কলারোয়া সংবাদ ॥ ভ্রাম্যমান আদালতে ৩টি হোটেলকে জরিমানা


379 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
কলারোয়া সংবাদ ॥ ভ্রাম্যমান আদালতে ৩টি হোটেলকে জরিমানা
নভেম্বর ২২, ২০১৮ কলারোয়া ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

কে এম আনিছুর রহমান ::
সাতক্ষীরার কলারোয়ায় ৩টি হোটেল মালিককে ৭হাজার টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমান আদালত। বৃহষ্পতিবার বিকেলে উপজেলার বামনখালী বাজারের ভ্রাম্যমান আদালত আভিযান চালিয়ে অপরিষ্কার ও অস্বাস্থ্যকর পরিবেশসহ নানান কারণে জরিমানা করেন। ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার আর.এম সেলিম শাহনেওয়াজ। উপজেলা নির্বাহী অফিসের বেঞ্চসহকারী আব্দুল মান্নান জানান- ভোক্তা অধিকার আইনের ৫৩ধারায় বামনখালী বাজারের রেস্টুরেন্ট বা মিষ্টির দোকানের মালিক রমেশ ঘোষকে ২হাজার টাকা, সন্তোষ ঘোষকে ২হাজার টাকা ও আব্দুল মজিদকে ৩হাজার টাকা জরিমান করেন ভ্রাম্যমান আদালত। এসময় সংশ্লিষ্টরা উপস্থিত ছিলেন।
##

কলারোয়ায় এক স্কুল ছাত্রীর ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে মামলা,আটক-১
কে এম আনিছুর রহমান ::
সাতক্ষীরার কলারোয়ায় এক স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগে মামলা হয়েছে। মেয়ের পিতা বাদী হয়ে কলারোয়া থানায় এ মামলা দায়ের করেন। মামলার বিবরণে জানা যায়, গত বুধবার দুপুরে ছুটির পরে স্কুল থেকে বাড়ি ফেরার পথে এজাহার নামীয় ব্যাক্তি জালালাবাদ গ্রামের রফিকুল ইসলামের ছেলে ইমরান হোসেন (২২),শিমুল (২০), মামুন (৩৫), সাঈদ(২৮), আলীম(২৫), আছিয়া খাতুন(২০) সঙ্গবদ্ধভাবে কলারোয়া গার্লস পাইলট হাইস্কুলের ৯ম শ্রেণীতে পড়ুয়া (১৪) বছরের স্কুল ছাত্রীকে উপজেলার মীর্জাপুর বিশ্বাস পাড়ায় ৫ ও ৬ নম্বর আসামী নিজ বাড়িতে মটর সাইকেল যোগে উঠিয়ে নিয়ে জোরপূর্বক ঘরে নিয়ে তাকে ধর্ষণের চেষ্টা চালায় এবং শরীরের স্পর্শকাতর স্থানে হাত দেয় এবং পরিহিত জামাকাপড় ছিড়ে ফেলে। সে সময় মেয়ের আত্মচিৎকারে এলাকাবাসী এগিয়ে এলে ঘটনাস্থল থেকে প্রধান আসামি ইমরান হোসেন ধৃত হলেও তার বন্ধুরা ছুটে পালিয়ে যায় । এ ঘটনার পর থেকে এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিরা ঘটনাটি ধামাচাপা দিতে কয়েকবার সালিশ বৈঠক করে মীমাংসায় ব্যর্থ হয়। পরে ভুক্তভুগি মেয়েটির বাবা বাদী হয়ে কলারোয়াা থানায় ইমরানসহ ৬ জনের আসামী করে একটি ধর্ষণ চেষ্টার মামলা দায়ের করেন। যার মামলা নং ১৭(২১/১১/১৮)।
এ ব্যপারে কলারোয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শেখ মারুফ আহম্মদ জানান, অভিযোগ পাওয়ার পর মামলা নিয়ে ভিকটিমের জবানবন্দি রেকর্ড করে মেডিকেল পরীক্ষার জন্য সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওসিসিতে প্রেরন করা হয়েছে এবং বাকি আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।
##

