কলারোয়া সংবাদ ॥ ছলিমপুরে কলেজে শিক্ষার্থী-এলাকাবাসীর মানববন্ধন


173 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
কলারোয়া সংবাদ ॥ ছলিমপুরে কলেজে শিক্ষার্থী-এলাকাবাসীর মানববন্ধন
আগস্ট ২৪, ২০১৯ কলারোয়া ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

কে এম আনিছুর রহমান ::

সাতক্ষীরার কলারোয়া উপজেলার ছলিমপুরের হাজী নাছির উদ্দিন ডিগ্রি কলেজের অনিয়ম-দুর্নীতির বিরুদ্ধে শিক্ষার্থীরা বিক্ষোভ সমাবেশ ও মানববন্ধন করেছে। শনিবার সকাল ১০টার দিকে কলেজ প্রধান গেটের সামনে খোরদো-কলারোয়া সড়কে এ মানববন্ধন করেন। মানববন্ধনে বর্তমান কলেজ কর্তৃপক্ষের সীমাহীন অনিয়ম দুর্নীতির বিরুদ্ধে তারা ফুসে উঠে পোস্টার, প্লাকার্ড হাতে নিয়ে বিভিন্ন দাবি উত্থাপন করে।
তবে এসময় কোন অপ্রীতিক ঘটনার খবর পাওয়া যায়নি। বিক্ষোভকালে কলেজ ভবনে উপস্থিত শিক্ষকরা অবরুদ্ধ হয়ে পড়েন। পরে পুলিশ গেলে পরিস্থিতি শান্ত হয় বলে জানা গেছে।
ছাত্র-ছাত্রীদের দাবির মধ্যে ছিল- প্রশাসনিক স্বচ্ছতা, কলেজের আয়-ব্যয়ের সঠিক হিসাব প্রকাশ, বিভিন্ন অনিয়মে জড়িতদের বিচারের ব্যবস্থা করা, অস্বচ্ছল ম্যানেজিং কমিটি বাতিল করা, সঠিক সময়ে শিক্ষকদের উপস্থিতি ও পাঠদান নিশ্চিত করা, প্রাক্তন ছাত্র-ছাত্রী ও অভিভাবকদের যথাযথ মূল্যায়ন করা, কলেজের প্রতিষ্ঠাতাসহ অত্র অঞ্চলের সম্মানিত ব্যক্তি, দাতাদের মূল্যায়ন ও মতামতের প্রাধান্য দেয়া, পরীক্ষার ফি ও ফরম ফিলাপের ফি বাড়তি না নেয়া, কলেজের সার্বিক উন্নয়নে প্রতিষ্ঠাতাদের অগ্রাধিকার দেয়া, সিগারেটসহ মাদক সেবন রোধ ইত্যাদি।
কলেজের ছাত্র রহমত, জনি, মেহেদী হাসান, রায়হান খানসহ আরও অনেকে বলেন- ‘আমরা কলেজে নানাভাবে লাঞ্ছিত হচ্ছি। অধ্যক্ষের অনিয়ম ও দুর্নীতির বিরুদ্ধে কথা বলার কারণে আমাদের পেটানো হয়েছে। আরোও নানা ধরনের হুমকি ধামকি দেয়া হয়েছে। আমাদের পোস্টার ছিড়ে দিয়েছে কলেজ কর্তৃপক্ষ।’
ছাত্র-ছাত্রীদের বিক্ষোভ সমাবেশ ও মানববন্ধনের বিষয়ে হাজী নাছির উদ্দিন ডিগ্রি কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ আব্দুল আলিমের কাছে জানতে চাইলে তিনি জানান- ‘এগুলো ভিত্তিহীন বানোয়াট। ছাত্র-ছাত্রী ও এলাকাবাসীরা আমার ও কলেজের বিরুদ্ধে কালিমা লেপে দেয়ার অপচেষ্টা করছে। এটি একটি গভীর ষড়যন্ত্র ও চক্রান্ত। আমি দুর্নীতি ও ধুমপানের মত জঘন্য কাজকে কোনো ভাবেই প্রশ্রয় দেই না।’
কলেজের প্রতিষ্ঠাতার প্রতি ইঙ্গিত করে অধ্যক্ষ আরোও বলেন- ‘তিনি সভাপতি থাকাকালীন কলেজের সম্পদ লুটেপুটে খেয়েছে। এখন আর তা পারছেন না বলে স্থানীয় জনসাধারণ ও কিছু ছাত্রদের উসকানি দিয়ে এই পরিস্থিতির সৃষ্টি করেছেন।’

