কলারোয়া সংবাদ ॥ প্রতিবন্ধীদের মধ্যে হুইল চেয়ার ও ক্রেষ্ট বিতরণ


442 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
কলারোয়া সংবাদ ॥ প্রতিবন্ধীদের মধ্যে হুইল চেয়ার ও ক্রেষ্ট বিতরণ
মে ২৯, ২০১৬ কলারোয়া ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

কলারোয়া(সাতক্ষীরা)প্রতিনিধি
সাতক্ষীরার কলারোয়া উপজেলা পরিষদের বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচীর আওতায় উপজেলায় দরিদ্র প্রতিবন্ধীদের মধ্যে হুইল চেয়ার ও ক্রাচ বিতরণ করা হয়েছে। রোববার সকালে এ উপলক্ষে উপজেলা সমাজসেবা অফিসের এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। উপজেলা নির্বাহী অফিসার  উত্তম কুমার রায়ের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ফিরোজ আহম্মেদ স্বপন। এ সময় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা এলজিইডি কর্মকর্তা আবেদুর রহমান, উপজেলা সমাজসেবা অফিসার শেখ ফারুক হোসেন, মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা নুরুন নাহার আক্তার, প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা সুলতানা জাহান, ইউপি চেয়ারম্যান মাস্টার নুরুল ইসলাম, মনিরুল ইসলাম, আফজাল হোসেন হাবিল, মাহবুবুর রহমান মফে প্রমুখ। আলোচনা শেষে উপজেলার ১২টি ইউনিয়নসহ পৌরসভায় ৩৬ জন প্রতিবন্ধীদের মধো ৩৬টি হুইল চেয়ার ও ১০ ক্রাচ বিতরণ করেন উপজেলা চেয়ারম্যান ফিরোজ আহম্মেদ স্বপন।

কলারোয়া অগ্রগতি সংস্থায় ২দিনের রিফ্রেসার্স ট্রেনিং
কলারোয়া(সাতক্ষীরা)প্রতিনিধি
সাতক্ষীরার কলারোয়ায় মানুষের জন্য ফাউন্ডেশন ঢাকা এর সহযোগিতায় ও অগ্রগতি সংস্থার ব্যবস্থপনায় কলারোয়া উপজেলা অগ্রগতি সংস্থার স্পীচ প্রকল্প অফিসে ২দিনের এক রিফ্রেসার্স ট্রেনিং শুরু হয়েছে। রোববার সকাল ১০ টায় প্রকল্পের লক্ষ্য,উদ্দেশ্য ও কার্যবলী বিষয় নিয়ে অনুষ্ঠিত প্রকল্প কমীদের রিফ্রেসার্স ট্রেনিং-এ উপস্থিত ছিলেন প্রকল্প সমন্বয়কারী আহসানুল ইসলাম, অগ্রগতি সংস্থার প্রকল্প কর্মকর্তা এমডিও  আশরাফুল ইসলাম, পিএসিও বিএম আব্দুস সায়েম, পিও আবু বক্কর সিদ্দিক, মহিবুল হক, ইউএফ শেখ সিরাজুল ইসলাম, মামুন আহসান উদ্দীন, তারক চন্দ্র শীল, চন্দ্র শেখর হালদার, জেসমিন আরা, কৃষ্ণা রানী সাহা, ওএ দিলরুবা নাসরিনসহ প্রকল্পের সকল কর্মীবৃন্দ ।

কলারোয়া উপজেলা পরিষদের উন্মুক্ত বাজেট ঘোষনা
কে এম আনিছুর রহমান,কলারোয়া (সাতক্ষীরা) প্রতিনিধি
সাতক্ষীরার কলারোয়া উপজেলা পরিষদের উন্মুক্ত বাজেট অধিবেশন অনুষ্ঠিত হয়েছে। রোববার বেলা ১১ টার দিকে উপজেলা পরিষদের আয়োজনে অফির্সাস ক্লাব মিলনায়তনে  ২০১৬-১৭ অর্থ বছরের এ বাজেট অধিবেশনে ২ কোটি ৬৬ লক্ষ ৫০ হাজার টাকার বাজেট ঘোষনা করা হয়। উপজেলা পরিষদেও মুখ্য নির্বাহী কর্মকর্তা ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার উত্তম কুমার রায়ের সভাপতিত্বে এ অধিবেশনে প্রধান অতিথি হিসেসেব বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ফিরোজ আহম্মেদ স্বপন। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান সেলিনা আনোয়ার ময়না। অন্যদের মধ্যে  বক্তব্য রাখেন ও উপস্থিত ছিলেন উপঝেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার আব্দুল হামিদ, মৎস্য কর্মকর্তা মোমাররফ হোসেন, প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা ডা. এ এস এম আতিকুজ্জামান,ডা. মেহেরুল্লাহ, কৃষি কর্মকর্তা মহসীন আলী,মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা নুরুন নাহার আক্তার, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা সুলতানা জাহান, কলারোয়া ক্লাবের সভাপতি শিক্ষক দীপক শেঠ, সা.সম্পাদক শেখ জুলফিকারুজ্জামান জিল্লু, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক কে এম আনিছুর রহমান,সাবেক সভাপতি গোলাম রহমান, দপ্তর সম্পাদক এম এ সাজেদ,ইউপি চেয়ারম্যান সামছুদ্দীন আল মাসুদ বাবু, শওকত হোসেন, শেখ ইমরান হোসেন,নুরুল ইষলাম, আবজাল হোসেন হাবিল, মনিরুল ইসলাম,স.ম মোরশেদ আলী,মাহবুবুর রহমান মফে, রবিউল হাসান প্রমুখ।

কলারোয়ায় জুয়াড়ীসহ ৫ ব্যক্তি আটক
কলারোয়া(সাতক্ষীরা) প্রতিনিধি
সাতক্ষীরার কলারোয়ায় পুলিশ অভিযান চালিয়ে তিন জুয়াড়ীসহ  ৫ ব্যক্তিকে আটক করেছে। শনিবার রাত থেকে রোববার সকাল পর্যন্ত উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদেরকে আটক আটক করা হয়। আটককৃতরা হলেন- কলারোয়া পৌর সদরের মুরারীকাটি গ্রামের খন্দকার বাবু হোসেনের ছেলে জুয়াড়ী খন্দকার সোহেল হোসেন (২২),গদখালী গ্রামের আব্দুল গনি মোড়লের ছেলে জামিউল হোসেন (৪০), মির্জাপুর গ্রামের আবুল হোসেন সানার ছেলে আইয়ুব আলী (৪০), উপজেলার বামনখালী গ্রামের কিনু সরদারের ছেলে হোসেন আলী (২৪),কিনু সরদারের স্ত্রী কুলসুম বেগম (৫০)। আটককৃতদের বিরুদ্ধে জুয়াড়ী ও ওয়ারেন্ট থাকায় তাদেরকে আটক করে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে বলে থানা পুলিশ জানায়।

কলারোয়া সরকারী কলেজ হোস্টেলের নামকরণ উপলক্ষ্যে আলোচনা সভা
কলারোয়া (সাতক্ষীরা) প্রতিনিধি
সাতক্ষীরার কলারোয়া সরকারী কলেজ হোস্টেলের নামকরণ উপলক্ষ্যে কলেজ মিলনায়তনে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। রোববার বিকালে কলারোয়া সরকারী কলেজ ছাত্রলীগের আয়োজনে এ আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। কলেজ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক  আহানাফ তাজীর অনিকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ফিরোজ আহম্মেদ স্বপন। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন কলারোয়া সরকারী কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর বাসুদেব বসু। অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাকেন ও উপস্থিত ছিলেন কলেজ হোস্টেল সভাপতি মনিরুজ্জামান মনির,সহ-সভাপতি সোহেল রানা, সাধারণ সম্পাদক মোস্তাক আহম্মেদ,যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক প্রসেনজিৎ দাস, সাংগঠনিক সম্পাদক ইদ্রিস আলী ছাত্রলীগ নেতা ইমদাদুল ইসরাম বায়েজিদ, আলামিন, নাজমুল হোসেন,রাজু আহম্মেদ প্রমুখ। আলোচনা সভায় সর্ব সম্মিতক্রমে হোস্টেলটি’র নামকরণ বঙ্গবন্ধু হল রাখার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। সে মোতাবেক কলেজ অধ্যক্ষ উক্ত নামকরণ যাতে বাস্তবায়ন হয় সে লক্ষ্যে শিক্ষা সচিব বরাবর একটি আবেদন করেছেন। উল্লেখ্য, কলারোয়া সরকারী কলেজটি ১৯৬৯ সালে পৌর সভার প্রাণকেন্দ্রে যশোর-সাতক্ষীরা মহা সড়কের পাশে এক মনোরম পরিবেশে অবস্থিত। অদ্যাবধি কলেজেটির সুনাম অক্ষুন্ন রেখেছে। বর্তমান কলেজটিতে প্রায় ২৫০০ ছাত্র-ছাত্রী অধ্যায়ণরত রয়েছে বলে কলেজ অধ্যক্ষ বাসুদেব বসু জানান।