কলারোয়া সংবাদ ॥ হামলা-সংঘর্ষে উভয় পক্ষের ৯ জন আহত


181 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
কলারোয়া সংবাদ ॥ হামলা-সংঘর্ষে উভয় পক্ষের ৯ জন আহত
জুন ১৫, ২০১৯ কলারোয়া ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

কে এম আনিছুর রহমান ::

সাতক্ষীরার কলারোয়ায় জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে ও টয়লেট পরিষ্কার করাকে কেন্দ্র করে পৃথক ঘটনায় হামলা-সংঘর্ষে উভয় পক্ষের মধ্যে ৯ জন গুরুতর জখম হয়েছে।

আহতরা হলেন-উপজেলার ফয়জুল্লাহপুর গ্রামের শাহিন হোসেন (৪০), সাগর হোসেন (২৮), ভুট্টো (২৮) ও একই উপজেলার গনপতিপুর গ্রামের শহিদুল ইসলাম (৩৫), জামাল উদ্দীন (৩৮), শামিম হোসেন (২১), শাহাজান আলী (২৫), ইমরান হোসেন (১৯) ও আফসানা খাতুন (২২)।

কলারোয়া উপজেলার যুগিখালী ইউনিয়নের ফয়জুল্লাপুর গ্রামের আগত শাহিন হোসেন জানান, শনিবার দুপুরে আমাদের সাথে প্রতিবেশী ভুট্টোদের জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে কথাকাটাকাটি হয়। কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে উভয়ের মধ্যে সংঘর্ষ বাধে। এতে আমরা উভয় পক্ষের মধ্যে ৩জন হই।

অপর দিকে উপজেলার গণপ্রতিপুর গ্রামের আহত শহিদুল ইসলাম জানান, শুক্রবার সন্ধ্যার দিকে আমাদের সাথে প্রতিবেশী ইমরানদের টয়লেট পরিস্কার নিয়ে এক সংঘর্ষে উভয় পক্ষের আমরা ৬জন আহত হই। আহতরা সবাই কলারোয়া স্বাস্থ্যকপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

এবিষয়ে কলারোয়া থানার অফিসার ইনচার্জ মুনীর-উল-গীয়াস জানান মারামারির ঘটনায় থানায় কোন অভিযোগ আসেনি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

#

কলারোয়ার কেরালকাতার ইউনুস আলী ৫০ বছরে বয়স্কভাতা পাচ্ছেন !

কে এম আনিছুর রহমান ::

সাতক্ষীরার কলারোয়া উপজেলার কেরালকাতা গ্রামের মৃত রজব আলী সরদারের ছেলে ইউনুস আলী। তার বয়স বর্তমান ৫২ বছর। তিনি জালজালিয়াতির মাধ্যমে বিগত দুই বছর যাবৎ বয়স্ক ভাতা উঠাচ্ছেন। অথচ সরকারের নিয়ম অনুযায়ী যার বয়স ৬৫ বছর পূর্ণ হয়েছে তিনিই একমাত্র বয়স্ক ভাতা পাবেন। বিষয়টি জানাজানি হলে স্থানীয় এলাকাবাসি শনিবার সকালে কলারোয়া প্রেসক্লাব বরাবর তার বিরুদ্ধে একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

অভিযোগের বিবরণে জানা যায়, ইউনুস আলী কলারোয়া উপজেলার প্রভাবশালী এক আওয়ামীলীগ নেতার নিকট আত্মীয় হওয়ার সুবাদে এ ধরনের অনেক সুবিধা ভোগ করেছেন। যার দৃষ্ঠান্তস্বরুপ বয়স্কভাতা পাওয়ার জন্য তিনি নিজের জাতীয় পরিচয় পত্রের সব তথ্য ঠিক রেখে বয়স ১৬ মে ১৯৬৫ এর স্থলে ১৬ মে ১৯৫০ লিখে জালিয়াতির মাধ্যমে অবিকল আর একটি ভূয়া জাতীয় পরিচয় পত্র তৈরী করেন।
ওই ভূয়া জাতীয় পরিচয় পত্র দেখিয়ে বয়স্কভাতা তালিকায় নাম অর্ন্তভুক্ত করে উপজেলা সমাজ সেবা অফিস থেকে ২০১৭-১৮ অর্থ বছর হতে মাসিক ৫০০ টাকা টাকা হারে ব্যাংক হতে অদ্যবধি টাকা উত্তোলন করে আসছেন।
অভিযোগে আরো বলা হয়, নিয়ম অনুযায়ী একজন পুরুষ ৬৫ বছর এবং মহিলার বয়স ৬৩ বছর পূর্ণ হলে বয়স্ক ভাতা পাওয়ার দাবীদার। অথচ বিগত দুই বছর পূর্বে ২০১৭ সালের যেদিন থেকে ইউনুস আলী বয়স্কভাতাভুক্ত হয়েছেন তখন তার প্রকৃত বয়স ছিল ৫০ বছর। কলারোয়া উপজেলা নির্বাচন অফিস সূত্রে জানা যায়, তার জাতীয় পরিচয় পত্রের নং ১৯৬৫৮৭১৪৩৭১২১৯৭৯৭ বয়স ১৬-৫-১৯৬৫, ভোটার নং ৮৭০১০১২১৯৭৯৭।

