা এখন নিজেরাই সংসার চালাতে রীতিমত হিমসিম খাচ্ছি। বেশ কিছুদিন আগে যেখানে দোকান থেকে যেখানে দৈনিক ৩-৪ শত টাকা আয় হত সেখানে এখন কোন রকমে ১৫০-২০০ টাকা আয় করাও কঠিন হয়ে পড়েছে । এ ছাড়াও বাজারের কিছু আসাধু ব্যাবসায়ীদের কারণে নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্য মূল্যের দামও বেড়েছে। জেলা প্রসাশনের পক্ষ থেকে কঠোর ব্যাবস্থা থাকলেও থেমে নেই তাদের দৌরত্ব্য । আমাদের ছেলে-মেয়েদের স্কুলে লেখাপড়ার খরচ দিতে হয় প্রতিমাসে তার পরও প্রতিমাসে গুনতে হয় সমিতির কিস্তি। এ অবস্থ যদি বেশিদিন চলতে থাকে তাহলে আমদের তো অনাহারে দিন কাটাতে হবে। সেই চিস্তা করতে করতে আমরা এখন দিশেহারা হয়ে পড়ছি। ইতোমধ্যে বাধ্য হয়ে অনেকে চায়ের দোকানও বন্দ করে দিয়েছে। দিনমজুর খাটতে গেলেও কেউ আমাদের কাজে নিচ্ছে না। আমারা এখন কিভাবে সংসারে চালাবো তাই ভেবে পাচ্ছিনা । সরকার থেকে আমাদের যে সকল নির্দেশনা দিয়েছে আমরা তাও পালন করছি।

কিন্তু আমরা তো নিম্ম আয়ের মানুষ সংসারে নুন আনতে পানতা ফুরায় সংসার কিভাবে চালাবো ? সরকার যদি আমাদের মত কিছু নি¤œ আয়ের মানুষের দিকে কোন সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিত তাহলে আমাদের কষ্টটা একটু লাঘব হত। তাই সরকারের এ সব বিষয়ে আশু কামনা করেছেন তারা।