কয়রা উপজেলা ছাত্রলীগের সম্পাদককে পিটিয়ে হত্যা


228 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
কয়রা উপজেলা ছাত্রলীগের সম্পাদককে পিটিয়ে হত্যা
মার্চ ২, ২০২০ খুলনা বিভাগ ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

কয়রা(খুলনা)প্রতিনিধি ঃ- খুলনার কয়রায় তুচছ ঘটনাকে কেন্দ্রকরে উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদকে পিটিয়ে হত্যা করেছে প্রতিপক্ষরা। ঘটনা টি ঘটেছে উপজেলার বাগালী ইউনিয়নের বায়লাহারানিয়া গ্রামে। জানা গেছে, বাতিকাটা খালে নির্মানাধীন ব্রীজের কাজ কে কেন্দ্র করে গত ১ মার্চ রবিবার বিকালে দু’পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এ সময় প্রতিপক্ষের হামলায় উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক হাদিউজ্জামান রাসেল সহ উভয় পক্ষের ৮ জন আহত হয়। এর মধ্যে রাসেলের অবস্থা গুরুত্বর হওয়ায় তাকে রাতেই খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে তার অবস্থার অবনতি হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য সেখান থেকে ঢাকায় প্রেরন করা হয়। এবং ঢাকার যাত্রাবড়ি পৌছালে তিনি মার যান। ঘটনার সাথে জড়িত তুহিন হোসেন(৪০) ও তার ভাই মিলন (৩০) কে আটক করেছে পুলিশ। স্থানীয় একাধিক সুত্রে জান গেছে,উপজেলার বায়লাহারানিয়া গ্রামের বাতিকাটা খালের উপর নির্মানাধীন ব্রীজের ঢালাই এর কাজ চলা কালে সকালে স্থানীয় হাফিজুর রহমান সানার পুত্র তুহিন হোসেন(৪০) বাবু(৩৭) ও মিলন(৩০) শ্রমিকদের কাজ বন্ধ করে দেয়। পরে স্থানীয় গন্যমান্য ব্যাক্তিবর্গ এসে বিষয়টি মিমাংসা করে দেয়। এরপর বিকালে উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক হাদিউজ্জান রাসেল ঘটনাস্থলে আসলে ক্ষিপ্ত তুহিন, ও তার ভাইয়েরা তার সাথে থাকা নেতা কর্মীদের উপর হামলা চালিয়ে গুরুত্বর আহত করে । আহতরা হলেন,ইয়াছির আরাফাত(১৯) রাজু(২২)আব্দুল্যাহ(২৯) আবুল হাসান(২০) সেলিম (৩২) সহ কয়েক জন । আহতদের উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্রেরেক্রে ভর্তি করা হয়। সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়ার পর উন্নত চিকিৎসার জন্য সকলকে খুমেকে প্রেরন করা হয়। খবর পেয়ে কয়রা থানার পুলিশ আহত তুহিন হোসেন(৪০) ও তার ভাই কে পুলিশ হেফাজাতে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্রে ভর্তি করেন। কয়রা থানা অফিসার ইনচার্জ মোঃ রবিউল হোসেন বলেন, এ ব্যাপারে মামলার প্রস্তুতি চলছে।