কালিগঞ্জে আর্ন্তজাতিক মাতৃভাষা দিবস পালনে প্রস্তুতি সভা


162 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
কালিগঞ্জে আর্ন্তজাতিক মাতৃভাষা দিবস পালনে প্রস্তুতি সভা
ফেব্রুয়ারি ১০, ২০২০ কালিগঞ্জ ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

সুকুমার দাশ বাচ্চু ::

কালিগঞ্জ উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে অমর শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উদযাপন উপলক্ষে প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার (১০ ফেব্রুয়ারী) সকাল ১১ টায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার সম্মেলন কক্ষে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন উপলক্ষে প্রস্তুতি সভায় সভাপতিত্বে করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ মোজাম্মেল হক রাসেল। এসময় বক্তব্য রাখেন উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) সিফাত উদ্দিন, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান শেখ নাজমুল ইসলাম, বিশিষ্ট সাহিত্যিক গাজী আজিজুর রহমান, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার আবুল কালাম আজাদ, কালিগঞ্জ মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক ডেপুটি কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল হাকিম, কালিগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি নরিম আলী মাস্টার, বীরমুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রউফ, বীর মুক্তিযোদ্ধা এসএম মমতাজ হোসেন মন্টু, সরকারি কালিগঞ্জ কলেজের অধ্যক্ষ জিএম, রফিকুল ইসলাম, অ্যাডভোকেট জাফরুল্লাহ ইব্রাহিম, কুশুলিয়া ইউপি চেয়ারম্যান শেখ এবাদুল ইসলাম, বিষ্ণুপুর ইউপি চেয়ারম্যান শেখ রিয়াজ উদ্দিন, সমাজসেবা কর্মকর্তা রফিকুল ইসলাম, কালিগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি শেখ সাইফুল বারী সফু, সাধারন সম্পাদক সুকুমার দাস বাচ্চু, সাংবাদিক সমিতি কালিগঞ্জ শাখার সভাপতি শেখ আনোয়ার হোসেন, কালিগঞ্জ পাইলট মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রবীন্দ্রনাথ বাছাড় প্রমুখ। সভায় সরকারি কর্মকর্তা, সাংবাদিক, শিক্ষক, রাজনৈতিক দলের নেতৃবৃন্দ, ফায়ার সার্ভিসের প্রতিনিধিসহ বিভিন্ন ব্যক্তিরা উপস্থিত ছিলেন। সভায় অমর একুশ ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উদযাপন উপলক্ষে বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহন করা হয়। কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে একুশের প্রথম প্রহর রাত বারোটা এক মিনিটে কালিগঞ্জ কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে পুষ্পমাল্য অর্পণ, সকালে প্রভাত ফেরি সহকারে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সামাজিক সংগঠন, রাজনৈতিক দলের নেতৃবৃন্দ শ্রদ্ধা জানাবেন। পরে শহীদ মিনার প্রাঙ্গণে সুন্দর হস্তাক্ষর লেখা, চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা ও রচনা প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হবে। সকাল সাড়ে ৮টায় শহীদ মিনারে আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হবে। সভার শেষ পর্যায়ে বাংলাদেশ যুব ক্রিকেট দল ভারতকে হারিয়ে প্রথম বারের মত বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন হওয়ায় অভিনন্দন জানানো হয়। এবং ১১ ফেব্রুয়ারী সকলকে মিষ্টি খাওয়ানোর সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

#