কলারোয়ায় প্রধান শিক্ষককে জুতা পিটা করলেন সহকারী প্রধান শিক্ষক, থানায় মামলা


252 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
কলারোয়ায় প্রধান শিক্ষককে জুতা পিটা করলেন সহকারী প্রধান শিক্ষক, থানায় মামলা
ফেব্রুয়ারি ২৩, ২০২১ কলারোয়া ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

কে এম আনিছুর রহমান ::

সাতক্ষীরার কলারোয়া সরকারি জিএকএমকে পাইলট হাইস্কুলের প্রধান শিক্ষককে জুতা পিটা করার অভিযোগ উঠেছে একই স্কুলের সহকারী প্রধান শিক্ষকসহ ৩ জনের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় মারপিটের শিকার প্রধান শিক্ষক আবদুর রব বাদী হয়ে কলারোয়া থানায় একটি মামলা করেছেন। যার নং-২৭, তারিখ-২৩। সোমবার (২৩ ফেব্রুয়ারী) সকাল সাড়ে ১০টার দিকে প্রধান শিক্ষকের অফিস কক্ষে একই স্কুলের সহকারী প্রধান শিক্ষক শিক্ষকসহ দুই সহকারী শিক্ষক এ ঘটনা ঘটিয়েছেন বলে এজাহারে উল্লেখ করা হয়েছে। এদিকে, ওই ঘটনায় থানায় পাল্টা আরেকটি অভিযোগ দেয়া হয়েছে বলে জানা গেছে।

প্রধান শিক্ষক আব্দুর রব জানান, তিনি সোমবার সকালে তার অফিস কক্ষের তালা খুলে চেয়ারে বসে অফিসিয়াল কাজ করছিলেন। বেলা সাড়ে ১০ টার দিকে সহকারী প্রধান আকস্মিকভাবে সহকারী প্রধান শিক্ষক আব্দুর রকিব, সহকারী শিক্ষক মনিরুজ্জামান ও সহকারী শরীর চর্চা শিক্ষক মাহফুজা খাতুন তার অফিস কক্ষে প্রবেশ করে তারা তাকে বলেন যে, কেন ডিজির কাছে অভিযোগ দেয়া হয়েছে এবং সেই অভিযোগের কপি দেখতে চান তারা। এ নিয়ে কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে তারা ক্ষিপ্ত হয়ে প্রধান শিক্ষকের অফিস কক্ষের মধ্যে কিল, ঘুষি ও পায়ের জুতা দিয়ে মুখেসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে এলোপাতাড়ী ভাবে মারপিট করে আহত করে। এ সময় তারা অফিস কক্ষের বিভিন্ন কাগজ পত্র ছিড়ে ফেলে ক্ষতিগ্রস্ত করে। পরে আত্ম চিৎকারে পাশের রুমে থাকা অন্যান্য শিক্ষকরা ছুটে এসে তাকে উদ্ধার করে কলারোয়া হাসপাতালে চিকিৎসা দেন।
এদিকে অভিযুক্ত এক শিক্ষক জানান, প্রধান শিক্ষক টাকা-পয়সার হিসাব দেন না। হিসাব চাওয়ায় কথা কাটাকাটি হয়েছে। মারপিটের কোন ঘটনা ঘটনা ঘটেনি।

এ বিষয়ে কলারোয়া থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) জিল্লাল হোসেন বলেন, প্রধান শিক্ষক আব্দুর রব এর পক্ষে একটি মামলা হয়েছে এবং প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে অভিযুক্ত শিক্ষিকা মাহফুজা খাতুন একটি অভিযোগ দিয়েছেন বলে তিনি জানান।

#