কলারোয়া সংবাদ ॥ স্যানিটেশন মাস ও বিশ্ব হাত ধোয়া দিবস পালিত


124 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
কলারোয়া সংবাদ ॥ স্যানিটেশন মাস ও বিশ্ব হাত ধোয়া দিবস পালিত
অক্টোবর ১৫, ২০১৯ কলারোয়া ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

কে এম আনিছুর রহমান ::

সাতক্ষীরার কলারোয়ায় জাতীয় স্যানিটেশন মাস অক্টোবর ও বিশ্ব হাত ধোয়া দিবস পালিত হয়েছে। দিবসটি উপলক্ষে মঙ্গলবার বর্ণাঢ্য র‌্যালি ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী, সরকারি-বেসরকারি দপ্তরের কর্মকর্তা ও সুধিজনদের অংশগ্রহনে র‌্যালিটি পৌর সদরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিন শেষে উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে উপজেলা নির্বাহী অফিসার আর এম সেলিম শাহনাওয়াজের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আমিনুল ইসলাম লাল্টু। স্বাগত বক্তব্য রাখেন সহকারী জনস্বাস্থ্য প্রকৌশলী সরোয়ার হোসেন। অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ও বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান শাহনাজ নাজনীন খুকু, উপজেলা কৃষি অফিসার মহাসীন আলী, মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার আবদুল হামিদ, প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মোজাফফর উদ্দীন, সাংবাদিক প্রভাষক এম. কালাম,প্রভাষক আরিফ মাহমুদ,আমাদের কলারোয়া প্রকল্পের বিপ্লল হোসেন প্রমুখ। অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন- দৈনন্দিন জীবনের সুস্থতার জন্য স্বাস্থ্যসম্মত স্যানিটেশন যেমন জরুরী ঠিক তেমনি খাদ্য গ্রহণের আগে-পরে হাত ধোয়া ও পরিচ্ছন্নতার বিকল্প নেই। ‘সকলের জন্য উন্নত স্যানিটেশন, নিশ্চিত হোক সুস্থ জীবন; সকলের হাত, পরিচ্ছন্ন থাক’ শীর্ষক প্রতিপাদ্যে বিভিন্ন এনজিও এবং উন্নয়ন সংস্থার সহযোগিতায় এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে উপজেলা প্রশাসন ও উপজেলা জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল দপ্তর। এর আগে অনুষ্ঠানের শুরুতে উপজেলা চত্বরে স্থাপিত হাত ধোয়া প্রদর্শনীর বিশেষ অস্থায়ী স্টলে অতিথিরা নিজেরা হাত ধুয়ে দিবসটির শুভসূচনা করেন। অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা গণমৈত্রীর পরিচালক মেহেদী হাসান।

#

কলারোয়ায় এক নিরীহ ব্যক্তির বাড়ি ভাংচুর, নগদ টাকা ও স্বর্ণ অলংকার লুট করেছে প্রতিপক্ষরা

কে এম আনিছুর রহমান ::

