কালিগঞ্জে ভিজিএফ’র চাউল বিক্রয়ের প্রতিবাদে বিক্ষোভ সমাবেশ


440 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
কালিগঞ্জে ভিজিএফ’র চাউল বিক্রয়ের প্রতিবাদে বিক্ষোভ সমাবেশ
জুলাই ২৫, ২০১৫ কালিগঞ্জ ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

সুকুমার দাশ বাচ্চু কালিগঞ্জ: শনিবার বিকালে রতনপুর পরিষদ প্রাঙ্গনে কালিগঞ্জ উপজেলার  রতনপুর ইউনিয়নে হত দরিদ্রদের জন্য বরাদ্ধকৃত ভিজিএফ’র চাউল কালোবাজারে বিক্রয়ের সাথে জড়িতদের চিহিৃত করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি প্রদানের দাবিতে বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে এলাকাবাসী। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ রতনপুর ইউনিয়ন শাখার উদ্যোগে আয়োজিত বিক্ষোভ সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান,  উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ্জ্ব শেখ ওয়াহেদুজ্জামান। রতনপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আবু বক্কর সিদ্দিকের সভাপতিত্বে ও আওয়ামীলীগ নেতা ফিরোজ আহম্মেদের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক ও প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ডিএম সিরাজুল ইসলাম, রিপোর্টার্স ক্লাবের সভাপতি অধ্যাপক নিয়াজ কওছার তুহিন, রতনপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মুজিবুর রহমান, কাটুনিয়া রাজবাড়ি ডিগ্রী কলেজের অধ্যক্ষ আব্দুল ওহাব, উপজেলা কৃষকলীগের সদস্য সচিব আব্দুর রাজ্জাক, নূরনগর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সোহেল রানা বাবু, কালিগঞ্জ উপজেলা তরুণলীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সবুর, উপজেলা যুবলীগের সহ-সভাপতি নুরুজ্জামান জামু, রতনপুর ইউনিয়ন যুবলীগের আহবায়ক মাসুম বিল্যাহ সুজন প্রমুখ। প্রতিবাদ সমাবেশ থেকে বক্তারা রতনপুর ইউনিয়নে দরিদ্রদের জন্য ঈদের পূর্বে বিতরণের জন্য প্রদত্ত ৬শ’ কেজি চাউল আত্মসাত করে বিক্রির সাথে জড়িত মেম্বর হাজী মাহমুদুল আলমসহ সংশ্লিষ্টদের গ্রেপ্তারপূর্বক দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান।
গত ১৬ জুলাই উপজেলার ১১ নং রতনপুর ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ডের মেম্বর সুদের ব্যবসায়ী হাজী মাহমুদুল আলম, মাস্টাররোলে নিয়োগকৃত সচিব মতিয়ার রহমান পরিষদের গ্রামপুলিশ সোহরাব হোসেনের মাধ্যমে পাশ্ববর্তী কদমতলা বাজারের চাল ব্যবসায়ী রাজিব হোসেন বাবু’র নিকট ৬শ’ কেজি (১২ বস্তা) চাল বিক্রি করে। এঘটনা জানাজানি হলে ওই দিন সন্ধ্যা সাড়ে ৭ টার দিকে এলাকাবাসী দোকান থেকে চাল আটক করে। খবর পেয়ে কালিগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সৈয়দ ফারুক আহম্মদ এর নির্দেশে  থানার সহকারী উপ-পরিদর্শক মিজানুর রহমান ঘটনাস্থলে যেয়ে চাল উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসেন। এঘটনায় সহকারী উপ-পরিদর্শক মিজানুর রহমান বাদী হয়ে চাল ক্রেতা রাজিব হোসেন বাবু, মেম্বর মাহমুদ আলী, মতিয়ার রহমান ও গ্রামপুলিশ সোহরাব হোসেনকে আসামি করে একটি মামলা দায়ের করেন যার নম্বর:১৮,তারিখ: ১৭/০৭/১৫ ইং। পুলিশ চাল ক্রেতা রাজিব হোসেন বাবুকে গ্রেপ্তার করে জেলা কারাগারে প্রেরণ করেছে।