কলারোয়ায় করোনা ঝুঁকির মধ্যেও চিকিৎসাসেবা অব্যাহত রেখেছেন ডা. শফিকুল


221 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
কলারোয়ায় করোনা ঝুঁকির মধ্যেও চিকিৎসাসেবা অব্যাহত রেখেছেন ডা. শফিকুল
এপ্রিল ৬, ২০২০ কলারোয়া ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

মোবাইলেও ফ্রি সেবা

কে এম আনিছুর রহমান ::

সাতক্ষীরার কলারোয়া হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) ডাক্তার শফিকুল ইসলাম করোনা ভাইরাসের ঝুঁকির মধ্যেও সতর্কতার মাধ্যমে চিকিৎসাসেবা অব্যাহত রেখেছেন। হাসপাতালের নির্ধারিত ডিউটির পাশাপাশি অন্য সময়েও প্রাইভেট চেম্বারে রোগীদের চিকিৎসাসেবা দিচ্ছেন তিঁনি।

করোনা ভাইরাসে টালমাটাল পুরো বিশ্ব। ছোঁয়া লেগেছে বাংলাদেশেও। মানুষ থেকে মানুষে এই ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ায় উদ্বেগ-উৎকন্ঠার মধ্যে আছেন সবাই। তেমনই ঝুঁকিতে চিকিৎসকসহ স্বাস্থ্যসেবীরা। তার পরেও তিনি বিভিন্ন রোগের চিকিৎসা দিয়ে যাচ্ছেন।

গত কয়েক দিন ধরে করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে সতর্কতা ও উৎকন্ঠার কারণে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সসহ বিভিন্ন ক্লিনিক, ডায়গনস্টিক সেন্টার ও প্রাইভেট চেম্বারে রোগী ও চিকিৎসকদের আনাগোনা কমে গেছে।

এরূপ অবস্থায় কোন কোন চিকিৎসক ঝুঁকি এড়াতে ও নিজের সুরক্ষার জন্য রোগী দেখা কমিয়ে দিয়েছেন অথবা সাময়িক স্থগিত রেখেছেন বলে জানা গেছে। ঠিক তখন ভিন্ন ও মহতী উদ্যোগ নিয়েছেন কলারোয়ার সন্তান ডাক্তার শফিকুল ইসলাম। এ অবস্থাতেও তিঁনি নিয়মিত রোগী দেখছেন। এমনকি যেকোনো অসুস্থতার চিকিৎসা নিতে যারা স্বশরীরে আসতে পারছেন না কিংবা করোনার উপসর্গের অনুভূতি সংক্রান্ত চিকিৎসা নিতে নিজের মোবাইল ফোনে (০১৭৪২১৭৩৬৯৬) কল করলে বিনা পারিশ্রমিকে যেকোনো সময় চিকিৎসা পরামর্শ দেওয়ার অভিপ্রায় ব্যক্ত করেছেন।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে তিঁনি বলেন, ‘করোনা প্রতিরোধে সতর্কতা যেমন জরুরী তেমনি অন্য রোগের চিকিৎসা দেয়াও জরুরী। এছাড়া এই সময়ে জ্বর-সর্দি ফ্লু’র সময়। সুতরাং করোনার ভয়ে বসে না থেকে যেকোনো রোগের চিকিৎসা অব্যাহত রাখতে পারলেই তো আমরা মানুষের সেবায় শরীক হতে পারবো।