কাশ্মীর সীমান্তে ভারত ও পাকিস্তানি সেনাদের গোলাগুলি,নিহত ৫


305 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
কাশ্মীর সীমান্তে ভারত ও পাকিস্তানি সেনাদের গোলাগুলি,নিহত ৫
ফেব্রুয়ারি ২৭, ২০১৯ প্রবাস ভাবনা ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

অনলাইন ডেস্ক ::

কাশ্মীর সীমান্তে পাকিস্তানের ভেতরে ভারতের বিমান হামলার পর মঙ্গলবার সন্ধ্যা ও রাতে ওই সীমান্তে প্রতিবেশী দুই দেশের সেনাদের মধ্যে পাল্টাপাল্টি গোলাগুলি হয়েছে। এতে পাকিস্তানে দুই শিশুসহ পাঁচজন নিহত এবং ভারতের পাঁচ সেনা আহত হয়েছে।

পাকিস্তানি কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে দেশটির পত্রিকা ডন–এর এক খবরে বলা হয়েছে, কাশ্মীর সীমান্তের নাকিয়াল সেক্টরে মঙ্গলবার ভারতীয় মর্টারের গোলায় দুই শিশুসহ পাঁচ পাকিস্তানি নিহত হয়েছে। আহত হয়েছে আরও কয়েকজন।

এদিকে ভারতীয় কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে দেশটির সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি জানায়, মঙ্গলবার বিকেল থেকে পাকিস্তান জম্মু, রাজৌরি, পুঞ্চের ৫৫টি ভারতীয় চৌকিতে মর্টারের গোলা নিক্ষেপ ও গুলি ছোড়ে। এতে আখনুর সেক্টরে পাঁচ ভারতীয় সেনা আহত হয়েছে। এরপর রাতে ভারতীয় সেনারা এর যথাযথ জবাব দিয়েছে।

ভারতের এক প্রতিরক্ষা মুখপাত্র জানান, মঙ্গলবার সন্ধ্যায় সীমান্তে দুই দেশের সেনাদের মধ্যে গুলিবিনিময় হয়। কোনো উসকানি ছাড়াই সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টার দিকে কাশ্মীরের নওশেরা সেক্টরে গুলি চালায় পাকিস্তান। ভারতীয় সেনারা এর উপযুক্ত জবাব দেয়।

সম্প্রতি ভারতনিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরের পুলওয়ামায় দেশটির আধা সামরিক বাহিনীর গাড়িবহরে আত্মঘাতী হামলায় ৪০ জওয়ান নিহত হয়। পরে ওই আত্মঘাতী হামলার দায় স্বীকার করে পাকিস্তানভিত্তিক জঙ্গি সংগঠন জইশ-ই-মুহাম্মদ। এর জবাবে মঙ্গলবার ভোররাতে পাকিস্তানের ভূখণ্ডে ঢুকে বিমান হামলা চালায় ভারত। এতে জইশ-ই-মুহাম্মদের ৩০০ জঙ্গি নিহত হয়েছে বলে দাবি করেছে দেশটি।

তবে ভারতীয় যুদ্ধবিমানের হামলায় কোনো ক্ষয়ক্ষতি হয়নি বলে দাবি পাকিস্তানের। তবে সীমানা লঙ্ঘন করে অনাবশ্যক এই হামলার উপযুক্ত জবাব যথাসময়ে দেওয়া হবে বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছে দেশটি। সম্ভাব্য সব ধরনের পরিস্থিতির জন্য প্রস্তুত থাকতে সশস্ত্র বাহিনী ও জনগণের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন পাকিস্তানি প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান।