কলারোয়া সংবাদ ॥ দু:স্থ মহিলাদের সেলাই প্রশিক্ষণ’র উদ্বোধন


152 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
কলারোয়া সংবাদ ॥ দু:স্থ মহিলাদের সেলাই প্রশিক্ষণ’র উদ্বোধন
জুন ১০, ২০১৯ কলারোয়া ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

কে এম আনিছুর রহমান ::

সাতক্ষীরার কলারোয়ায় দু:স্থ মহিলাদের আত্মকর্মসংস্থানের জন্য সেলাই প্রশিক্ষণ কর্মসূচীর উদ্বোধন করা হয়েছে। সোমবার বেলা ১১টার দিকে উপজেলা পরিষদ অডিটোরিয়ামে ওই অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। উপজেলা প্রশাসনের বাস্তবায়নে ২০১৮-১৯অর্থবছরের বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচী (এডিপি) এর আওতায় ১ম ব্যাচে উপজেলার ৫৮জন দু:স্থ মহিলা প্রশিক্ষণে অংশ নিচ্ছেন। ১৫কর্মদিবসের প্রশিক্ষণ শেষে তাদের সেলাই মেশিন প্রদান করা হবে। প্রশিক্ষণে তারা যাতায়াত হিসেবে প্রতিদিন ১’শ টাকা করে ভাতা পাবেন। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আমিনুল ইসলাম লাল্টু। উপজেলা নির্বাহী অফিসার আরএম সেলিম শাহনেওয়াজের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা সমাজসেবা অফিসার শেখ ফারুক হোসেন। এসময় প্রশিক্ষণার্থীরাসহ অন্যরা উপস্থিত ছিলেন।

#

কলারোয়ার কয়লায় প্রীতি ফুটবল ম্যাচ অনুষ্ঠিত

কে এম আনিছুর রহমান ::

সাতক্ষীরার কলারোয়ার কয়লায় এক প্রীতি ফুটবল ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার বিকেলে কয়লা হাইস্কুল মাঠে স্থানীয় কয়লা প্রগতী সংঘ ও খোরদো কপোতাক্ষ ফুটবল একাদশ পরষ্পর মুখোমুখি হয়। খেলার প্রথমাধ্যে আক্রমন-পাল্টা আক্রমনের মধ্যে দলই গোল করতে পারেনি। বিরতির পর ১২মিনিটের মাথায় কয়লা প্রগতী সংঘের ১০নম্বর জার্সিধারী ঢাকার বিকেএসপির খেলোয়াড় হাসিবুল গোল করে দলকে এগিয়ে নেন। নির্ধারিত সময়ে আর কোন গোল না হওয়ায় খোরদোকে পরাজিত করে কয়লা। ঈদুল ফিতর উপলক্ষ্যে এ প্রীতি ম্যাচের আয়োজন করা হয়। খেলায় রেফারির দায়িত্ব পালন করেন সাইফুল ইসলাম। সহকারি রেফারির দায়িত্ব পালন করেন আলফাজ ও রহমান। ধারাভাষ্যে ছিলেন প্রভাষক আব্দুর রাজ্জাক।
বিপুল সংখ্যাক দর্শেকের পাশাপাশি খেলাটি উপভোগ করেন কয়লা হাইস্কুলের অবসরপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রউফ, কয়লা প্রগতী সংঘের সাধারণ সম্পাদক মাস্টার আসাদুল ইসলাম আসাদ, কলারোয়া নিউজের রিপোর্টার হাবিবুর রহমান রনি, ক্রীড়া সংগঠক মশিয়ার রহমান, আলফাজ হোসেন, ডা. নাজমুল ইসলাম, আশরাফুল ইসলাম প্রমুখ।

#

কলারোয়ার হোমিও কলেজ প্রধানমন্ত্রীর জাতীয় পুরস্কারে মনোনীত

কে এম আনিছুর রহমান ::

