কাদের সিদ্দিকীর মনোনয়নপত্র গ্রহণের নির্দেশ হাই কোর্টের


310 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
কাদের সিদ্দিকীর মনোনয়নপত্র গ্রহণের নির্দেশ হাই কোর্টের
অক্টোবর ২১, ২০১৫ জাতীয় ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

ভয়েস অব সাতক্ষীরা ডটকম ডেস্ক :
টাঙ্গাইলে লতিফ সিদ্দিকীর আসনে তার ভাই কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি কাদের সিদ্দিকীর মনোনয়নপত্র গ্রহণ করতে নির্বাচন কমিশনকে নির্দেশ দিয়েছে হাই কোর্ট।

একটি রিট আবেদনের প্রাথমিক শুনানি করে বিচারপতি মিফতাহ উদ্দিন চৌধুরী ও বিচারপতি কাজী মো. ইজারুল হক আকন্দের বেঞ্চ বুধবার এই আদেশ দেয়।

কাদের সিদ্দিকীর মনোনয়নপত্র বাতিলের সিদ্ধান্ত কেন আইনগত কতৃর্ত্ব বহির্ভূত ঘোষণা করা হবে না- তা জানতে চেয়ে রুলও দিয়েছে আদালত।

রিটের বিবাদী নির্বাচন কমিশন, প্রধান নির্বাচন কমিশনার, টাঙ্গাইলের জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সচিবসহ পাঁচজনকে এই রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে।

মঙ্গলবার একই বেঞ্চে কাদের সিদ্দিকীর রিট আবেদনটি উপস্থাপন করা হয়।

রিটের পক্ষে শুনানি করেন এ জে মোহাম্মদ আলী, রুবায়েত হোসেন ও ব্যারিস্টার রাগীব রউফ চৌধুরী। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম, সঙ্গে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল খোরশেদুল আলম।

নির্বাচন কমিশনের পক্ষে আইনজীবী তৌহিদুল ইসলাম আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

আদালতের আদেশের পর আইনজীবী রাগীব বলেন, “আদালতের নির্দেশের ফলে এখন তিনি নির্বাচনে অংশ নিতে পারবেন।”

হজ নিয়ে মন্তব্যের জন্য আওয়ামী লীগ থেকে বহিষ্কৃত লতিফ সিদ্দিকী পদত্যাগ করায় টাঙ্গাইল-৪ আসন শূন্য হয়। ওই আসনে উপ-নির্বাচনে প্রার্থী হতে কাদের সিদ্দিকী ও তার দলের আরও তিনজনসহ মোট দশজন মনোনয়নপত্র জমা দেন।

নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তা আলীমুজ্জামান গত ১৩ অক্টোবর বাছাই শেষে কাদের ও তার স্ত্রী নাসরিন সিদ্দিকীসহ চারজনের মনোনয়নপত্র বাতিল ঘোষণা করেন। ঋণ খেলাপের কারণ দেখিয়ে কাদের ও নাসরিনের মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়।

এরপর প্রার্থিতা ফিরে পেতে নির্বাচন কমিশনে আপিল করেন কাদের ও নাসরিন সিদ্দিকী। কিন্তু কমিশনের শুনানিতেও তাদের আবেদন টেকেনি।

সোমবার এক সংবাদ সম্মেলনে কাদের সিদ্দিকী অভিযোগ করেন, তাকে ‘ঋণ খেলাপি’ বানাতে রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংক ‘ছলনার’ আশ্রয় নিয়েছে। ওই সংবাদ সম্মেলনেই প্রার্থিতা বাতিলের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আদালতে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছিলেন তিনি।