কলারোয়ায় ভাটা শ্রমিকের বাড়ী ঘর-ভাংচুর : আহত-২


107 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
কলারোয়ায় ভাটা শ্রমিকের বাড়ী ঘর-ভাংচুর : আহত-২
সেপ্টেম্বর ৮, ২০১৯ কলারোয়া ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

কে এম আনিছুর রহমান ::

সাতক্ষীরার কলারোয়ায় এক ভাটা শ্রমিকের জমি দখলের চেষ্টা করেছে সন্ত্রাসীর। এতে বাধা দিতে গিয়ে সন্ত্রাসী হামলায় গুরুত্বর জখম হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে আব্দুল ওহাব (৩৮) নামে এক ইটভাটা শ্রমিক। সে কলারোয়া উপজেলার কেরালকাতা ইউনিয়নের রতনপুর গ্রামের আব্দুল খালেকের ছেলে। এ বিষয়ে প্রতিকার চেয়ে কলারোয়া থানায় একটি অভিযোগ দায়ের হয়েছে। রোববার (৮ সেপ্টম্বর) সকালে ক্ষতিগ্রস্ত ভাটা শ্রমিক আব্দুল ওহাব জানান-তিনি গত দুই আগে ওই গ্রামের রেজাউল করিমের কাছ থেকে ১৫শতক বাগানকৃত জমি ৩লাখ ৩২ হাজার টাকা দিয়ে হেবা দলিল মুলে ক্রয় করেন। কিন্তু এর আগে ওই দাগের জমি ৩৫ শ টাকায় জমির মালিক নেছার আলীর কাছে বন্দক রাখেন। সেই সুত্র ধরে নেছার আলী ও তার পরিবারদ্বয় উক্ত জমি দাবী করে আসছেন । কিন্তু এর মধ্যে ক্রয়কৃত জমি দখল নিয়ে গাছ গাছালি লাগাতে গেলে হঠাৎ গত ৪ সেপ্টম্বর বেলা আড়াইটার দিকে সন্ত্রাসী কায়দায় নেছার আলী গাইনের নেতৃত্বে আনারুল গাইন,ইদ্রিস আলী, বিপ্লব হোসেন,আকরোম আলী, আব্দুর রহমান ওরফে টিটু দলবদ্ধ হয়ে লাঠিসোটা নিয়ে ইটভাটা শ্রমিক আব্দুল ওহাবের উপর হামলা করে। তার ডাক চিৎকারে মা আনোয়ারা খাতুন (৫৫) ঠেকাতে গেলে তাকেও এলোপাতাড়ী ভাবে পিটিয়ে জখম করে। এসময় তারা নিরীহ ভাটা শ্রমিকের বাড়ী-ঘর ভাংচুর করে প্রায় লক্ষার্ধীক টাকার মালামাল ক্ষয়ক্ষতি করে। এঘটনার প্রতিকার চেয়ে ইট ভাটা শ্রমিক আ: ওহাব বাদী হয়ে কলারোয়া থানায় ৬ জনের বিরুদ্ধে একটি অভিযোগ দিয়েছেন।