কুল্যার মোমেনা অর্থের অভাবে চিকিৎসা বঞ্চিত : সাহায্যের আবেদন


139 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
কুল্যার মোমেনা অর্থের অভাবে চিকিৎসা বঞ্চিত : সাহায্যের আবেদন
জুলাই ২৬, ২০১৯ আশাশুনি ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

এস,কে হাসান ::

আশাশুনি উপজেলার কুল্যা গ্রামের অসহায় অন্ধ পরিবারের স্ত্রী মোমেনা খাতুন (৩৫) অর্থের অভাবে চিকিৎসা না পেয়ে অজানা আতঙ্কে জীবন যাপন করছেন। তার চিকিৎসা সহায়তার জন্য সকলের সহযোগিতা কামনা করা হয়েছে।
কুল্যার মোড়ে বাস স্ট্যান্ডে গাড়িতে গাড়িতে প্রতিদিন ভিক্ষে করে অর্থ রোজগারের চেষ্টা করেন মোমেনা খাতুনের স্বামী অন্ধ শফিকুল ইসলাম। সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত বাসে উঠে যাত্রীদের কাছে ভিক্ষের ঝুলি নিয়ে উপস্থিত হন তিনি। কেউ ৫০ পয়সা, ১ টাকা, কেউ ৫ টাকা দান করলেও অধিকাংশ মানুষ কিছুই দেন না। তবে মাঝে মধ্যে ঠিকই তাকে পেতে হয় কালো মুখের ভৎর্সনা, চোখ রাঙানী ও গালমন্দ। এছাড়া গাড়ির হেলপারদের ঝাকুনি, ঠেলা দিয়ে নামিয়ে দেওয়ার ঘটনাতো তার পাওনা। তার পরও কোন উপায় না থাকায় প্রতিদিন তিনি ভিক্ষাবৃত্তি করেই চলেছেন। আর ওয়াক্ত হলে কুল্যার মোড় মসজিদে মুয়াজ্জিন হিসাবে সঠিক সময়জ্ঞান ধারণ করে আজান দেওয়ার দায়িত্ব পালন করে থাকেন। ৪/৫ জনের সংসারে তার একা রোজগারেই সংসার চালাতে হয়। দিন আনা দিন খাওয়া সংসারে অভাব যখন লেগেই থাকে, তখন মোমেনা খাতুনের মারাত্মক রোগ তাদেরকে চরম বিপাকে ফেলেছে। ৫/৬ বছর পূর্ব হতে মোমেনা খাতুনের গলায় রোগের দেখা দেয়। অর্থ না থাকায় সঠিক চিকিৎসা দিতে পারেনি তারা। গাছ গাছড়া, ঝাঁড়ফুক দিয়ে চিকিৎসা করাতে হয়েছে। কিছু ফল না পেয়ে ছোট ছোট ডাক্তারের কাছে গিয়ে দেখালেও ঠিকভাবে ঔষধ যোগাড় করা হয়ে ওঠেনি। শেষ মেষ কিছু টাকা ভিকসিক করে সাতক্ষীরায় প্রখ্যাত চিকিৎসক ডাঃ স ম জাহিদ সাহেবের স্মরনাপন্ন হন। তিনি কিছু টেস্ট করার পরামর্শ দেন। টেস্ট করতে অনেক সময় লেগে যায়। এরপর সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে টেষ্ট করার পর “থাইরয়েড” (Thyroid) রোগ হয়েছে রিপোর্ট পেয়ে, তাকে অপারেশন করার কথা বলা হয়। অপারেশনে কমপক্ষে ৪০ হাজার টাকা খরচ লাগবে জানান হয়। কিন্তু না তার পক্ষে অত টাকা যোগাড় করা সম্ভব হচ্ছেনা। ফলে অন্ধের স্ত্রী মোমেনা গলা বেশ বড় করে ফুলে ওঠা শরীর নিয়ে অসহ্য কষ্টের মধ্যে বিনা চিকিৎসায় রোগ ভোগ করে চলেছেন। সামান্য টাকার (যদিও তাদের জন্য বিশাল) সংস্থান করতে তারা এখন দারে দারে ঘুরছে। কিন্তু না টাকা যোগাড় অসম্ভব হয়ে পড়েছে। এজন্য তারা সমাজের বিত্তবানসহ হৃদয়বান ব্যক্তিদের কাছে দু’হাত পেতে দাঁড়িয়েছেন।
আমরা কি পারিনা অন্ধ স্বামীর এই রোগাগ্রস্ত স্ত্রী মোমেনার পাশে এসে দাঁড়াতে? যারা তার সহযোগিতায় এগিয়ে আসতে চান তাদেরকে তার স্বামীর মোবাইল নং ০১৮৪৩৫৯৩৮৫৫ (বিকাশ)-এ যোগাযোগ করার জন্য অনুরোধ জানান হয়েছে।