কালিগঞ্জে ভূমিহীনদের পুনর্বাসন এবং নিহত আশরাফ মীর ও ইছাহাকের হত্যাকারীদের শাস্তির দাবিতে সংবাদ সম্মেলন


305 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
কালিগঞ্জে ভূমিহীনদের পুনর্বাসন এবং নিহত আশরাফ মীর ও ইছাহাকের হত্যাকারীদের শাস্তির দাবিতে সংবাদ সম্মেলন
জুলাই ২৬, ২০১৬ কালিগঞ্জ ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

আশরাফু আলম :
সাতক্ষীরার কালিগঞ্জ উপজেলার বৈরাগীর চক ও চিংড়িখালী এলাকায় বসবাসরত ভূমিহীনদের পুনর্বাসন ও নিরাপত্তার দাবি এবং নিহত ভূমিহীন নেতা আশরাফ মীর ও ইছাহাক আলী গাজীর হত্যাকারীদের শাস্তির দাবিতে সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। মঙ্গলবার দুপুরে সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবে নিহত আশরাফ মীরের স্ত্রী ফজিলা বেগম এই সংবাদ সম্মেলন করেন।
এসময় লিখিত বক্তব্যে বলা হয়, বৈরাগীর চক ও চিংড়িখালী ভূমিহীন জনপদে তিন শতাধিক ভূমিহীন পরিবার বসবাস করে। ২০১৫ সালের ১৯ আগস্ট আশরাফ মীর ও ইছাহাক আলী গাজী স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছে ওই এলাকায় প্রকৃত ভূমিহীনদের বসবাস নিশ্চিতের দাবিতে আবেদন করেন। এর মাত্র ৫ দিনের মাথায় ২৪ আগস্ট ভোরে কালিগঞ্জের ইন্দ্রনগর গ্রামের একাধিক হত্যা মামলার আসামি আবুল হোসেন পাড়, শহিদুল পাড়, করিম পাড় ও রহিম পাড়ের নেতৃত্বে শতাধিক সন্ত্রাসী ভূমিহীনদের উচ্ছেদের উদ্দেশ্যে বৈরাগীর চকে হামলা চালিয়ে ভূমিহীন নেতা আশরাফ মীর ও ইছাহাক আলী গাজীকে নির্মমভাবে হত্যা করে। আহত হয় শতাধিক। এ ঘটনায় তিনি নিজে বাদী হয়ে কালিগঞ্জ থানায় মামলা করতে গেলে পুলিশ মামলা নেয়নি। উল্টো পুলিশ বাদী হয়ে নিহত আশরাফ মীর, আশরাফ মীরের ছেলে হাবিব মীর, শ্যালক শহিদুল গাজী, শ্যালকের ছেলে ইসরাইল গাজী, মিকাইল গাজী, তাইজুল শেখ, লুৎফর বিশ্বাস ও নিহত ইছাহাক আলী গাজীসহ অসংখ্য নিরাপদ মানুষকে আসামি করে দুটি মামলা করে। পরে ফজিলা বেগম বাদী হয়ে আদালতে মামলা দায়ের করেন। আদালত মামলাটি আমলে নিয়ে কালিগঞ্জ থানার ওসিকে তদন্ত করে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দেন।
সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে ভূমিহীনদের মধ্যে খাস জমি বন্দোবস্ত দেওয়ার জন্য কালিগঞ্জের ইউএনও ইতোমধ্যে তদন্তপূর্বক প্রতিবেদন দাখিল করেছেন। কিন্তু সরকারের ভাবমূর্তি ক্ষুণœ করার জন্য জামায়াত নেতা আবুল হোসেন পাড়ের নেতৃত্বে সন্ত্রাসীরা ভূমিহীনদের উচ্ছেদ করার জন্য ইতঃপূর্বে হামলা চালিয়ে ভূমিহীন নেত্রী ছবিরননেছা, আবুল সরদার ও কবীর সানাকে হত্যা করে এবং বহু সংখ্যক ভূমিহীনের ঘরবাড়ি জ্বালিয়ে দিয়ে নির্যাতন চালায়। সর্বশেষ আশরাফ মীর ও ইছাহাক আলী গাজীকে হত্যা করে ওই এলাকায় মৎস্য ঘের করার চেষ্টা চালাচ্ছে।
সংবাদ সম্মেলনে তিনি বৈরাগীর চক ও চিংড়িখালী এলাকায় বসবাসরত ভূমিহীনদের পুনর্বাসন ও নিরাপত্তার দাবি এবং নিহত ভূমিহীন নেতা আশরাফ মীর ও ইছাহাক আলী গাজীর হত্যাকারীদের শাস্তির দাবি জানান।