কালিগঞ্জ সংবাদ ॥ অধ্যক্ষ তমিজ উদ্দিনের ৫ম মৃত্যু বার্ষিকী পালিত


114 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
কালিগঞ্জ সংবাদ ॥ অধ্যক্ষ তমিজ উদ্দিনের ৫ম মৃত্যু বার্ষিকী পালিত
আগস্ট ১৯, ২০১৯ কালিগঞ্জ ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

সুকুমারর দাশ বাচ্চু ::

কালিগঞ্জ কালিগঞ্জ প্রেসক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি অধ্যক্ষ তমিজ উদ্দীন আহম্মদের ৫ম মৃত্যু বার্ষিকী উপলক্ষে বিভিন্ন কর্মসূচী পালিত হয়েছে। কালিগঞ্জ প্রেসক্লাবের আয়োজনে সোমবার (১৯ আগষ্ট-২০১৯) বেলা ১১ টায় কবর যিয়ারত, (কালিগঞ্জ কলেজের পিছনে কবরস্থানে) বেলা সাড়ে ১১ টায় প্রেসক্লাবের হলরুমে স্মৃতিচারণ ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। প্রেসক্লাবের সভাপতি শেখ সাইফুল বারী সফু’র সভাপতিত্বে স্মরণ সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন কালিগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ হাসান হাফিজুর রহমান। কালিগঞ্জ প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক সুকুমার দাশ বাচ্চু ও সাংগঠনিক সম্পাদক হাফিজুর রহমান শিমুলের সঞ্চালনায় স্মৃতিচারন সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন কালিগঞ্জ রোকেয়া মনসুর মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ একেএম জাফরুল আলম বাবু, বিশিষ্ঠ শিক্ষানুরাগী আলহাজ্ব মনজুর লুতফর রহমান, বিশিষ্ঠ মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব শেখ মমতাজ হোসেন মন্টু, সহ সভাপতি অধ্যাপক নিয়াজ কওছার তুহিন, শেখ আনোয়ার হোসেন, কালিগঞ্জ প্রেসক্লাবের উপদেষ্টা আব্দুল লতিফ মোড়ল, নলতা শরীফ প্রেসক্লাবের সভাপতি অধ্যাপক মনিরুজ্জামান মহসিন, কালিগঞ্জ প্রেসক্লাবের কোষাধ্যক্ষ কাজী মুজাহিদুল ইসলাম তরুন, সোহরাওয়ার্দী পার্ক কমিটির সদস্য সচিব এ্যাডঃ জাফরুল্যাহ ইব্রাহিম, হাজী তফিল উদ্দীন মহিলা মাদ্রাসার সুপার মাওঃ রমিজ উদ্দীন, কালিগঞ্জ সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষক শেখ আবু আব্দুল্যাহ, প্রমুখ। স্মরন সভা শেষে মিলাদ মাহফিল ও দোয়া মোনাজাত পরিচালনা করেন মৌতলা দাখিল মাদ্রাসার সুপার মাওঃ মহসিন আলী। বক্তারা বলেন অধ্যক্ষ তমিজ উদ্দিন আহমাদ ছিলেন একজন প্রথিতষশা সাংবাদিক। সাংবাদিকতার পাশাপশি শিক্ষকতার পেষা সহ বিভিন্ন সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও ধমীয় প্রতিষ্ঠানের সাথে সম্পৃক্ত ছিলেন।

#

সন্ত্রাস জঙ্গীবাদ নির্মূলে পুলিশ কে সহযোগীতা করুন জেলা পুলিশ সুপার মোস্তাফিজুর রহমান