কাজীরহাটে ফুটবল টুর্নামেন্টের ৩য় খেলায় ঝিকরগাছার জয়
কে এম আনিছুর রহমান ::
সাতক্ষীরার কলারোয়ার কাজীরহাটে ফুটবল টুর্নামেন্টের প্রথম রাউন্ডের ৩য় খেলায় আটুলিয়া ফুটবল একাদশকে হারিয়ে ঝিকরগাছার বন্নি ফুটবল একাদশ সেমিফাইনালে উঠেছে। বৃহষ্পতিবার বিকেলে কাজীরহাট হাইস্কুল মাঠে অনুষ্ঠিত বন্ধন কাপ ফুটবল টুর্নামেন্টের এ খেলায় আটুলিয়াকে ১-০ গোলে বন্নি ফুটবল একাদশ জয় লাভ করে। খেলার প্রথমার্ধের ১২মিনিটে বন্নি ফুটবল একাদশের ১০ নম্বর জার্সিধারি খেলোয়াড় সুজন বিজয়সূচক একমাত্র গোলটি করেন। রেফারির দায়িত্ব পালন করেন মাসউদ পারভেজ মিলন। তাকে সহায়তা করেন আনোয়ার হোসেন ও সাইদুর রহমান। ধারাভাষ্যে ছিলেন ইনতাজ আলি। আজ শক্রবার একই মাঠে প্রথম রাউন্ডের শেষ খেলায় সোনাবাড়িয়া প্রভাতি সংঘ ও বেনাপোলের বারপোতা ফুটবল একাদশ পরষ্পর মুখোমুখি হবে বলে আয়োজক কমিটি জানায়।
##

কলারোয়ার আইচপাড়ায় দিনভর হা-ডু-ডু খেলায় মিরগিডাঙ্গা চ্যাম্পিয়ন
কে এম আনিছুর রহমান ::
সাতক্ষীরার কলারোয়ার আইচপাড়ায় ৮দলীয় হা-ডু-ডু খেলা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার দিনভর আইচপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে এ খেলার ফাইনালে ৪-০ পয়েন্টে কামারবায়সা হা-ডু-ডু দলকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয় সাতক্ষীরার মিরগিডাঙ্গা হা-ডু-ডু দল। গ্রামীন ঐতিহ্যের এ খেলায় পুরষ্কার হিসেবে চ্যাম্পিয়ন দলকে বাইসাইকেল ও রানার্সআপ দলকে টেলিভিশন প্রদান করা হয়। বিপুল সংখ্যক দর্শক খেলা উপভোগ করেন। পুরষ্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে আইচপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সভাপতি আজহারুল হকের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন সাতক্ষীরা জজ কোর্টের অতিরিক্ত পিপি অ্যাডভোকেট আব্দুল লতিফ। বিশেষ অতিথি ছিলেন কলারোয়া শেখ আমানুল্লাহ ডিগ্রি কলেজের প্রভাষক বিএম ফিরোজ, বিশিষ্ট ক্রীড়া ব্যক্তিত্ব মাস্টার আব্দুল ওহাব মামুন, বাশদহা ইউপি সদস্য শহীদুল ইসলাম প্রমুখ। পুরষ্কার বিতরণী অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন বিশিষ্ট ক্রীড়া সংগঠক মাস্টার শেখ শাহাজাহান আলী শাহীন। এর আগে সকালে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন আইচপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আফতাবুজ্জামান লাল্টু। উদ্বোধন করেন স্কুলের সভাপতি আজহারুল হক। সে সময় উপস্থিত ছিলেন নাসির উদ্দীন, প্রভাষক বিএম ফিরোজ, শিমুল, আবুল হোসেন প্রমুখ।

##

কলারোয়ায় দুই ব্যবসায়ীকে অর্থ দন্ড
কে এম আনিছুর রহমান ::
সাতক্ষীরার কলারোয়া বাজারে পাটজাত ও পাটের বস্তা না রাখার অপরাধে দুই চাউল ব্যবসায়ীকে অর্থ দন্ড দিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। গত বুধবার সকালে উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিস্টে আর এম সেলিম নেওয়াজ এ অর্থদন্ড প্রদান করেন। অর্থদন্ড করা হয়-কলারোয়া বাজারে চাউল পট্টি এলাকার আশরাফ আলী (৪০) ও জামশেদ আলীকে (৭০)। উপজেলা নির্বাহী অফিস সূত্রে জানা যায়, বুধবার ওই সময় কলারোয়া বাজারের চাউল পট্টিতে ভ্রাম্যমান আদালতের একটি টিম অভিযান চালিয়ে চটের বস্তা না রেখে প্লাস্টিকের বস্তায় চাল রাখার অপরাধে ওই দুই দোকানদারকে দুই হাজার করে চার হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন-উপজেলা পাট পরিদর্শক আকরাম হোসেন ও উপজেলা নির্বাহী অফিসারের বেঞ্চ সহকারী এমএ মান্নান।

