কলারোয়ায় ‘মমতাজ আহমেদ’ পদক প্রদান


422 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
কলারোয়ায় ‘মমতাজ আহমেদ’ পদক প্রদান
ডিসেম্বর ৩১, ২০১৫ কলারোয়া ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

কে এম আনিছুর রহমান,কলারোয়া(সাতক্ষীরা) প্রতিনিধি
সাতক্ষীরার কলারোয়ায় প্রাক্তন এমএলএ, এমপি, এমসিএ মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক মমতাজ আহমেদের ২য় মৃত্যুবার্ষিকীতে স্মরণসভা ও ‘মমতাজ আহমেদ’ পদক প্রদাণ করা হয়েছে। বৃহষ্পতিবার সকালে বঙ্গবন্ধু মহিলা কলেজে এ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। দৈনিক অনির্বাণের সম্পাদক অধ্যক্ষ আলী আহম্মেদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে  প্রধান অতিথি ছিলেন সংরক্ষিত আসনের সংসদ সদস্য রিফাত আমিন। অন্যদের মধ্যে স্মৃতিচারণ করেন সাতক্ষীরা জেলা পুলিশের এডিশনাল এসপি মীর মোদ্দাছের হোসেন, কলারোয়া উপজেলাা.লীগের সভাপতি উপজেলা চেয়ারম্যান ফিরোজ আহম্মেদ স্বপন, দৈনিক কালের চিত্রের সম্পাদক অধ্যক্ষ আবু আহম্মেদ, প্রয়াত সাংবাদিক নেতা আব্দুল মোতালেব এর কন্যা অধ্যক্ষ শামছুন নাহার, থানার অফিসার ইনচার্জ শেখ আবু সালেহ মাসুদ করিম, মমতাজ আহমেদ স্মরণসভা কমিটির আহবায়ক অধ্যাপক এমএ ফারুক, মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাতক্ষীরা জেলা ইউনিট কমান্ডার মোশারফ হোসেন মশু, কলারোয়া ইউনিট কমান্ডার গোলাম মোস্তফা, কলারোয়া উপজেলা ওয়ার্কার্স পার্টির সম্পাদক মুক্তিযোদ্ধা মাস্টার আব্দুর রউফ, খাইবার আলী মাস্টার, কলারোয়া প্রেসক্লাবের সভাপতি শিক্ষক দীপক শেঠ, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক কেএম আনিছুর রহমান, অধ্যাপক তপন মন্ডল, রামাকান্ত সরকার,প্রভাষক আতিয়ার রহমান,নাছিরউদ্দীন,বিশাখা তপন সাহা, প্রভাষিকা মনিরা পারভিন প্রমুখ। অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন কবি সোবহান আমিন। অনুষ্ঠানে শতাব্দীর শ্রেষ্ঠ সন্তান, অবিসংবাদিত সমাজসেবক ও শিক্ষানুরাগী মমতাজ আহমেদের ২য় মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষ্যে কবি সোবহান আমিন সম্পাদিত স্মরণিকা ‘পুষ্পার্ঘ’ প্রকাশ করা হয়। এছাড়াও সমাজে বিভিন্ন ক্ষেত্রে বিশেষ অবদানের জন্য ১৬জন বিশিষ্ট ব্যক্তিকে ২০১৫ সালের জন্য ‘মমতাজ আহমেদ’ পদক প্রদান করা হয়।
##

কলারোয়ায় প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনীতে ২০৭ ও ইবতেদায়ীতে ৮ জন শিক্ষার্থী জিপিএ-৫
কলারোয়া(সাতক্ষীরা) প্রতিনিধি
সাতক্ষীরার কলারোয়ায় প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী ও ইবতেদায়ী পরীক্ষার ফলাফল বৃহস্পতিবার প্রকাশ করা হয়েছে।  উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিস সুত্রে জানা গেছে, এ বছর কলারোয়া উপজেলার প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনীতে ১৫৭ টি স্কুলের ৪,৫৮৭ জনের মধ্যে পরীক্ষায় অংশ গ্রহণ করে  ৪,৫৩৭ জন পরীক্ষার্থী। এর মধ্যে জিিিপএ-৫ অর্জন করে ২০৭ জন। এ-গ্রেড ৯৯১, এ-মাইনাস ৮৪০, বি-গ্রেড ৯২৯, সি-গ্রেড ১১৮৬ ও ডি-গ্রেড ৩৭৩ জন। অকৃতকার্য হয়েছে ১১ জন। পাসের শতকরা হার ৯৯.৭৫। সর্বাধিক ২৬ টি জিপিএ-৫ পেয়েছে কলারোয়া সরবারি প্রাইমারি স্কুল। ১২ টি জিপিএ-৫ পেয়ে তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে কলারোয়া শিশু ল্যাবরেটরী স্কুল। এছাড়া প্রি-ক্যাডেট ১১ টি, কয়লা সরকারি স্কুল ও গোয়ালচাতর সরকারি প্রাইমারি স্কুল ৯টি করে, পশ্চিম বোয়ালিয়া সরকারি স্কুল ৮ টি, ¤্রীপতিপুর মডেল ও মদনপুর সরকারি স্কুল ৭ টি করে, বেগম রোকেয়া এডাস স্কুল ৬টি এবং হিজলদি ও ঝাঁপাঘাট ৫ টি করে জিপিএ-৫ পেয়েছে। অকৃতকার্য হয়েছে ১১ জন। অপরদিকে ইবতেদায়ীূ পরীক্ষায় ৪৭১ জনের মধ্যে পরীক্ষায় অংশ গ্রহণ করে ৪০৪ জন পরীক্ষার্থী। এরমধ্যে জিপিএ-৫ অর্জিত হয়েছে ৮ টি। এ-গ্রেড ৩৬, এ-মাইনাস ৪৩, বি-গ্রেড ৬৬, সি-গ্রেড ১৭৯ ও ডি-গ্রেড ৬০ জন। অকৃতকার্য হয়েছে ১২ জন। পাসের শতকরা হার ৯৭.০৪।