কলারোয়ায় মাদ্রাসা ছাত্রী ধর্ষিত, ধর্ষক আটক


598 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
কলারোয়ায় মাদ্রাসা ছাত্রী ধর্ষিত, ধর্ষক আটক
মার্চ ৬, ২০১৭ কলারোয়া ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

কে এম আনিছুর রহমান, কলারোয়া ::
সাতক্ষীরার কলারোয়ায় খ্রীষ্টান ধর্মাবলম্বী লোকাস মন্ডল (৪৫) নামে এক ধর্ষককে আটক করে পুলিশে সোর্পদ করেছে স্থানীয় জনতা। সোমবার সকাল সাড়ে ৬ টার দিকে তাকে উপজেলার খোরদো বাজার থেকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করা হয়। আটক ধর্ষক উপজেলার খোরদো খ্রীষ্টান পাড়ার মৃত সতিশ মন্ডলের ছেলে। সে ওই বাজারের জুতা সেলাইয়ের কাজ করে।
ধর্ষিতার খালা খোরদো গ্রামের আব্দুল আজিজ গাজির স্ত্রী মর্জিনা খাতুন বলেন, তার বোনের মেয়ে (১৪) তার বাড়িতে থেকে যশোরের মনিরামপুর উপজেলার চাকলা মহিলা মাদ্রাসায় ৬ষ্ট শ্রেণিতে পড়ে। গত ২০ দিন আগে তার বোনের মেয়ে  ওই বাজারের লোকাস মন্ডলের জুতার দোকানে জুতা সেলাই করাতে যায়। এ সময় লোকাস তার টাকা-পয়সার প্রলোভন দেখিয়ে কু-প্রস্তাব দেয় এবং ওই দিন রাতে দেখা করতে বলে। ওই প্রস্তাবে তার বোনের মেয়ে রাজি না হওয়ায় বিভিন্ন সময় পথে-ঘাটে বিরক্ত করতে থাকে সে। এক পর্যায়ে গত ২৩ ফেব্রুয়ারী সকাল সাড়ে ৬ টার দিকে তার বোনের মেয়ে প্রাইভেট পড়তে যাওয়ার সময় ওই জুতার মিস্ত্রি লোকাসের দোকানের সামনে বান্ধবী কবিতাকে ডাকতে যায়। এ সময় লোকাস তাকে টাকা-পয়সার প্রলোভন দেখিয়ে কিছু কথা বলার জন্য বাজারের জয়দেবের একটি পরিত্যক্ত ঘরে মধ্যে নিয়ে জোরপূর্বক ধর্ষন করে। কিন্তু মেয়েটি লোক লজ্জার ভয়ে কাউকে বিষয়টি বলেনি। এরপর সোমবার সকাল সাড়ে ৬ টার দিকে একইভাবে প্রাইভেট পড়তে যাওয়ার সময় ওই জুতার দোকানের সামনে বন্ধবীর বাড়িতে কবিতাকে ডাকতে যায়। লম্পট লোকাস এ দিনও ঠিক একইভাবে তার সাথে কিছু গোপন কথা আছে বলে ওই পরিত্যক্ত ঘরে নিয়ে আবারও ধর্ষনের চেষ্টা করে। এ সময় তার ডাক-চিৎকারে বাজারের লোকজন ছুটে এসে তার বোনের মেয়েকে উদ্ধারসহ ধর্ষক লোকাসকে আটক করে খোরদো পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ হাসানুজ্জামানের নিকট সোপর্দ করে।
ধর্ষক লোকাস মন্ডলের নিকট জানতে চাইলে, সে এ বিষয়ে কোন মন্তব্য করতে চায়নি।
এ ব্যাপারে কলারোয়া থানায় একটি মামলা (নং-৩.তারিখ-৬/৩/১৭ইং) হয়েছে বলে অফিসার ইনচার্জ এমদাদুল হক শেখ জানান।