##

কলারোয়ায় এক ব্যক্তি আটক
কে এম আনিছুর রহমান ::
সাতক্ষীরার কলারোয়ায় ফিরোজ আলম (৩২) নামে এক ব্যক্তিকে আটক করেছে পুলিশ। বুধবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে তাকে তার বাড়ী উপজেলার পাইকপাড়া থেকে আটক করা হয়। সে ওই গ্রামের মতিয়ার রহমানের ছেলে। থানার এসআই সুবির কুমার ঘোষ জানান-গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে অভিযান চালিয়ে উপজেলার পাইকপাড়া গ্রাম থেকে ফিরোজ আলমকে আটক করা হয়। তার বিরুদ্ধে কলারোয়া থানায় নাশকতা মামলা নং-১(১১)১৮ রয়েছে বলে তিনি জানান।

কলারোয়া থানা মসজিদে ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) উপলক্ষ্যে দোয়া অনুষ্ঠান
কে এম আনিছুর রহমান ::
সাতক্ষীরার কলারোয়ায় পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) উপলক্ষ্যে আলোচনা, মিলাদ মাহফিল ও দোয়া অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার এশার নামাজের পর কলারোয়া থানা মসজিদের আয়োজনে থানা মসজিদে এ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। কলারোয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শেখ মারুফ আহমেদের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন অবসর প্রাপ্ত অধ্যক্ষ প্রফেসর আবু নসর, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আলহাজ ¡আরাফাত হোসেন, মুরারীকাটি দাখিল মাদরাসার সহ-সুপার নুরল ইসলাম, থানা মসজিদের পেশ ইমাম এম আসাদুজ্জামান ফারুকী। বক্তারা বলেন- পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) নবী দিবস হিসেবে পরিচিত। এটি মানবজাতির শিরোমণি। মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা.) এর জন্ম ও ওফাত দিন। ৫৭০ খ্রিস্টাব্দের ১২রবিউল আউয়াল মহানবী ইসলামের শেষ নবী হিসেবে আরবের মরু প্রান্তরে মা আমিনার কোল আলো করে জন্মগ্রহণ করেন এবং একই তারিখে তিনি ইন্তেকাল করেন। পবিত্র কোরআন শরিফে বর্ণিত আছে- মহানবীকে সৃষ্টি না করলে আল্লাহ রাব্বুল আলামিন পৃথিবীকে সৃষ্টি করতেন না। এ কারণে এবং তৎকালীন আরব জাহানের বাস্তবতায় এ দিনের গুরুত্ব ও তাৎপর্য অনেক বেশি। মিলাদ মাহফিলে দোয়া পরিচালনা করেন কলারোয়া থানা জামে মসজিদের খতিব মাওলানা আসাদুজ্জামান ফারুকী। এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন প্রেসক্লাবের সিনিয়র সহ.সভাপতি সহকারী অধ্যাপক কেএম আনিছুর রহমান, ডাক্তার আলহাজ্ব আব্দুল জব্বার, কলারোয়া উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক জাহিদুর রহমান খান চৌধুরী জাহিদ, রাসেল ফার্মেসীর মালিক কাজী সামসুর রহমানসহ মসজিদের মুসল্লীবর্গ।