সুকুমারর দাশ বাচ্চু ::
কালিগঞ্জ থানা পুলিশের আয়োজনে সোমবার ১৯ আগষ্ট কালিগঞ্জ থানা চত্তরে সাতক্ষীরা জেলা পুলিশ সুপার মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান (পিপিএম) বার এর সাথে সাংবাদিক, গ্রাম পুলিশ ও জনপ্রতিনিধিদের সাথে এক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। থানা অফিসার ইনচার্জ হাসান হাফিজুর রহমানের সভাপতিত্বে মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন জেলা পুলিশ সুপার মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান। বিশেষ অতিথির কালিগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান সাঈদ মেহেদী, কালিগঞ্জ সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জামিরুল হায়দার, কালিগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি শেখ সাইফুল বারী সফু, সহ-সভাপতি শেখ আনোয়ার হোসেন, নিয়াজ কওছার তুহিন, সাধারন সম্পাদক সুকুমার দাশ বাচ্চু, তথ্য ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক এসএম,আহম্মাদ উল্যাহ বাচ্চু, কালিগঞ্জ উপজেলা পুজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি অধ্যাপক সনৎ কুমার গাইন প্রমুখ। জেলা পুলিশ সুপার (পিপিএম) বার মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, পুলিশের উত্তম সেবা কাজ করে। এলাকায় কোন বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি হলে গ্রাম পুলিশ সহ জনপ্রতিনিেিদর দায়িত্ব পালন করতে হবে। বর্তমান সরকারের লক্ষ্য উন্নয়ন ও সুশাসন সরকারের নীতি ও আদর্শ মাঠ পর্যায়ে বাস্তবায়নের জন্য আমরা কাজ করে যাচ্ছি। তিনি আরো বলেন সমাজ থেকে মাদক সন্ত্রাস জঙ্গীবাদ নির্মুল করতে হবে। কোথাও কোন জঙ্গীবাদ দেখলে থানা পুলিশকে খবর দিন। সার্বিক আইনশৃঙ্খলা উন্নয়নের পুলিশ বাহিনীকে সহযোগীতা করুন। তিনি সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে বলেন আপনারা অনুসন্ধ্যানী সাংবাদিকতা করুন। ইতিবাচক সংবাদ কোন খবর নয়, নীতিবাচনক সংবাদ দিন। এলাকায় ছোটখাটো ঘটনা জনপ্রতিনিধিরা মিমাংশ করবে। থানায় বেশী মামলা না হওয়া ভাল, মামলা হলে টাউট, বাটপার, দালালরা সুবিধা নিবে। তিনি সমৃদ্ধ সাতক্ষীরার ঐতিহ্যকে ধরে রেখে আগামী দিনে পুলিশ কে সহযোগীতা করার আহবান জানান।

#

কালিগঞ্জের পল্লীতে ২ শিশু সন্তানকে রেখে স্ত্রী নিখোঁজ

সুকুমার দাশ বাচ্চু ::

কালিগঞ্জ উপজেলার বিজয় নগর গ্রামের আলমগীর হোসেনের স্ত্রী মনোয়ারা বেড়ম (২৭) ২ সন্তানকে ফেলে বাড়ি থেকে নিখোঁজ হয়েছে। এঘটনায় তার স্বামী অলমগীর হোসেন কালিগঞ্জ থানায় সাধারন ডাইরী করেছেন। থানা সূত্রে জানাযায়, কালিগঞ্জ উপজেলার কাঠুনিয়া গ্রামের আজিজুল সরদারের কন্যা মনোয়ার বেগমের সাথে বিজয় নগর গ্রামের বারেক গাজীর পুত্র আলমগীর হোসেন ১০ বছর পূর্বে ইসলামী শরিয়াত মোতারেবক বিবাহ হয়। তাদরে সংসারে ২টি পুত্র সন্তান মনিরুল ইসলাম (৯) ও মোস্তাফিজুর রহমান (৩) জম্ম গ্রহন করে। আলমগীর কর্মের তাগিদে স্ত্রী সন্তানতের নিয়ে যশোরে থাকতেন। গত ৫জুন স্ত্রী পুত্রদের নিয়ে শশুড় বাড়ি কাঠুনিয়া গ্রামে বেড়াতে আসে। গত ১৯জুন মনোয়ারা খাতুন শশুড় বাড়ি থেকে নিখোজ হয়। বহু খোজা খুজি করে কোথায় তার সন্ধ্যান না পেয়ে অবশেষে তার স্বামী আলমগীর হোসেন কালিগঞ্জ থানার একটি সাধারন ডাইরী করেছে।