কলারোয়ায় হোমিওপ্যাথিক মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের ভিত্তি প্রস্তুর উদ্বোধন


306 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
কলারোয়ায় হোমিওপ্যাথিক মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের ভিত্তি প্রস্তুর উদ্বোধন
এপ্রিল ২২, ২০১৬ কলারোয়া ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

কে এম আনিছুর রহমান,কলারোয়া :
সাতক্ষীরার কলারোয়ায় হোমিওপ্যাথিক মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের ভিত্তি প্রস্তুর স্থাপন করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার বিকালে লোহাকুড়া ঘোষের পুকুর এলাকায় এ প্রতিষ্ঠানের ভিত্তি প্রস্তুর স্থাপনের শুভ উদ্বোধন করেন তালা- কলারোয়ার সংসদ সদস্য এ্যাড.মুস্তফা লুৎফুল্লাহ। উদ্বোধন শেষে কলেজ ক্যাম্পাসে কলেজের সভাপতি উপজেলা নির্বাহী অফিসার উত্তম কুমার রায়ের সভাপতিত্বে এক আলোচনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন এমপি এ্যাড.মুস্তফা লুৎফুল্লাহ। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন কলারোয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ফিরোজ আহম্মেদ স্বপন,বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ অধ্যাপক এম ফারুক,উপজেলা আ’লীগের সাবেক আহবায়ক সাজেদুর রহমান খান চৌধুরী মজনু,শিক্ষক নেতা ইউনুচ আলী,নব-নির্বাচিত ইউপি চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম,রবিউল হাসান,সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আনিছুর রহমান প্রমুখ। এর আগে স্বাগত বক্তব্য রাখেন কলারোয়া হোমিওপ্যাথিক মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ ডা. আব্দুল বারিক। এছাড়া উপস্থিত ছিলেন কলারোয়া প্রেসক্লাবের সভাপতি শিক্ষক দীপক শেঠ,সাধারণ সম্পাদক শেখ জুলফিকারুজ্জামান জিল্লু,কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক কে এম আনিছুর রহমান,দপ্তর সম্পাদক এম এ সাজেদ,অধ্যক্ষ ফারুক হোসেন,সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল হামিদ,প্রভাষক হাবিবুর রহমান,প্রভাষক মামুন প্রমুখভ সমগ্র অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন সাতক্ষীরা জজ কোটের আইনজীবী কাজী আব্দুল্লাহ আল হাবিব।

 

কলারোয়ায় পিএসসি’র বৃত্তিতে শীর্ষে কলারোয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়
কে এম আনিছুর রহমান,কলারোয়া(সাতক্ষীরা) প্রতিনিধি
সাতক্ষীরার কলারোয়ায় প্রাথমিক সমাপনি পরীক্ষায় বৃত্তিতে শীর্ষে অবস্থান করেছে কলারোয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়। এ বিদ্যালয় থেকে এবছর ১৭ জন ছাত্র-ছাত্রী বৃত্তি পেয়েছে। এর মধ্যে  ৯ জন ট্যালেন্টপুল ও ৮ জন ছাত্র সাধারণ গ্রেডে। ট্যালেন্টপুলে বৃত্তিপ্রাপ্ত ছাত্র-ছাত্রীরা হলেন- ফারিহা রহমান প্রমি ,বুশরালীন জান্নাত, নাফিসা আমিন নেহা ,শাদিদুজ্জামান,মীর শাহারিয়ার ইসলাম, ইসতিয়াক আহমেদ,সাইফ হাসান,এস এস নাইফুর রহমান, আমির ইনতিয়াজ। সাধারণ গ্রেডে বৃত্তিপ্রাপ্ত ছাত্র-ছাত্রীরা হলো- জাহিদুর রহমান, নাজমুল সাকিব, আমানুল্লাহ, মাহিমা মৌসী আনিকা, সামিয়া তাসনিম,ফারিবা নুসরাত খা, তাওসিফ আহম্মেদ,জান্নাতুল ফেরদৌস প্রভা। উল্লেখ্য, স্কুলটি থেকে ২০১৫ সালে সমাপনি পরীক্ষায় ২৬ জন জিপিএ-৫ পেয়ে উপজেলা সেরা হয়েছিল বলে প্রধান শিক্ষক মুজিবর রহমান জানান।