##

কলারোয়ায় প্রীতি ক্রিকেট ম্যাচে ঔষধ কোম্পানির প্রতিনিধিদের হারালো ডাক্তাররা
কে এম আনিছুর রহমান ::
সাতক্ষীরার কলারোয়ায় আনন্দ-উৎসবের মধ্যে অনুষ্ঠিত প্রীতি ক্রিকেট ম্যাচে ঔষধ কোম্পানির প্রতিনিধিদের সংগঠন ‘ফারিয়া’ ক্রিকেট একাদশকে পরাজিত করেছে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ক্রিকেট একাদশ। বুধবার সকালে কলারোয়া জিকেএমকে পাইলট হাইস্কুল মাঠে আয়োজিত টি-২০’র ওই ম্যাচে ফারিয়া একাদশকে ৬০ রানে পরাজিত করে ডাক্তার-টেকনিশিয়ানসহ হাসপাতালে চাকুরীরতদের টিম ‘স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ক্রিকেট একাদশ’। টসে জিতে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ক্রিকেট একাদশ প্রথমে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন। ব্যাট হাতে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৫ উইকেট হারিয়ে ১৪০ রান করে তারা। ২৮ বল মোকাবেলা করে দলের পক্ষে ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ ৩৯ রান করেন মামুন (ল্যাব টেকনিশিয়ান)। অধিনায়ক ডা.শফিকুল ইসলামের ব্যাটে আসে ৩৪ রান। ফারিয়া’র বোলার জুয়েল ২টি, হাসান, পলাশ ও সালাম ১টি করে উইকেট নেন। ১৪১ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে ফারিয়া ক্রিকেট একাদশ ২০ ওভারে ৯ উইকেট হারিয়ে মাত্র ৮১রান করে। ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ ২৫ রান করেন অধিনায়ক পলাশ। গৌরাঙ্গ করেন ১৮রান। স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ক্রিকেট একাদশের বোলার ডা.শফিকুল ইসলাম, মামুন ও তরিকুল ইসলাম পান ২টি করে এবং সুব্রত, হাসান ও বেলাল পান ১টি করে উইকেট। ফলে ৬০ রানের বিশাল জয়ের দেখা পান স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ক্রিকেট একাদশ। খেলার সেরা ফিল্ডার নির্বাচিত হন বিজয়ী দলের পিয়াস। সেরা বোলিং নির্বাচিত হন পরাজিত দলের হাসান, যিনি ৪ ওভার বল করে ১ ওভার মেডেন দিয়ে ৭ রানের খরচে ১ উইকেট পান। সেরা ব্যাটসম্যান নির্বাচিত হন বিজয়ী দলের মামুন (ল্যাব)। ম্যান অব দ্যা ম্যাচ নির্বাচিত হন বিজয়ী দল স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ক্রিকেট একাদশের অধিনায়ক ডা. শফিকুল ইসলাম। যিনি ব্যাট হাতে ৩৪ রান করেন। আর বল হাতে ৪ওভারে ৭ রান দিয়ে ২টি উইকেট নেন। আম্পারিং এর দায়িত্ব পালন করেন মিয়া ফারুক হোসেন স্বপন ও মাসউদ পারভেজ মিলন। ধারাভাষ্যে ছিলেন শেখ শাহাজাহান আলী শাহিন ও মাস্টার আব্দুল ওহাব মামুন। স্কোরার ছিলেন মাস্টার অনুপ কুমার ঘোষ। ম্যাচ শেষে বিজয়ী ও বিজিত দলের মাঝে ট্রফি প্রদান করা হয়। এছাড়া ব্যক্তি পর্যায়েও পুরষ্কার প্রদান করা হয়। উভয় দলের সেরা খেলোয়াড়ের পুরস্কার প্রদান করে সততা প্যাথলজি সেন্টার। এছাড়া ম্যাচে পরপর ২টা ছক্কা হাকানোর জন্য বিজয়ী দলের ডা.শফিকুল ইসলামকে পুরস্কার প্রদান করেন রাসেল ফার্মেসী। ম্যাচ শুরুর আগে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে খেলার উদ্বোধন করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার আর.এম সেলিম শাহনেওয়াজ। উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. কামরুল ইসলামের সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠান ও খেলার বিভিন্ন সময়ে উপস্থিত ছিলেন কলারোয়া সরকারি কলেজের অবসরপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ প্রফেসর আবু নসর, ঔষধ বিক্রেতাদের সংগঠন উপজেলা বি.সি.ডি.এস’র সভাপতি আলহাজ্ব শামছুর রহমান, পাবলিক ইন্সটিটিউটের সাধারণ সম্পাদক এড.শেখ কামাল রেজা, উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক জাহিদুর রহমান খান চৌধুরী, কলারোয়া প্রেসক্লাবের সহকালী অধ্যাপক কে এম আনিছুর রহমান,কলারোয়া প্রেসক্লাবের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও অনলাইন নিউজ পোর্টাল কলারোয়া নিউজ’র সম্পাদক প্রভাষক আরিফ মাহমুদ, সাংবাদিক আসাদুজ্জামান ফারুকী, হাবিবুর রহমান রনি প্রমুখ।

##