এদিকে, ঐতিহ্যবাহী এই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে এ’ধরণের পরিস্থিতি কলেজের ছাত্র-ছাত্রীদের উজ্জ্বল ভবিষ্যতকে হুমকিতে ফেলছে বলে শঙ্কা প্রকাশ করেছেন অভিভাবক ও স্থানীয় সচেতন জনতা।

#

কলারোয়ার জয়নগরে কৃষি বিষয়ক কর্মশালা

কে এম আনিছুর রহমান ::

সাতক্ষীরার কলারোয়ার জয়নগরে কৃষকদের দিনব্যাপী কৃষি বিষয়ক প্রশিক্ষণ কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার সকালে জয়নগর বাজার সংলগ্ন বদরুন্নেছা গালর্স হাইস্কুল প্রাঙ্গনে ৬০জন কৃষকদের নিয়ে মাটির নমুনা সংগ্রহ, সুষম সার ব্যবহার ও ভেজাল সার সনাক্তকরণের উপর প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন খুলনার মৃত্তিকা সম্পদ উন্নয়ন ইন্সটিটিউটের সিনিয়র সায়েন্টিফিক অফিসার অমেরেন্দ্রনাথ বিশ্বাস, গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়ার ইন্সট্রাক্টর (ইউআরসি) বরুন কান্তি হালদার, মোল্লারহাটের মৎস অফিসার রাজ কুমার বিশ্বাস, বদরুন্নেছা গালর্স হাইস্কুলের প্রধান শিক্ষক রুহুল কুদ্দুস, বরুন চক্রবর্তী, লিটন শিকদারসহ প্রশিক্ষণ নিতে আসা কৃষকরা। কর্মশালা শেষে প্রশিক্ষণার্থীদের ভাতা প্রদান করা হয়।

#

কলারোয়ায় ফেনসিডিলসহ দুই ব্যক্তি গ্রেপ্তার

কে এম আনিছুর রহমান ::

সাতক্ষীরার কলারোয়ায় পৃথক অভিযানে ফেনসিডিলসহ ১ মাদক ব্যবসায়ী ও নিয়মিত মামলার ১ আসামিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।
শুক্রবার রাতে তাদের আটক করে পুলিশ। কলারোয়া থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মোহা. রাজিব হোসেন জানান- ‘এসআই রাজ কিশোর পাল, এএসআই মোস্তাক আহম্মেদসহ সংগীয় ফোর্সের সহায়তায় মাদক বিরোধী অভিযান পরিচালনাকালে শুক্রবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে উপজেলার সোনাবাড়ীয়া সোনারবাংলা ডিগ্রি কলেজের সামনে থেকে মিলন গাজী (২৩)কে ২০বোতল ফেনসিডিলসহ গ্রেপ্তার করেন। সে সোনাবাড়িয়া গ্রামের লুৎফর গাজীর ছেলে। তার বিরুদ্ধে কলারোয়া থানার মামলা নং-২২(৮)১৯ রুজু করা হয়েছে। এদিকে, একই রাত সাড়ে ১০টার দিকে নিয়মিত মামলার আসামি উপজেলার চন্দনপুর গ্রামের আব্দুল ওহাবের ছেলে মহিরুল ইসলামকে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে গয়ড়া বাজার থেকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।
গ্রেপ্তারকৃতদের শনিবার সকালে বিজ্ঞ আদালত প্রেরণ করা হয়েছে বলে থানা সূত্রে জানা গেছে।

#