কুমিরা ইউপির পূনঃনির্বাচন : বিরোধী প্রার্থী ও সাধারণ ভোটারদের মধ্যে আতঙ্ক !


311 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
কুমিরা ইউপির পূনঃনির্বাচন : বিরোধী প্রার্থী ও সাধারণ ভোটারদের মধ্যে আতঙ্ক !
অক্টোবর ২৫, ২০১৬ তালা ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

কামরুজ্জামান মোড়ল ॥
পাটকেলঘাটার ৪ নং কুমিরা ইউনিয়নে স্থগিত হওয়া ৩ ভোট কেন্দ্রে নির্বাচন কমিশনের ঘোষণা অনুযায়ী আগামী ৩১ অক্টোবর পূনঃভোট গ্রহণের দিনক্ষণ যতই ঘনিয়ে আসছে ততই বিরোধী দলের প্রার্থী, কর্মী-সমর্থক ও সাধারণ ভোটারদের মধ্যে আতঙ্ক বিরাজ করছে। সুষ্ঠু পরিবেশ না থাকা এবং জীবনের নিরাপত্তাহীনতায় ৩ চেয়ারম্যান প্রার্থী সন্ধ্যার পর গণসংযোগে নামতে সাহস পাচ্ছেন না।
বিরোধী ৩ চেয়ারম্যান প্রার্থী ও বেশ কয়েকজন সাধারণ ভোটারদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, ক্ষমতাসীন দলের প্রার্থী ও তার কর্মী সমর্থদের হুঙ্কারে সাধারণ ভোটাররা আতঙ্কিত হয়ে পড়েছেন। বিরোধী পক্ষের চেয়ারম্যান প্রার্থীরা সন্ধ্যার পরেতো দুরের কথা দিনের বেলায়ও গণসংযোগে নামতে সাহস পাচ্ছেন না। দাদপুর গ্রামের শেখ বিএনপির কর্মী শেখ আব্দুল আজিজ, ওয়ার্ড বিএনপির সভাপতি মাওঃ আব্দুল ওয়াহাব জানান, প্রায় রাতে পুলিশ পরিচয়ে বাড়ির গেটে এবং ঘরের দরজায় নাড়া দিয়ে বিরোধী পক্ষের লোকজনদের ভোট থেকে বিরত থাকার জন্য আতঙ্কিত করছে। খোজখবর নিয়ে জানা গেছে, শুধুমাত্র সরকার দলীয় প্রার্থী ছাড়া অন্যকোনো প্রার্থী পোষ্টার পর্যন্ত মারতে সাহস পাচ্ছেন না।
উল্লেখ্য, গত ২২ মার্চ নির্বাচনের আগের রাতে ৫০/৬০ জন দূর্বৃত্ত সশস্ত্র অবস্থায় ভোট কেন্দ্রে ঢুকে দায়িত্বরত প্রিসাইডিং অফিসার সহ সকলকে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে ব্যালট বই ছিনিয়ে নিয়ে নৌকা প্রতীকে সিল মেরে বাক্র ভরে দেয়। ঐ ঘটনায় ৩ কের্ন্দের দায়িত্বরত প্রিসাইডিং কর্মকর্তা বাদী হয়ে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী শেখ আজিজুল ইসলাম সহ ৪ জনের নাম উল্লেখপূর্বক ৫০/৬০ জন দূবৃর্ত্তের নামে পৃথক তিনটি মামলা করেন। দীর্ঘ ৭ মাস পর নির্বাচন কমিশন স্থগিত হওয়া কেন্দ্রগুলো আগামী ৩১ অক্টোবর পুনঃভোট গ্রহণের জন্য তফশীল ঘোষণা করেন।