কোমর ব্যথায় মুক্তি পেতে যা করবেন


415 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
কোমর ব্যথায় মুক্তি পেতে যা করবেন
অক্টোবর ৩০, ২০১৫ ফটো গ্যালারি স্বাস্থ্য
Print Friendly, PDF & Email

ভয়েস অব সাতক্ষিরা ডটকম ডেস্ক :

আমরা অনেকেই হয়তো শরীরের জয়েন্ট (গাঁট), কোমর, হাঁটু, ঘাড় এগুলোর ব্যথায় দীর্ঘদিন ধরে ভুগি। এসব ব্যথা দূর করতে কার্যকর খাবার হচ্ছে জেলাটিন (জীবজন্তুর হাড় ও বর্জ্য অংশ পানিতে সিদ্ধ করে তৈরি করা জেলির মতো স্বচ্ছ স্বাদহীন পদার্থ)। তাই দেহের ব্যথা দূর করতে চাইলে নিচে

দেওয়া খাদ্যপ্রণালিটি অনুসরণ করতে পারেন –

যেকোনো দোকান থেকে ১৫০ গ্রাম জেলাটিন কিনুন (এক মাসের জন্য ১৫০ গ্রামই যথেষ্ট)।

বিকেলে ওই জেলাটিন থেকে পাঁচ গ্রাম নিয়ে (দুই চা চামচ) সিকি কাপ ঠাণ্ডা পানির (ফ্রিজ থেকে নামানো) সঙ্গে মেশান। সারা রাত এভাবে রাখুন (ফ্রিজে রাখবেন না)। সারা রাত ভিজিয়ে রাখার পর জেলাটিন জেলির আকার ধারণ করবে।

সকাল বেলা ঘুম থেকে উঠে খালি পেটে এটা পান করুন।  জুস, পানি, দইয়ের সঙ্গে মিশিয়ে এই জেলাটিন খেতে পারেন।

এই খাদ্যপ্রণালি এক সপ্তাহ গ্রহণে ব্যথা অনেকটাই কমে আসবে। এক মাস এই পদ্ধতি অনুসরণ করতে হবে। ছয় মাসের মধ্যে এই পদ্ধতি পুনরায় করতে পারবেন। এই পদ্ধতি অনুসরণে গাঁটের মাঝে তৈলাক্ত পদার্থ ফিরিয়ে আনা সম্ভব।

এর মাধ্যমে শরীরের বিভিন্ন অঙ্গপ্রত্যঙ্গের কার্যক্রমকেও ভালো রাখা যায়। যারা দীর্ঘদিন ধরে ব্যথানাশক ওষুধ খাচ্ছেন, তাদের জন্য এই খাদ্যপ্রণালি অন্যতম সমাধান হতে পারে।
জেলাটিনের উপকারিতা

জেলাটিন এমন এক ধরনের জিনিস যা প্রাণীদেহের সংযোগ টিস্যুকে ভালো রাখতে সাহায্য করে। এটি হাঁড়, কোলাজেন ও কার্টিলেজের শুদ্ধিকরণে কাজ করে। দেহের অভ্যন্তরীণ ফাইবার ও ছোট কোষের অবস্থার উন্নতি করে।

জেলাটিন দেহে দুই ধরনের এমাইনো এসিড উৎপন্ন করে; প্রোলাইন ও হাইড্রোসিপ্রোলাইন। এগুলো সংযোগ টিস্যুর পুনরুদ্ধারে ইতিবাচক ভূমিকা রাখে। সংযোগ টিস্যুর বৃদ্ধিতে কাজ করে। এটি গাঁটের রোগে বেশ কার্যকর।
এ ছাড়া জেলাটিন আরো যেসব কাজ করে :

হৃদযন্ত্র ও গাঁটের পেশিশক্তি বাড়ায়।

দেহের পরিপাক ক্রিয়া বৃদ্ধি করে।

ত্বকের সুস্বাস্থ্য বজায় রাখে।

দেহের রগ এবং লিগামেন্টের স্থিতিস্থাপকতা ও শক্তি বৃদ্ধি করে।

অস্টিয়ো পোরোসিস এবং অস্টিয়ো আরথ্রাইটিসের প্রতিরোধে কাজ করে।

চুল ও নখের কাঠামোগত বৃদ্ধিতে ভূমিকা রাখে।