সাতক্ষীরার কলারোয়ায় জমাজমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে এরশাদ নামে এক নিরীহ ব্যক্তির বাড়িতে হামলা চালিয়ে নগদ টাকা, স্বর্ণ অলংকার লুট, ঘরবাড়ি, টিনের চাল,ঘরের আসবাবপত্র ,এলইডি টিভি ও বিদ্যুতের মিটার ভাংচুরসহ ৪ লক্ষাধিক টাকার ক্ষতিসাধন করেছে প্রতিপক্ষরা। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার ২নং জালালাবাদ ইউনিয়নের বৈদ্যপুর গ্রামে।
এ ঘটনায় সোমবার সন্ধ্যায় ক্ষতিগ্রস্ত ওই ব্যক্তি বাদি হয়ে কলারোয়া থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।
অভিযোগের বিবরণে জানা যায়,কলারোয়া পৌর সদরের ঝিকরা গ্রামের এরশাদ আলীর স্ত্রী শাহিদা খাতুন (৩৮), কামরুলের ছেলে সুজন হোসেন (২৬), কামারালী গ্রামের নজরুলের স্ত্রী শহিদা খাতুন (৩২), বৈদ্যপুর গ্রামের আইজুদ্দীনের ছেলে আব্বাস আলী (৫৫) ও যশোর জেলার কেশবপুর উপজেলার বরণডালি গ্রামের তবিবর রহমানের স্ত্রী রাশিদা খাতুনদের (৩৫) সাথে ফারাজি জমাজমি নিয়ে এরশাদ আলীর সংগে দীর্ঘ দিন বিরোধ চলে আসছে। সম্পর্কে তারা ভাই-বোন ও ভাগ্না। এরই জের ধরে গত রোববার সন্ধ্যা ৬ টার দিকে ওই প্রতিপক্ষরা ঐক্যবদ্ধ হয়ে দেশীয় অস্ত্রসস্ত্রে সজ্জিত হয়ে এরশাদ আলীর বাড়িতে অবৈধভাবে প্রবেশ করে অম্লীল ভাষায় গালিগালাজ করে। এ সময় এরশাদ আলীর পরিবারের লোকজন প্রতিবাদ করলে তারা ক্ষিপ্ত হয়ে আমার ঘরবাড়ি ভাংচুর, টিনের ছাউনি বিনষ্ট, ঘরের ভিতর প্রবেশ করে আসবাবপত্র ভাংচুর করে তছনছ করে। পরে বাক্সের মধ্যে থাকা গরু বিক্রির ৭৫ হাজার টাকা, স্বর্ণের চেইন, কানের দুল, এক জোড়া রুলি ২টি আংটিসহ আড়াই লক্ষাধিক টাকার মালামার লুট ও এলইডি টিভি, বিদ্যুতের মিটারসহ ভাংচুর করতে থাকে। পরে লোক মারফত এরশাদ আলী জানতে পেরে ছুটে বাড়ি গিয়ে দেখতে পায় তারা তার বাড়ি ঘরে তান্ডব চালিয়ে ক্ষতিসাধন করে, খুন জখমের হুমকী দিয়ে চলে যায়। এতে এরশাদ আলীর মোট ৪ লক্ষাধিক টাকার মালামাল ক্ষতিসাধন হয়েছে অভিযোগে উল্লেখ করা হয়।
এ ব্যাপারে কলারোয়া থানার ওসি তদন্ত রাজিব হোসেন বলেন, এ ঘটনায় একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত পূর্বক আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

কলারোয়ায় হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের অভিষেক অনুষ্ঠানের প্রস্তুতি সভা
কে এম আনিছুর রহমান,কলারোয়া(সাতক্ষীরা) প্রতিনিধি
কলারোয়ায় বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের উপজেলা শাখার নবগঠিত কার্যনির্বাহী পরিষদের অভিষেক অনুষ্ঠান উদযাপন উপলক্ষে এক প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় পৌর সদরের বিশ^াস মার্কেটে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক বাবু সিদ্ধেশ^র চক্রবর্তীর সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি মনোরঞ্জন সাহা, ব্রহ্ম হরিদাস ঠাকুর আশ্রামের সভাপতি অধ্যাপক কার্ত্তিক চন্দ্র মিত্র, সাধারণ সম্পাদক সন্দীপ রায়, এছাড়া উপস্থিত ছিলেন- সন্তোষ কুমার পাল, দিলীপ অধিকারী চান্দু, হরেন্দ্র নাথ রায়, সুনীল সাহা, হরিসাধন ঘোষ, নিরাঞ্জন ঘোষ, তাপস পাল, পরিতোষ সোনা, নিরাঞ্জন পাল, শ্রী উত্তম কুমার ঘোষ, গোপাল ঘোষ, আনন্দ ঘোষ সহ দুই ইউনিয়নের নেতৃবৃন্দ। উল্লেখ্য-আগামী ২৩ অক্টোবর বুধবার সকাল ১০ টার দিকে কলারোয়া সরকারী পাইলট হাইস্কুল প্রাঙ্গনে হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের কলারোয়া উপজেলা শাখার নবগঠিত কার্যনির্বাহী পরিষদের অভিষেক ও শারদীয় দূর্গাপূজার পূর্নমিলনী অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হবে।