কলারোয়া সংবাদ ॥ ইউএনও মনিরা পারভীনকে বিদায় সংবর্ধনা


577 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
কলারোয়া সংবাদ ॥ ইউএনও মনিরা পারভীনকে বিদায় সংবর্ধনা
সেপ্টেম্বর ৯, ২০১৮ কলারোয়া ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

কে এম আনিছুর রহমান ::
সাতক্ষীরার কলারোয়ায় ন্যাশনাল সার্ভিসের সেই দুর্নীতিবাজ সদ্য সাবেক উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) মনিরা পারভীনকে বিদায় সংবর্ধনা দিয়েছেন উপজেলা পরিষদ।
রোববার দুপুরের দিকে উপজেলা চেয়ারম্যানের কার্যালয়ে এ উপলক্ষে এক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে বিদায়ী অতিথিকে ক্রেস্ট ও বিশেষ উপহার সামগ্রি দিয়ে সম্মাননা জানানো হয়।
এ সময় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ফিরোজ আহম্মেদ স্বপন।
বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আরাফাত হোসেন ও সেলিনা আনোয়ার ময়না, পৌরসভার প্যানেল মেয়র মনিরুজ্জামান বুলবুল এবং পৌর আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক শেখ শহিদুল ইসলাম।
এ ছাড়া উপস্থিত ছিলেন জয়নগর ইউপি চেয়ারম্যান শামছুদ্দিন আল মাসুদ বাবু, জালালাবাদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদ, কয়লা ইউপি চেয়ারম্যান শেখ ইমরান হোসেন, লাঙ্গলঝাড়া ইউপি চেয়ারম্যান প্রধান শিক্ষক নুরুল ইসালাম, কেঁড়াগাছি ইউপি চেয়ারম্যান আফজাল হোসেন হাবিল, সোনাবাড়িয়া ইউপি চেয়ারম্যান এসএম মনিরুল ইসলাম মনি, চন্দনপুর ইউপি চেয়ারম্যান মনিরুল ইসলাম মনি, কেরালকাতা ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আব্দুল হামিদ সরদার, কুশোডাঙ্গা ইউপি চেয়ারম্যান আসলামুল আলম আসলাম, দেয়াড়া ইউপি চেয়ারম্যান মাহবুবুর রহমান মফে, যুগিখালী ইউপি চেয়ারম্যান রবিউল হাসানসহ উপজেলা প্রশাসনের বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তারা ও অন্যরা উপস্থিত ছিলেন। উল্লেখ্য, মনিরা পারভীন চুয়াডাঙ্গায় এডিসি পদে বদলি হয়েছেন।
##

কলারোয়ার কেঁড়াগাছিতে ১০টাকা কেজি দরের চাল বিতরণ উদ্বোধন
কে এম আনিছুর রহমান ::
‘শেখ হাসিনার বাংলাদেশ, ক্ষুধা হবে নিরুদ্দেশ’- স্লোগানকে সামনে রেখে সাতক্ষীরার কলারোয়ার কেঁড়াগাছি ইউনিয়নে ১০টাকা কেজি দরের চাল বিতরণ উদ্বোধন করা হয়েছে।
রোববার সকালে স্থানীয় দমদম বাজারের ডিলার পয়েন্টে দরিদ্রদের মাঝে এ চাল বিতরণের উদ্বোধন করেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ফিরোজ আহম্মেদ স্বপন।
এ ইউনিয়নের ১ হাজার ১১৮টি কার্ডধারীদের মাঝে মাথাপিছু ৩০কেজি করে পর্যায়ক্রমে সপ্তাহে ৩দিন ১০টাকা কেজি দরে চাল বিতরণ করা হবে।
উদ্বোধনকালে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বলেন,ক্ষুধা ও দারিদ্র মুক্ত বাংলাদেশ গড়তে শেখ হাসিনার অঙ্গীকার বাস্তবায়ন করতে ১০ টাকা দরে দারিদ্র পরিবারকে চাল পৌঁছে দিতে এ কার্যক্রম হাতে নিয়েছে সরকার। বাংলাদেশে কেউ আর দু:স্থ থাকবে না। আমরা রাজনীতি করি দেশের মানুষের জন্য, নিজেদের জন্য নয়। উন্নয়নের এ ধারা অব্যাহত রাখতে নৌকায় ভোট চান তিনি।
এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন- কেঁড়াগাছি ইউপি চেয়ারম্যান আফজাল হোসেন হাবিল, ইউপি সদস্য রন্জীলা কুদ্দুস, আ.লীগ নেতা জিয়ারুল ইসলাম, রুহুল কুদ্দুস, রজব আলী সরদার, সারোয়ার হোসেন, ডিলার ওমর আলী, সাংবাদিক জাহাঙ্গীর আলম লিটন, ফারুক হোসেন রাজ প্রমুখ।
##

কলারোয়ার যুগিবাড়ি-মুরারিকাটি কাঠের ব্রিজটি জরাজীর্ণ অবস্থায়

কে এম আনিছুর রহমান ::
সাতক্ষীলার কলারোয়া পৌরসভাধীন যুগিবাড়ির কাঠের ব্রিজটি জরাজীর্ণ অবস্থায় চলাচলে অনুপযোগি হয়ে পড়েছে। তুব যেন দেখার কেউ নেই। বেত্রবতী নদীর উপরে মুরারীকাটির সাথে গোপিনাথপুর-যুগিবাড়ি সংযোগ স্থাপনকারী এ ব্রিজটি অত্যন্ত জনগুরুত্বপূর্ণ হলেও দীর্ঘদিন সংষ্কারের অভাবে ব্রিজটির অনেক স্থান ভেঙ্গে যাওয়ায় চরম ভোগান্তিতে পড়েছেন সেখানকার হাজারো মানুষ।
সরেজমিনে দেখা যায়- কলারোয়া উপজেলা সদরের বাজার থেকে ৩ কিলোমিটার দূরে পৌরসভাধীন যুগিবাড়ি গ্রামের ভিতরে এই ব্রিজটি মানুষের যোগাযোগের একমাত্র ব্যবস্থা। ব্রিজটির পাটাতনের কাঠগুলো নষ্ট হয়ে গেছে। কয়েকটি জায়গায় পাটাতনের কাঠ উঠে ফাঁকা হয়ে গেছে। পাশের ধরার বাশেঁর রেলিং ভেঙ্গে পড়ে গেছে। ফলে ভঙ্গুরপ্রায় ব্রিজটিতে এলাকার মানুষের চলাচলের ব্যাপক সমস্যা হচ্ছে। মোটর সাইকেল, বাইসাইকেল, ভ্যান নিয়ে যাওয়া খুবই কষ্টদায়ক। দীর্ঘদিন সংস্কারের দাবি উঠলেও সংশ্লিষ্টদের উদাসিনতা আর চোখবুজে থাকার কারণে জরাজীর্ণ কাঠের ব্রিজটি যেকোন মহুর্তে ভেঙ্গে যেতে পারে বলে মন্তব্য করেছেন এলাকাবাসী।
ফলে কলারোয়াসহ অন্যত্রে যাতায়াতের চরম দূর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। স্বাভাবিকভাবেই এলাকাবাসী ক্ষোভ ও মন্তব্য করে বলেছেন- যেন দেখার যেন আর কেউ নেই।
এলাকাবাসী অবিলম্বে বাঁশ-কাঠের এ বিজ্রটি সংস্কার ও ভবিষ্যতে সেখানে পাকা ব্রিজ করার দাবি জানিয়েছেন।
##