কেশবপুরের প্রতাপপুরে অলৌকিক কলস চুরির অভিযোগ


550 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
কেশবপুরের প্রতাপপুরে অলৌকিক কলস চুরির অভিযোগ
জানুয়ারি ১৮, ২০১৭ খুলনা বিভাগ ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

মেহেদী হাসান, কেশবপুর ::
যশোর জেলার কেশবপুর থানার ৩ নং মজিদপুর ইউনিয়নের অন্তর্গত প্রতাপপুর গ্রামের সরদার পাড়ার বাসিন্দা মিলন সরদারের মেয়ে সুমাইয়া খাতুন(১০) ও জাকির সরদারের ছেলে মোঃ নীরব হোসেন(১২) গত ১১ই জানুয়ারী বুধবার আনুমানিক দুপুর দেড়টার দিকে তাদের বাড়ির পাশের বাগানে তেঁতুল কুড়াতে যায়। এসময় ঘটে এক চমকপ্রদ ব্যাপার। তারা হঠাৎ ঝোপের মধ্যে দুইটা মাটির কলস দেখতে পায়। তারা কাছে গিয়ে একটা কলসে একটি সুন্দর সোনালী রঙের পুতুল দেখতে পায়।  কিন্তু না পেরে তারা কলসটিকে উঠিয়ে আনার চেষ্টা করে।কিন্তু কলসটির ওজন অত্যাধিক হওয়ায় তারা কলসটিকে টেনে বাড়িতে নিয়ে যায়। শোনা যায় ঐ স্হানটি এক সময় হিন্দুদের মন্দির ছিল। সুমাইয়ার পরিবারের সকলে এ সময় কাজের প্রয়োজনে বাড়ির বাইরে ছিল। শুধু সুমাইয়ার মা নামাজ পড়ছিল। সুমাইয়া ও নীরব বাড়ির এক কোনে রাখা পলিথিনের নিচে কলসটিকে রেখে তেঁতুল খাওয়ার জন্য রান্নাঘরে লবণ আনতে যায়। বেরিয়ে এসে তারা দেখে পাশের বাড়ির নূরুল উদ্দিন সরদারের স্ত্রী জয়গুন বিবি(৫০) তাদের বাড়ির ভিতর ঢুকে কলসটিকে নিয়ে দ্রুত চলে যাচ্ছে। এ সময় সুমাইয়া ও নীরব তাকে কলসসহ পুতুল নিয়ে যেতে নিষেধ করলে জয়গুন বিবি বলেন কলস কি তোর বাপের? এর ভিতরে হিন্দুদের পুতুল আছে। আমি তা হিন্দুদের দিয়ে দেবো। এই বলে সে দ্রুত চলে যায়। এমনই অভিযোগ সুমাইয়া ও নীরব হোসেন সহ তাদের পরিবার ও আশপাশের অনেকেরই। এ ব্যাপারে জয়গুন বিবি ও নূরুল উদ্দিন সরদারের কাছে জানতে চাইলে তারা মুখ খোলেন না। এরপর নূরুল উদ্দিন সরদারের ভাই শামসুদ্দীন সরদার এ ঘটনা পুরোপুরি অস্বীকার করেন এবং এটাকে গুজব এবং ভিত্তিহীন বলে আখ্যা দেন। তিনি জয়গুন বিবির অসুস্থতার কথা বলে তাকে কথা বলা থেকে বিরত রাখেন। এ ঘটনা জানতে পেরে কেশবপুর থানার পুলিশ সদস্যরা  ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। কিন্তু ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত না করে এলাকার বার বার নির্বাচিত মেম্বর লতিফ গাজীর নিকট দায়ভার দেন। কিন্তু এখনও পর্যন্ত এর কোন সুষ্ঠু  সমাধান মেলেনি। এলাকাবাসীর কাছে জানতে চাইলে তারা বলেন পূর্বেও ওইখানে এরকম আলামত দেখা গেছে। এই ঘটনা জানাজানি হওয়ার পর আশেপাশের গ্রামসহ দূরের মানুষও উৎসুক হয়ে ঘটনাস্থলে ভিড় জমাচ্ছেন।