খুলনার আলীম জুটমিল ব্যক্তি মালিকানয় হস্তান্তর বন্ধে শ্রমিকদের লাঠি মিছিল


615 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
খুলনার আলীম জুটমিল ব্যক্তি মালিকানয় হস্তান্তর বন্ধে শ্রমিকদের লাঠি মিছিল
নভেম্বর ৪, ২০১৫ খুলনা বিভাগ ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

খুলনা ব্যুরো :
খুলনার আটরা শিল্পাঞ্চলের রাষ্ট্রায়ত্ব আলীম জুট মিল ব্যক্তি মালিকানায় হস্তান্তর প্রক্রিয়া বন্ধ, মিলের উৎপাদন চালু ও বকেয়া বেতন-বিল প্রদানের দাবিতে বুধবার সকাল ১০ টায় শ্রমিকরা রাজপথে লাঠি মিছিল ও বিক্ষোভ প্রদর্শন করেন। এ সময় আটরা শিল্পাঞ্চলের খুলনা-যশোর মহাসড়কে যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়।
কর্মসূচি চলাকালে অনুষ্ঠিত সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন মিল রক্ষা প্রতিরোধ কমিটির আহবায়ক ও সিবিএ সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রশিদ। সমাবেশে নেতৃবৃন্দ বলেন বিদেশে পাটজাতদ্রব্য রপ্তানি করে ৩০ লাখ টাকা মিল সাবসিটি পেয়েছে। সেই টাকা শ্রমিকদের বকেয়া ১৭ সপ্তাহের মজুরীর মধ্যে ১ সপ্তাহের মজুরী ও ২ মাসের শিক্ষা ভাতা, কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বকেয়া ৫ মাসের স্থলে কোয়াটার (৭ দিনের) এবং নিরাপত্তা প্রহরীদের ১ মাসের বেতন প্রদান করা হয়েছে। বাকি বেতন-বিল ও মজুরী প্রদানের কোন পদক্ষেপ নেই।
নেতৃবৃন্দ আরও বলেন, আগামী ১১ নভেম্বরের মধ্যে মিলের কথিত মালিকের মিল হস্তান্তর প্রক্রিয়ায় কাগজপত্র বাতিল এবং পাটক্রয়ের জন্য অর্থ ছাড় দিয়ে পাট ক্রয় করে মিল চালু এবং মিলের পাটজাত দ্রব্য বিক্রি করে শ্রমিকদের বকেয়া পরিশোধ করতে হবে। অন্যথায় লাগাতার রাজপথ-রেলপথ অবরোধসহ কঠোর আন্দোলনের কর্মসূচী ঘোষণা করা হবে।
সমাবেশে বক্তৃতা করেন মিল সিবিএ সভাপতি আব্দুস সালাম জমাদ্দার, সাবেক সিবিএ সাধারণ সম্পাদক আব্দুল হামিদ সরদার, সাবেক সিবিএ সভাপতি মো. সাইফুল ইসলাম লিঠু, সিবিএ সহ-সাম্পাদক মো. আব্বাস বিশ্বাস, আকবার আলী, হাফেজ আব্দুস সালাম, সহ-সভাপতি মো. মুজিবর রহমান, মো: রফিকুল ইসলাম, মো: ইকবাল হোসেন, শেখ হোসেন বাহার, বাবুল রেজা প্রমূখ।
এদিকে, পূর্ব ঘোষিত ৮ দিনের কর্মসূচির অংশ হিসেবে ৬ নভেম্বর বিকাল ৪ টায় আলীম জুট মিল গেটের সামনে শ্রমিক জনসভা, ৮ নভেম্বর সকাল ১০ টায় আটরা শিল্পাঞ্চলের খুলনা-যশোর মহাসড়কে ১ ঘন্টা মানববন্ধন ও একই ুিদন সকাল ১০ টায় কফিন মিছিল, ৯ নভেম্বর সকাল ১০ টায় লাঠি মিছিল, ১০ নভেম্বর সকাল ১০ টায় ১ নং গেটে গেটসভা এবং ১১ নভেম্বর সকাল ১০ টা থেকে দুপুর ১ টা পর্যন্ত ৩ ঘন্টা রাজপথ অবরোধ কর্মসূচি পালন করা হবে।