ক্ষমতার লোভ নেই বলেই এরশাদ বিরোধী দলে : রাঙ্গা


259 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
ক্ষমতার লোভ নেই বলেই এরশাদ বিরোধী দলে : রাঙ্গা
জানুয়ারি ২৭, ২০১৯ জাতীয় ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

অনলাইন ডেস্ক ::

জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদকে নির্লোভ রাজনীতিক বলে আখ্যা দিয়েছেন তার দলের মহাসচিব মসিউর রহমান রাঙ্গা।

তিনি বলেছেন, এরশাদের ক্ষমতার লোভ নেই বলেই বিরোধী দলে থাকার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। সুযোগ থাকার পরও সরকারে যোগ দেননি তিনি।

এরশাদের রোগমুক্তি কামনায় রোববার সন্ধ্যায় ঢাকার শ্যামপুর বালুর মাঠে শ্যামপুর-কদমতলী থানা জাতীয় পার্টি আয়োজিত মিলাদ মাহফিলে এসব কথা বলেন রাঙ্গা।

তিনি বলেন, ১৯৯৬ সালে বিএনপি এরশাদকে প্রস্তাব দিয়েছিল সরকার গঠনের। এরশাদের ক্ষমতার লোভ থাকলে বিএনপির প্রস্তাবে রাজি হয়ে প্রধানমন্ত্রী হতে পারতেন।

জাতীয় পার্টির মহাসচিব বলেন, এরশাদের কোনো ক্ষমতার লোভ নেই। উনি ক্ষমতার লোভী হলে ৯৬ সালে বিএনপির দেয়া প্রস্তাব মেনে নিয়ে সরকার গঠন করতে পারতেন। এবারও বিরোধীদলে না গিয়ে সরকারের অংশীদারিত্ব নিতে পারতেন। উনি জাতীয় পার্টিকে সত্যিকারের বিরোধীদল হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করতে চান। যাতে সরকারের জনবিরোধী সকল কর্মকাণ্ডের বিরোধিতা করতে পারেন।

রাঙ্গা বলেন, স্বাধীনতার পর সংবিধান প্রণেতা ড. কামাল হোসেন সংবিধান রচনা করলেও ইসলামকে রাষ্ট্রধর্ম হিসেবে লিপিবদ্ধ করেননি। তখন ভারত ও রাশিয়ার সাথে সামঞ্জস্য রেখে রাষ্ট্রে ধর্মনিরপেক্ষতা রাখা হয়েছিলো। এরশাদ রাষ্ট্রক্ষমতায় এসে ৮৫ভাগ মুসলমানের এদেশকে রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম ঘোষণা করলেন।

তিনি বলেন, আজকে এরশাদের জন্য শুধু আমরা নই দলমত নির্বিশেষে এবং মসজিদ-মন্দির-গীর্জায় দোয়া হচ্ছে। এরশাদকে সকল ধর্মের মানুষই ভালবাসে। এরশাদ সকল উপসানালয়ের বিদ্যুৎ পানির বিল মওফুক করেছিলেন। কারণ হিসেবে এরশাদ বলতেন মসজিদ, মন্দির ও গির্জার টাকা দিয়ে রাষ্ট্র চালাবো না। যে মানুষটা ইসলাম ও দ্বীনের পথে জন্য কিছু করার চেষ্টা করেছেন আল্লাহ যেনো তাকে দ্রুত সুস্থ অবস্থায় আমাদের কাছে ফিরিয়ে আনেন সে প্রার্থনা করি।

ঢাকা-৪ আসনের সংসদ সদস্য সৈয়দ আবু হোসেন বাবলার সভাপতিত্বে এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন শ্যামপুর থানা আওয়ামী লীগ সভাপতি তোফাজ্জল হোসেন, ৫৩ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর হাজী নুর হোসেন, ৪৭ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর নাসির উদ্দিন ভূইয়া, মাইনুদ্দিন চিশতী, ইব্রাহীম খলিল মারুফ, আলমগীর হোসেন মিজানুর রহমান, আজিজ আহমেদ, জাপা নেতা শেখ মাসুক রহমান, সুজদ দে, সারফুদ্দিন আহমেদ শিপু, কাউসার আহমেদ, মাহবুবুর রহমান খসরু প্রমুখ।