‘কেউ দাবায়া রাখতে পারবে না প্রমাণিত হয়েছে’


276 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
‘কেউ দাবায়া রাখতে পারবে না প্রমাণিত হয়েছে’
ডিসেম্বর ১২, ২০১৫ জাতীয় ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

ভয়েস অব সাতক্ষীরা ডটকম ডেস্ক :

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, বাঙালি জাতি কারও কাছে মাথা নত করেনি, করবেও না। আমরা সেই জাতি, যে জাতি সম্পর্কে জাতির পিতা বলেছিলেন, ‘কেউ দাবায়া রাখতে পারবা না’, আজকেও সেটি প্রমাণিত হয়েছে।

শনিবার বেলা সোয়া ১১টার পর শরীয়তপুরের জাজিরায় পদ্মা বহুমুখী প্রকল্পের মূল সেতু ও নদীশাসনের বাস্তব কাজের উদ্বোধন শেষে আয়োজিত এক সুধী সমাবেশে তিনি একথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমরা পদ্মা সেতু নির্মাণ কাজের প্রকল্প হাতে নিলে বিশ্ব ব্যাংক এগিয়ে আসে। কিন্তু হঠাৎ করে কোনো কারণ ছাড়া তারা দুর্নীতির অভিযোগ আনে। তবে আজ পর্যন্ত তারা কোনো দুর্নীতির অভিযোগের প্রমাণ দিতে পারেনি।

তিনি আরও বলেন, আমি তাদের কাছে জানতে চাই দুর্নীতি কোথায় হয়েছে? অনেক আলোচনা, তর্ক-বির্তক হয়েছে। তারা দু’টি কাগজ আমাকে দেখিয়েছিল। সেটি ময়মনসিংহ চার লেন ও সিদ্ধিরগঞ্জ বিদ্যুৎ কেন্দ্র সংশ্লিষ্ট। আমি চিঠিও লেখলাম। কিন্তু কোন প্রমাণ দিতে পারেননি। এখন আদালত জানতে চেয়েছে কোথায় দুর্নীতি হয়েছে।

শেখ  হাসিনা বলেন, বড় কাজ করতে গেলে ‘হাত পাততে হবে’ এ মানসিকতা ভাঙতেই নিজস্ব অর্থায়নে দেশের সবচেয়ে বড় এই অবকাঠামো প্রকল্প বাস্তবায়নের সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন। আমি চেয়েছিলাম, আমরা পারি, আমরা তা দেখাব।… আজ আমরা সেই দিনটিতে এসে পৌঁছেছি।”

এ প্রকল্প বাস্তবায়নে সবার সহযোগিতা চেয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, উন্নত হতে হলে একটি দেশ এককভাবে পারে না, আঞ্চলিক সহযোগিতা প্রয়োজন। এ প্রকল্প বাস্তবায়ন হলে একদিকে দক্ষিণ অঞ্চলের অবহেলিত মানুষের জীবনমানের উন্নতি হবে, অন্যদিকে প্রতিবেশী দেশগুলোর সঙ্গে আঞ্চলিক যোগাযোগ বৃদ্ধি পাবে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, দক্ষিণাঞ্চলকে আওয়ামী লীগ ছাড়া অন্যরা সবাই অবহেলার চোখে দেখেছে। আমরা নতুন পোর্ট করেছি, যাতায়াত ব্যবস্থার উন্নয়ন হয়েছে। সেই সঙ্গে উন্নত রেলওয়েও করা হবে।

তিনি বলেন, বাংলাদেশের বার্ষিক উন্নয়নের ৯০ শতাংশ নিজেদের অর্থায়নে করতে পারি। বাংলাদেশ সাবলম্বী হবে। কারও কাছে হাত পেতে নয়। আমরা উৎপাদন করি। দেশের এক ইঞ্চি জমিও যেন অনাবাদি না থাকে সে লক্ষ্যে কাজ করতে হবে।