এ বিষয়ে উপজেলা সমাজ সেবা অফিসার ফারুক হোসেন বলেন, বয়স্ক ভাতা দেওয়া বর্তমান সরকারের একটি চলমান প্রক্রিয়া, বয়স্কভাতা তালিকা বাস্তবায়নের সভাপতি স্ব-স্ব ইউনিয়নের ইউপি চেয়ারম্যান। তিনি তার নাম অন্তর্ভক্ত করে আমার অফিসে বয়স্ক ভাতার তালিকা জমা দিলে আমিও চড়ান্ত তালিকায় অর্ন্তভূক্ত করি। বর্তমানে শুনছি তার জাতীয় পরিচয় পত্রটি ভূয়া ছিল, সেটা আমি জানতাম না। তাছাড়া তিনি উপজেলার গুরুত্বপূর্ণ একটি দপ্তরে কর্মরত থাকা অবস্থায় এমন একটি অপকর্ম করবে, সেটা আমার জানা ছিল না।

তিনি আরো বলেন, এ বিষয়ে আমি একটি অভিযোগ পেয়েছি। এর সত্যতা অনুসন্ধানের কাজও চলছে। যদি অভিযোগ সত্য হয়, তাহলে ইউনুস আলীর নাম বয়স্ক ভাতার তালিকা হতে বাদ দেওয়া হবে।
এ বিষয়ে ইউনুস আলীর নিকট জানতে চাইলে বয়স্কভাতা পাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, জামায়াত-বিএনপি’র লোকজন আমাকে মেরে হাত-পা ভেঙ্গে দিয়েছিল। সেসময় আমি পঙ্গুভাতার দাবিতে একটি আবেদন করি। কিন্তু পঙ্গুভাতা পাওয়ার সময় না থাকায় উপজেলার উদ্ধর্তন কর্মকতারা আমাকে একটি বয়স্কভাতার কার্ড করে দেন। আমি জাতীয় পরিচয় পত্র জালজালিয়াতি করি নাই।

#

কলারোয়ায় রথযাত্রা উদযাপন উপলক্ষ্যে প্রস্তুতি সভা

কে এম আনিছুর রহমান ::

সাতক্ষীরার কলারোয়ায় শ্রীশ্রী জগন্নাথ দেবের রথযাত্রা উদযাপন উপলক্ষ্যে প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার বিকেল কলারোয়া বাসস্ট্যান্ডস্থ বিশ্বাস মার্কেট চত্বরে এ সভার আয়োজন করে উপজেলা হিন্দু-বৌদ্ধ-খৃষ্টান ঐক্য পরিষদ। সভায় ভাবগাম্ভির্যের মধ্য দিয়ে রথযাত্রা উদযাপনের লক্ষ্যে বিভিন্ন সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।
সভায় পৌর পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি দিলিপ অধিকারী চান্দু সভাপতিত্বে ও হিন্দু-বৌদ্ধ-খৃষ্টান ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক সন্দিপ রায়ের সঞ্চালনায় উপস্থিত ছিলেন ও বক্তব্য রাখেন উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি মনোরঞ্জন সাহা, সন্তোষ পাল, কার্তিক চন্দ্র মন্ডল, রাম লাল দত্ত, নিখিল অধিকারী, সুজন কুমার দাস, মনু ঘোষ, উত্তম কুমার পাল, পরিতোষ বিশ্বাস, আদিত্য বিশ্বাস প্রমুখ।

#

প্রতিমন্ত্রী স্বপন ভট্টাচার্যের সাথে সৌজন্য সাক্ষাতে কলারোয়ার হিন্দু পরিষদের নেতৃবৃন্দ

কে এম আনিছুর রহমান ::

পল্লী উন্নয়ন সমবায় প্রতিমন্ত্রী স্বপন ভট্টাচার্যের সাথে সৌজন্য সাক্ষাত করেছেন কলারোয়ার হিন্দু-বৌদ্ধ-খৃষ্টান ঐক্য পরিষদের নেতৃবৃন্দ। শনিবার সকাল ১১টার দিকে যশোর সার্কিট হাউজে ওই মতবিনিময় অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন কলারোয়া উপজেলা হিন্দু-বৌদ্ধ-খৃষ্টান ঐক্য পরিষদের সভাপতি সিদ্ধেশ্বর চক্রবর্তী, সাধারণ সম্পাদক সন্দীপ রায়, পৌর কমিটির সাধারণ সম্পাদক উত্তম ঘোষ প্রমুখ।