সাতক্ষীরার কলারোয়া হোমিওপ্যাথিক মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল বৃক্ষরোপণে প্রধানমন্ত্রীর জাতীয় পুরস্কার-২০১৮’তে সারাদেশের মধ্যে প্রথম হয়েছে । আগামি ২০জুন, ২০১৯ জাতীয় বৃক্ষ মেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রতিষ্ঠানটির প্রতিনিধির হাতে পুরষ্কার তুলে দেবেন বলে জানা গেছে। সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে- বন অধিদপ্তরের সহকারী প্রধান বন সংরক্ষক অজিত কুমার রুদ্র স্বাক্ষরিত ৩জুন তারিখের এক পত্রে জানানো হয়েছে যে, বৃক্ষরোপণে প্রধানমন্ত্রীর জাতীয় পুরস্কার-২০১৮ এর ‘খ’ শ্রেণি’র কলেজ/ বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাটাগরিতে সারা বাংলাদেশের মধ্যে বৃক্ষরোপনে বিশেষ অবদানের জন্য কলারোয়া হোমিওপ্যাথিক মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল ‘প্রথম স্থান’ অধিকার করেছে। পরিবেশ, বন ও জলবায়ূ পরিবর্তন মন্ত্রণালয়ের এতদাসংক্রান্ত জাতীয় কমিটির সভায় সারাদেশে বৃক্ষরোপনে অবদানের স্বীকৃতির পুরষ্কারপ্রাপ্তদের মনোনীত করা হয়। মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে ২৫মে অনুষ্ঠিত ওই সভায় সভাপতিত্ব করেন পরিবেশ, বন ও জলবায়ূ পরিবর্তন শাহাব উদ্দীন এমপি।
সভার কার্যবিবরণীতে উল্লেখ করা হয়- আবেদনপত্র সমূহের প্রাথমিক যাচাই-বাছাই উপজেলা/ জেলা/ বিভাগ পর্যায়ে সম্পন্ন করার পর মন্ত্রণালয়ে পদক মনোনয়ন উপ-কমিটির নিকট প্রেরণ করা হয়। সভায় ‘খ’ শ্রেণিতে ১টি মাত্র আবেদন পাওয়া গেছে ও নীতিমালার সকল শর্ত পূরণ করায় পুরষ্কারের জন্য মনোনয়ন প্রদান সমীচীন হবে বলে সকলে একমত পোষন করেন।
আগামি ২০জুন ২০১৯ তারিখে রাজধানী ঢাকায় জাতীয় বৃক্ষ মেলা-২০১৯ এর শুভ উদ্বোধন অনুষ্ঠানে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কর্তৃক পুরস্কার প্রদানের কথা রয়েছে।
প্রথমস্থান অধিকার করায় পুরষ্কার হিসেবে সনদপত্র ও ৩০ হাজার টাকার চেক প্রদান করা হবে।

#

কলারোয়ার জয়নগর বাজারের মাছ চান্নি দখল !

কে এম আনিছুর রহমান ::

সাতক্ষীরার কলারোয়া উপজেলার জয়নগর বাজারের মাছ চান্নিতে কাঠ রেখে দিয়ে দখলে রাখার অভিযোগ উঠেছে। সংষ্কার জরুরী হওয়া সত্বেও সেটা করা সম্ভব হচ্ছে না। দীর্ঘদিন কাঠ ফেলে রাখায় সাধারণ মাছ ব্যবসায়ীদের পাশাপাশি ক্রেতারাও পড়েছেন বিপাকে।
স্থানীয় সূত্র জানায়- জয়নগর বাজারের কপোতাক্ষ নদীর ধারে স্থাপিত মৎস্য চান্নিতে দীর্ঘদিন ধরে কাঠ রেখে দখল করে রেখেছেন বাজারের মিষ্টি ব্যবসায়ী রহমান ঢালির ছেলে হান্নান ঢালি। কিছুটা অনুপযোগিও হয়ে পড়েছে সেটি। চান্নিটি পুন:সংস্কার করে সেখানে নতুন ব্যবসায়ীদের ব্যবসার সুযোগ সৃষ্টির উদ্যোগ নিয়েছেন বাজারের নতুন কমিটির সভাপতি মিন্টু কুমার পালসহ অন্যরা। কিন্তু চান্নিতে রাখা কাঠ সরাবেন না বলে সাফ জানিয়ে দিয়েছেন হান্নান ঢালি। ফলে সেটি সংষ্কার করা সম্ভব যেমন হচ্ছে না তেমনি ব্যবহার করতে পারছে না সাধারণ মাছ ব্যবসায়ীরা। দিনকে দিন চান্নিটি ব্যবহার অনুপযোগি হতে চলেছে। এ বিষয়ে ইউনিয়ন ভূমি অফিসে কর্মরত আব্দুল বারি জানান- লিখিত অভিযোগ জানালে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে। কাঠ রেখে চান্নি দখলে রাখা হান্নান ঢালির সাথে মোবাইল ফোনে কথা বললে তিনি কোন সদুত্তর দেননি। এ ব্যাপারে কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহনের জন্য ব্যবসায়ীসহ সর্বস্তরের মানুষ প্রশাসনের কাছে দাবি জানিয়েছেন।

