কলারোয়া সংবাদ : ৩ নারী বাংলাদেশীকে ফেরত দিলো বিএসএফ


336 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
কলারোয়া সংবাদ : ৩ নারী বাংলাদেশীকে ফেরত দিলো বিএসএফ
ফেব্রুয়ারি ২৩, ২০১৭ কলারোয়া ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

কে এম আনিছুর রহমান, কলারোয়া ::
কলারোয়া সীমান্তের বিপরীতে ভারতের হাকিমপুর বিএসএফ ক্যাম্পে আটক ৩ নারী বাংলাদেশীকে ফেরত দিয়েছে বিএসএফ।
বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলা কাকডাঙ্গা সীমান্তের মেইন পিলার ১৩/৩ এস এর ৭ আরবি’র নিকট পতাকা বৈঠকের মাধ্যমে তাদেরকে হস্তান্তর করা হয়।

হস্তান্তরকৃতরা হলেন- ফরিদপুর জেলার আলফাডাঙ্গা থানার কবির শেখের স্ত্রী মাবিয়া বেগম (২৬), খুলনা জেলার দিঘলিয়া থানার রাধা মাধবপুর গ্রামের জাহিদুল ইসলামের স্ত্রী সুলতানা বেগম (২৮), একই গ্রামের মুজিবুর রহমানের স্ত্রী হাসিনা খাতুন (২৭)।

উপজেলার সীমান্তবর্তী কাকডাঙ্গা বিওপি’র ন্যান্স নায়েক রফিকুল ইসলাম জানান, বৃহস্পতিবার ভোরে ওই নারীরা অবৈধভাবে সীমান্ত পার হয়ে ভারতের হাকিমপুর বিএসএফ ক্যাম্প এলাকায় ঘোরাফেরা করছিল।

এ সময় ওই ক্যাম্পের টহলরত বিএসএফ সদস্যরা তাদেরকে আটক করে উপজেলার কাকডাঙ্গা বিওপিতে পত্র প্রেরন করেন। বৃহস্পতিবার দুপুর দেড়টার দিকে ওই সীমান্তে ভারতীয় ভুখন্ডে পতাকা বৈঠকের মাধ্যমে বিএসএফ তাদেরকে তার নিকট হস্তান্তর করেন। পরে তাদেরকে থানা পুলিশে সোর্পদ করা হয়।

এ ব্যাপারে কলারোয়া থানায় একটি মামলা হয়েছে বলে থানার অফিসার ইনচার্জ এমদাদুল হক শেখ জানান।
##

 

কলারোয়ায় আত্মহত্যা

কলারোয়ায় গলাই ফাঁস দিয়ে জহুরুল ইসলাম নামের এক ব্যক্তি আত্মহত্যা করেছে। ঘটনাটি ঘটেছে বৃহস্পতিবার দুপুর ১টার দিকে উপজেলার বাকসা তাতীপাড়া গ্রামে। নিহত জহুরুল ওই গ্রামের আকবর আলীর ছেলে।

নিহতের ভাই রফিকুল ইসলাম জানান, তার ভাই জহুরুল ইসলাম দীর্ঘদিন যাবৎ শ্বাসকষ্ট জনিত রোগে ভুগিতেছে। বৃহস্পতিবার ওই সময় রোগের যন্ত্রনা সহ্য না করতে পেরে বসত বাড়ির ঘরের আড়াই সবার অজান্তে সে গলাই ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে।

পরে পুলিশ খবর পেয়ে লাশ উদ্ধার করে।
এ ব্যাপারে কলারোয়া থানায় একটি ইউডি মামলা হয়েছে বলে অফিসার ইনচার্জ এমদাদুল হক শেখ জানান।
##