#

কলারোয়ার চন্দনপুর ইউনিয়ন যুবদলের কমিটি ঘোষনা

কে এম আনিছুর রহমান ::

সাতক্ষীরার কলারোয়ার চন্দনপুর ইউনিয়ন যুবদলের নতুন কমিটি ঘোষনা করা হয়েছে। শনিবার ইউনিয়ন যুবদলের দলীয় প্যাডে উপজেলা যুবদলের সভাপতি শেখ আব্দুল কাদের বাচ্চু ও সাধারণ সম্পাদক এমএ হাকিম সবুজ স্বাক্ষর করে ওই কমিটি ঘোষনা করেছেন। সেখানে কমিটি ঘোষনার জন্য সুপারিশ করেছেন ইউনিয়ন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ফজলুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক আশারাফুজ্জামান মন্টু ও সাংগঠনিক সম্পাদক আশরাফুল ইসলাম মগু। নতুন কমিটিতে স্থান পেয়েছেন: সভাপতি- আবু রায়হান, সহ.সভাপতি- ডা.আমিরুল ইসলাম, শফিকুল ইসলাম শফি (মদনপুর), আলমগীর হোসেন (গোয়ালপাড়া), সাধারণ সম্পাদক- গাজী মো.শফিউল আলম শফি, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক- আবু তাহের (চন্দনপুর), রাজু আহম্মেদ (নাথপুর), শফিকুল ইসলাম (মদনপুর), সাংগঠনিক সম্পাদক ইউনুস আলী, সহ.সাংগঠনিক সম্পাদক- হিদয়দুর রহমান হিদয় (সুলতানপুর) ও প্রচার সম্পাদক- শহিদ হোসেন (চন্দনপুর)।

#

কলারোয়ায় প্রিমিয়ার ছাত্রসংঘের ৩য় প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপিত

কে এম আনিছুর রহমান ::
সাতক্ষীরার কলারোয়ায় অরাজনৈতিক স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন প্রিমিয়ার ছাত্রসংঘের ৩য় প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপিত হয়েছে। ‘মাদক ও সন্ত্রাস মুক্ত সমাজ গঠনে, তরুনরা হবে আলোর দিশারী’- শীর্ষক স্লোগানে এ উপলক্ষ্যে শনিবার দুপুরে আলোচনা সভা, র‌্যালি ও কেক কেটে ৪র্থ বর্ষে পা দেয় সংগঠনটি। উপজেলা পরিষদ অডিটোরিয়ামে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন কলারোয়া সরকারি কলেজের অবসরপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ প্রফেসর আলহাজ্ব আবু নসর।¡ অনুষ্ঠানে বিশেষ বক্তা ছিলেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের শহিদ ক্যাপ্টেন এম মনসুর আলী প্রশাসন ভবনের সেকশন অফিসার আজিজুল হক ডেভিড। তারুণ্যের জয়গানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন উপজেলা সমাজসেবা অফিসার শেখ ফারুক হোসেন, কলারোয়া প্রেসক্লাবের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক প্রভাষক আরিফ মাহমুদ, সাংবাদিক শেখ জুলফিকারুজ্জামান জিল্লু, প্রিমিয়ার ছাত্রসংঘের উপদেষ্টা ডা. আমানুল্লাহ আমান প্রমুখ। সংগঠনটির পক্ষে বক্তব্য রাখেন সাধারণ সম্পাদক আশিকুজ্জামান শুভ, ইমরান হোসেন, তৌহিদ হোসেন, আমানুল্লাহ ও মাসুদুল আলম। অনুষ্ঠানে কবিতা আবৃত্তি করেন কবি প্রভাষক বিএম সিরাজ। ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে অস্ট্রেলিয়া থেকে শুভেচ্ছা বক্তব্য দেন সংগঠনের প্রধান উপদেষ্টা আলতাফ হোসেন লাল্টু ও মালয়েশিয়া থেকে সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি আফজাল ফুয়াদ অভি। অনুষ্ঠানের শুরুতে পবিত্র কোরান থেকে তেলওয়াত করেন সংগঠনের সদস্য মো. আল আমিন।
অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ক্রীড়া ব্যক্তিত্ব মাস্টার শেখ শাহাজাহান আলি শাহিন, প্রিমিয়ার ছাত্রসংঘ’র সিনিয়র সহ.সভাপতি নিয়াজ মোর্শেদ লাল্টু, গালিব, মজনু কাগজী, নাহিদ হাসান, শামিম রেজা, এনজিও কর্মী আ. আজিজ প্রমুখ। অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন সংগঠনের উপদেষ্টা ফরিদুজ্জামান খাঁন ফরিদ। সভা শেষে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর কেক কাটা হয় ও বর্ণাঢ্য র‌্যালি বের হয়।

#