কলেরা নিয়ে গবেষণায় সম্মানজনক পুরস্কার পেলেন বাংলাদেশি


295 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
কলেরা নিয়ে গবেষণায় সম্মানজনক পুরস্কার পেলেন বাংলাদেশি
অক্টোবর ৩১, ২০১৬ জাতীয় ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

অনলাইন ডেস্ক :
কলেরাবিষয়ক গবেষণায় সাফল্যের জন্য ‘প্রিন্স সুলতান বিন আবদুল আজিজ ইন্টারন্যাশনাল প্রাইজ ফর ওয়াটার (পিএসআইপিডব্লিউ)’ পেয়েছেন বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত মার্কিন গবেষক ও টাফটস বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক শফিকুল ইসলাম। গত ৫ অক্টোবর এ পুরস্কার ঘোষণা করা হয়। আগামী ২ নভেম্বর যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে জাতিসংঘের সদর দপ্তরে এক অনুষ্ঠানে এ পুরস্কার তুলে দেওয়া হবে। ওই আয়োজনে সভাপতিত্ব করবেন জাতিসংঘের মহাসচিব বান কি মুন।

পিএসআইপিডব্লিউ’র ওয়েবসাইট থেকে জানা গেছে, স্যাটেলাইট ডেটার মাধ্যমে পাওয়া ক্লোরোফিল তথ্য বিশ্লেষণ করে কলেরার প্রাদুর্ভাব সম্পর্কে তিন থেকে ছয় মাস আগে আগাম বার্তা দেওয়ার কৌশল আবিষ্কার করেন অধ্যাপক শফিকুল ইসলাম। গুরুত্বপূর্ণ এ আবিস্কারের স্বীকৃতি হিসেবে সৃজনশীল শাখায় তিনি এ পুরস্কার লাভ করেন। একই বিষয়ে কাজের জন্য তার সঙ্গে পুরস্কার ভাগাভাগি করে নিচ্ছেন ইউনিভার্সিটি অব মেরিল্যান্ডের রিটা কলওয়েল। পুরস্কারের ২ লাখ ৬৬ হাজার ডলার তারা ভাগাভাগি করে নেবেন।

প্রিন্স সুলতান বিন আবদুল আজিজ আল সৌদ প্রবর্তিত সৌদি আরবভিত্তিক পুরস্কারটি ২০০২ সাল থেকে দুই বছর পরপর দেওয়া হচ্ছে। এবার এই পুরস্কার পাচ্ছেন সাতজন। বিশ্বব্যাপী পানিবিষয়ক গবেষণার মাধ্যমে নতুন নতুন আবিষ্কারের জন্য বিজ্ঞানী ও গবেষকদের স্বীকৃতি জানায় পিএসআইপিডব্লিউ।

শফিকুল ইসলাম বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় (বুয়েট) থেকে ১৯৮৩ সালে স্নাতক ডিগ্রি অর্জন করেন। এরপর তিনি একই বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষক হিসেবে যোগ দেন। পরবর্তী সময়ে তিনি ইউনিভার্সিটি অব মেইন ও এমআইটিতে উচ্চতর শিক্ষা গ্রহণ করেন। বর্তমানে তিনি টাফটস বিশ্ববিদ্যালয়ের সিভিল অ্যান্ড এনভায়রনমেন্টাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগে কর্মরত।