কালিগঞ্জ মুড়োগাছা সর: প্রাথ: বিদ্যা: প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে জাতীয় শিশু দিবস পালন না করার অভিযোগ


378 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
কালিগঞ্জ মুড়োগাছা সর: প্রাথ: বিদ্যা: প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে জাতীয় শিশু দিবস পালন না করার অভিযোগ
মার্চ ২১, ২০১৭ কালিগঞ্জ ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

সুকুমার দাশ বাচ্চু কালিগঞ্জ ::
কালিগঞ্জ মুড়োগাছা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে  জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর ৯৮তম জন্ম বার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবস’১৭ পালন না করার অভিযোগ উঠেছে। সরকারি স্কুলে জাতীয় দিবস পালন না করায় বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।

সূত্রে জানাযায়, বর্তমান সরকারের শিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে দেশের সকল পর্যায়ের সরকারি ও বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ১৭মার্চ জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর ৯৮তম জন্ম দিবস ও জাতীয় শিশু দিবস পালন করার নির্দেশনা থাকলেও,

কালিগঞ্জ উপজেলার ৮৭নং মুড়োগাছা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে বঙ্গবন্ধুর জন্ম দিবস ও জাতীয় শিশু দিবস পালন করা হয়নী।
দিবসটি পালন না করে জাতীয় শিশু দিবসের ইতিহাস জানা থেকে কোমলমতি শিশুদের বঞ্চিত করা হয়েছে বলে অভিভাবকরা মনে করছেন।

সরকারী নির্দেশনা অমান্য করার সামিল হওয়ায় মুড়োগাছা সরকারী প্রাথঃ বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক ইসমাইল হোসেন মিলনের বিরুদ্ধে ছাত্র-ছাত্রী, অভিভাবক ও এলাকাবাসীর মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।

এ ব্যাপারে ২০মার্চ অভিভাবকের পক্ষে অত্র বিদ্যালয়ের প্রথম শ্রেণীর ছাত্রী মীমের অভিভাবক ধলবাড়ীয়া ইউনিয়নের মুড়োগাছা গ্রামের মৃত আব্দুল হান্নান গাজীর পুত্র দোজাহান গাজী উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বরাবর লিখিত অভিযোগ করেছেন।

এ বিষয়ে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ্ব শেখ ওয়াহেদুজ্জামান উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার কে তদন্ত পূর্বক আইনানুক ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দেন। অভিযোগের প্রেক্ষিতে ২১ মার্চ মঙ্গলবার বেলা ১১টায় স্কুল প্রাঙ্গনে অভিযোগের তদন্ত করেন উপজেলা সহকারী শিক্ষা অফিসার জহুরুল ইসলাম।

এসময় স্কুল ম্যানেজিং কমিটির দাতা সদস্য আনজির হোসেন, অভিভাবক নুর আহম্মাদ একই গ্রামের আমজাদ, রুপা পারভীন সহ এলাকাবাসী প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগের বিচার দাবী করেন।

এ ছাড়া ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে অভিভাবরা স্কুলে বিভিন্ন বিষয়ে অনিয়মের অভিযোগ তুলে ধরেন।

এলাকাবাসী প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে স্কুলে জাতীয় কর্মসূচির অংশ হিসাবে মহান এই দিবসটি যথাযোগ্য মর্যাদায় পালন না করায় স্কুল প্রাঙ্গণে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করে।

এব্যাপারে স্কুলের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক ইসমাইল হোসেন মিলন তার বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ অস্বিকার করে তিনি বলেন, স্কুল ম্যানেজিং কমিটি গঠনকে কেন্দ্র করে একটি পক্ষ তাকে সামাজিক ভাবে হেয় প্রতিপন্ন করার চেষ্টা করছে।
##