কলারোয়ায় মমতাজ আহমেদের স্মরণ সভা


377 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
কলারোয়ায় মমতাজ আহমেদের স্মরণ সভা
নভেম্বর ১২, ২০১৬ কলারোয়া ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

কে এম আনিছুর রহমান,কলারোয়া :
সাতক্ষীরা জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি  ও জেলা পরিষদের প্রশাসক মুনসুর আহমেদ বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের অন্যতম সহকর্মী ছিলেন জননেতা মমতাজ আহমেদ। মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় অসম্প্রাদায়িক বাংলাদেশ গড়ার আজীবন স্বপ্ন ছিলো তার। বাংলাদেশের সংবিধানে রয়েছে মমতাজ আহমেদের স্বাক্ষর। তাঁর মতো নির্লোভ, সৎ রাজনীতিবিদ বাংলাদেশে বিরল। শতাব্দীর শ্রেষ্ঠ সন্তান মমতাজ আহমেদ আজ আর আমাদের মাঝে নেই। কিন্তু রয়েছে তাঁর ভাল কাজ, গুনাবলী ও পদচিহ্ন।
শনিবার উপজেলার বোয়ালিয়া গ্রামে মমতাজ আহমেদ মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স চত্বরে দানবীর মমতাজ আহমেদের তৃতীয় মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত এক স্মরণ সভায় প্রধান অতিথি’র বক্তব্যে তিনি এ কথাগুলো বলেন।
মমতাজ আহমেদ মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স’র সভাপতি বিশিষ্ঠ শিক্ষানুরাগী অধ্যাপক এমএ ফারুকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ স্মরণ সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন প্রখাত কন্ঠশিল্পী আব্দুল জব্বার, সাতক্ষীরা জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব নজরুল ইসলাম.উপজেলা চেয়ারম্যান ফিরোজ আহমেদ স্বপন, সাতক্ষীরা সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আছাদুজ্জামান বাবু, সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি অধ্যক্ষ আবু আহমেদ, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আমিনুল ইসলাম লাল্টু, এক্সিস গ্রুপের চেয়ারম্যান নজরুল ইসলাম। অনুষ্ঠানে মহান মুক্তিযুদ্ধে  বিশেষ অবদানের জন্য গুণী কন্ঠশিল্পী আব্দুল জব্বারকে ‘মমতাজ আহমেদ স্বর্ণ পদক’ প্রদান করা হয়।
অন্যদের বক্তব্য রাখেন ও উপস্থিত ছিলেন প্রফেসর আবু নসর, প্রফেসর আবু বক্কার সিদ্দিক, কলারোয়া থানার অফিসার ইনচার্জ এমদাদুল হক শেখ, ওসি(তদন্ত) আখতারুজ্জামান, মুক্তিযোদ্ধা গোলাম মোস্তফা, এড. মোহাম্মদ আলী রায়হান, মনোরঞ্জন সাহা,কাজীরহাট কলেজের অধ্যক্ষ এস এম সহিদুল আলম, অধ্যক্ষ ফারুক হোসেন, সমাজ সেবক আলহাজ্ব শেখ আমজাদ হোসেন, এড. শেখ কামাল রেজা, অধ্যক্ষ আবির হোসেন বিলাল, এড. কাজী আব্দুল্লাহ আল হাবিব,কলারোয়া প্রেসক্লাবের সভাপতি শিক্ষক দীপক শেঠ, সাধারণ সম্পাদক সাংবাদিক শেখ জিল্লু, সাংবাদিক অধ্যাপক কে এম আনিছুর রহমান,  এমএ সাজেদ, প্রভাষক আরিফ মাহমুদ, পলাশ চৗধুরী পলাশ,প্রধান শিক্ষক ইমদাদুল হক, জেএম ফরিদ প্রমুখ। সমগ্র অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন প্রভাষক মন্ময় মনির। উল্লেখ্য, ২০১৩ সালের ৩ নভেম্বর  কলারোয়ার বোয়ালিয়া গ্রামের নিজ বাসভবনে ৯৬ বছর বয়সে এ গুণী মানুষটির মৃত্যু হয়।