কলারোয়া সরকারি কলেজে ১৬ শিক্ষকের পদ শুন্য


152 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
কলারোয়া সরকারি কলেজে ১৬ শিক্ষকের পদ শুন্য
জুলাই ৩১, ২০২২ কলারোয়া ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

শিক্ষার্থীদের পাঠদান কার্যক্রম ব্যাহত

কে এম আনিছুর রহমান ::

সাতক্ষীরার কলারোয়া সরকারি কলেজে বিভিন্ন বিভাগের ১৬টি শিক্ষকের পদ শুন্য থাকায় ছাত্র-ছাত্রীদের পাঠদান কার্যক্রম ব্যাহত হচ্ছে। ফলে শিক্ষার্থীরা ব্যাপক হয়রানীর শিক্রা হচ্ছে। বিষয়টি নিয়ে ইতোমধ্যে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক বরাবর প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের অনুরোধ জানালেও এখনও ব্যবস্থা গ্রহন করা হয়নি।

কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর এস,এম আনোয়ারুজ্জামান জানান, কলারোয়া সরকারি কলেজটি ১৯৬৯ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়ে ১৯৮৮ সালে জাতীয়করণ হয়। প্রতিষ্ঠার পর থেকে কলেজটি উচ্চ্ মাধ্যমিক পর্যায়ে শিক্ষার্থীরা যশোর শিক্ষা বোর্ডের ফলাফলে মেধা তালিকায় প্রতিবারই সেরা দশের মধ্যে স্থান লাভ করে আসছে।

বর্তমান কলেজটিতে উচ্চ মাধ্যমিকের সকল বিভাগ ও ডিগ্রী পাসসহ ৬টি বিষয়ে অনার্স কোর্সে পাঠদান কার্যক্রম চলমান রয়েছে। বর্তমানে কলেজে প্রায় ৩ হাজার শিক্ষার্থী অধ্যায়নরত রয়েছেন।

কলেজ অধ্যক্ষ আরো জানান, ঐতিহ্যবাহী এ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বিভিন্ন বিষয়ে সহকারী অধ্যাপক পদে ৭ জন ও প্রভাষক পদে ৯ জন শিক্ষকের পদ শুন্য থাকায় বিপুল সংখ্যক শিক্ষার্থীর পাঠদান কার্যক্রমে সুষ্টুভাবে পরিচালনায় দারুনভাবে বিঘœ সৃষ্টি হচ্ছে।
সহকারী অধ্যাপকের ১টি করে শুন্য পদের বিষয়গুলি হলো-ইংরেজী, ইতিহাস, ভূগোল, কৃষিশিক্ষা, প্রাণিবিদ্যা, উদ্ভিদবিদ্যা ও পদার্থবিদ্যা। এ ছাড়া প্রভাষকের ১টি করে শুন্য পদের বিষয়গুলি হলো- কৃষিশিক্ষা (আদৌ কোন শিক্ষক নেই), রাষ্ট্রবিজ্ঞান, ভূগোল, ব্যবস্থাপনা, গণিত, রসায়ন, হিসাব বিজ্ঞান ও ২টি পদে উদ্ভিদবিদ্যা (আদৌ কোন শিক্ষক নেই)।

কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর এস,এম আনোয়ারুজ্জামান ইতোমধ্যে কসক/২০২১-২০২২/২০৭৬/২ স্মারক নং-এ ৪০তম বিসিএস এর মাধ্যমে নিয়োগপ্রাপ্ত শিক্ষকদের মধ্য থেকে বর্ণিত বিষয় সমূহের শূন্যপদে সহকারী অধ্যাপক ও প্রভাষক পদায়নের জন্য মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর বরাবর অনুরোধ জানিয়েছেন ও মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা অধিদপ্তর পরিচালক (কলেজ ও প্রশাসন) দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন বলে তিনি জানান।

কলেজ অধ্যক্ষ সহকারী অধ্যাপকের ৭টি শুন্য পদে শিক্ষক পদায়ন সংক্রান্ত আবেদন পত্রে প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতে জানান যে, রাজধানী/ বিভাগ/ জেলা পর্যায় বড় কলেজ গুলোতে বিদ্যমান পদের অতিরিক্ত বহু শিক্ষক ওএসডি সংযুক্ত এবং ওএসডি ইনসিট অবস্থায় কর্মরত আছেন। অথচ উপজেলা পর্যায়ে প্রায় কলেজ গুলোতে শিক্ষক শূন্যতা প্রকট আকার ধারণ করেছে। তিনি মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মহোদয়কে শিক্ষক সংকটের বিষয়টি দ্রুততার সাথে সমাধানের জন্য সৃ-দৃষ্টি কামনা করেছেন।

অনুরুপভাবে, তিনি কলেজের শিক্ষার্থীদের সুষ্টুভাবে পাঠদান কার্যক্রম পরিচালনার স্বার্থে সাতক্ষীরা-১,(তালা-কলারোয়া) মাননীয় সংসদ সদস্য এ্যাড. মুস্তফা লুৎফুল্লাহকে বিষয়টি অবগত করে বিভিন্ন বিষয়ে ১৬টি শূন্য পদে শিক্ষক পদায়নের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের বিশেষভাবে অনুরোধ করেছেন বলেও তিনি জানান।

এ দিকে, কলেজে বিভিন্ন বিষয়ে শূন্য পদে শিক্ষক না থাকায় পাঠদান কার্যক্রম ব্যাহত হওয়ায় শিক্ষার্থী তৌফিকা, নিমা, শ্রাবন্তী, মহিমা, ফারিবা, ছামিয়া,তারেক,ইশতিয়াকসহ বেশ কিছু ছাত্র-ছাত্রী ক্ষোভ প্রকাশ করে দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহনে অধ্যক্ষ মহোদয়ের নিকট আকুল আবেদন জানিয়েছেন।