#

কলারোয়ায় বড়ালী মডেল মাদরাসার সড়ক তৈরির কাজ উদ্বোধন

কে এম আনিছুর রহমান ::
সাতক্ষীরার কলারোয়ার সোনাবাড়িয়া ইউনিয়নের বড়ালী মডেল মাদরাসা (প্রস্তাবিত) স্থাপনের লক্ষ্যে সড়ক তৈরির কাজ উদ্বোধন করা হয়েছে। মূল রাস্তা থেকে প্রায় আধা কিলোমিটার ব্যক্তিগত অর্থায়নে ইট-মাটি দিয়ে ওই সড়ক তৈরি করছেন বিশিষ্ট ইসলামি চিন্তাবিদ-বক্তা, মুফাসসিরে কোরআন, কলারোয়া আলিয়া মাদরাসার শিক্ষক মুহাদ্দিস আমিরুল ইসলাম বিলালী। তিঁনি বড়ালী গ্রামের উত্তরপাড়ায় মডেল মাদরাসা স্থাপন করতে যাচ্ছেন। গত রোববার স্থানীয় সাধারণ মানুষের সহযোগিতায় সেই মাদরাসায় যাওয়া-আসার পথ বের করে সড়ক উদ্বোধন করা হয় । পার্শ্ববর্তী সোনাই নদীর উপর কাঠের সাকো তৈরি করে বড়ালী-দাড়কি গ্রামের সংযোগ স্থাপন করে মাদরাসায় যাওয়া-আসার পরিবেশ তৈরির উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।
সড়ক উদ্বোধনকালে উপস্থিত ছিলেন চন্দনপুর ইউপি চেয়ারম্যান মনিরুল ইসলাম মনি, বড়ালী ওয়ার্ডের সাবেক মেম্বার আব্দুর রউফ বিশ্বাস, ঢাবি ছাত্রলীগ নেতা বেনজির আহমেদ হেলাল, বিশিষ্ট ব্যক্তি ডা. রেজাউল করিম, মেম্বার লেয়াকত আলী, মাস্টার আমিনুর রহমান, এ্যাড. আতাউর রহমান, সোহাগ সরদার, আবদুল গফফার বৈদ্য, খায়রুল ইসলাম বৈদ্য, সরোয়ার বৈদ্য, গোলাম রসুল, আলতাফ হোসেন বিশ্বাস, ইমরান হুসাইন সহ গ্রামের সর্বস্তরের সাধারণ মানুষ।

#

কলারোয়া পাইলট হাইস্কুলের ২০১৫-১৬ ব্যাচের প্রীতি ফুটবল ম্যাচ

কে এম আনিছুর রহমান ::

সাতক্ষীরার কলারোয়া জিকেএমকে পাইলট সরকারী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের এসএসসি ২০১৫ বনাম ২০১৬ ব্যাচের মধ্যে প্রীতি ফুটবল ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়েছে। গত রোববার বিকালে কলারোয়া জিকেএমকে পাইলট হাইস্কুল ফুটবল মাঠে এই প্রীতি ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হয়।
খেলার প্রথমার্ধে আক্রমন পাল্টা আক্রমনের মধ্যে কোন দলই গোল করতে না পেরে ড্র থেকে মধ্যে বিরতিতে যায়। দ্বিতীয়ার্ধে গোলের জন্য উভয় দলই মরিয়া হয়ে খেলে ২০১৫ ব্যাচের ৬৯নম্বর জার্সিধারী খেলোয়াড় রাব্বি ১৮ মিনিটের মাথায় গোল করে দলকে এগিয়ে নেন। খেলার শেষ মুহুর্তে ২০১৫ ব্যাচের ৯নম্বর জার্সিধারী খেলোয়াড় সুজন গোল করে ব্যাবধান বাড়িয়ে খেলা শেষ করে। ফলে ২০১৬ ব্যাচকে পরাজিত করে নিজেদের জয় নিশ্চিত করে ২০১৫ব্যাচ। খেলায় রেফারির দায়িত্ব পালন করেন জিএম মাসউদ পারভেজ মিলন। সহকারী রেফারির দায়িত্ব পালন করেন আরিফুজ্জামান ও রাশেদুজ্জামান ইমন। ধারাভাষ্যে ছিলেন প্রভাষক রফিকুল ইসলাম, শেখ শাহাজাহান আলি শাহিন, জাহাঙ্গীর হোসেন ও সুমন।
বিপুল সংখ্যাক দর্শকের পাশাপাশি খেলাটি উপভোগ করেন কপাই সাধারণ সম্পাদক এড.শেখ কামাল রেজা, ক্রীড়া সংগঠক রেজাউল করিম লাভলু, কলারোয়া প্রেসক্লাবের সিনিয়র সহ.সভাপতি সহকারী অধ্যাপক কেএম আনিছুর রহমান, কলারোয়া নিউজ’র স্টাফ রিপোর্টার হাবিবুর রহমান রনি, ক্রীড়াপ্রেমি মারুফ হোসেন, আরিজুল, মোখলেছ, সিয়াম, হাসিবুল প্রমুখ।

#