খুলনা সংবাদ ॥ দক্ষিণাঞ্চলে পরিবহন ধর্মঘটে দুর্ভোগ চরমে : পরিবহন কর্মীদের কাছে যাত্রীরা জিম্মি


302 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
খুলনা সংবাদ ॥ দক্ষিণাঞ্চলে পরিবহন ধর্মঘটে দুর্ভোগ চরমে : পরিবহন কর্মীদের কাছে যাত্রীরা জিম্মি
ফেব্রুয়ারি ২৬, ২০১৭ খুলনা বিভাগ ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

খুলনা ব্যুরো ঃ
বাস চালক জামির হোসেনের নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে রোববার সকাল ৬টা থেকে দক্ষিণাঞ্চলের ১০ জেলায় অনির্দিষ্টকালের পরিবহন শুরু হয়েছে। এ কারণে চরম দুর্ভোগে পড়েছেন এ অঞ্চলের যাত্রীরা। শনিবার বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশন খুলনা বিভাগীয় কমিটি এ ধর্মঘটের ডাক দেয়।
খুলনা বিভাগের যশোর, সাতক্ষীরা, বাগেরহাট, নড়াইল, ঝিনাইদহ, কুষ্টিয়া, মেহেরপুর, চুয়াডাঙ্গা ও মাগুরা জেলায় একযোগে পালিত হচ্ছে এ ধর্মঘট। ধর্মঘট শুরু হওয়ার পর খুলনা থেকে ঢাকাসহ দুরপাল্লার কোন গাড়ি ছেড়ে যায়নি। অভ্যন্তরীণ রূটেও বাসচলাচল বন্ধ রয়েছে। শুধু ব্যক্তিগত গাড়ি চলাচল করছে। শ্রমিক নেতারা শহরের বিভিন্ন মোড়ে অবস্থান নিয়ে ধর্মঘট পালন করছেন।
এদিকে, ধর্মঘটের কারণে খুলনার সোনাডাঙ্গা আন্ত:জেলা বাস টার্মিনালের পাশাপাশি রূপসা, ফুলতলা, পাইকগাছা, ডুমুরিয়া, কয়রা, তেরখাদাসহ বিভিন্ন স্ট্যান্ডে মানুষের ভিড় লক্ষ করা যায়। অনেক যাত্রীকে স্ট্যান্ড থেকে ফিরে যেতে দেখা যায়। বিশেষ করে আগে থেকে ধর্মঘটের বিষয়টি জানতে না পেরে দূর পাল্লার যাত্রীরা পড়েছেন চরম দুর্ভোগে।
তেরখাদা এলাকার আমিরুল ইসলাম নামের এক যাত্রী বলেন, পরিবহন ধর্মঘটের বিষয়টি তিনি জানতেন না। এখন বাস স্ট্যান্ড এসে গাড়ী বন্ধ দেখে ফিরে যেতে হচ্ছে।
খুলনা জেলা বাস মিনিবাস কোচ মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মো. আনোয়ার হোসেন সোনা বলেন, খুলনা বিভাগের ১০ জেলায় কড়াভাবে পরিবহন ধর্মঘট পালিত হচ্ছে। তাদের এ দাবির সাথে একমত হয়ে গোপালগঞ্জ, ফরিদপুর ও রাজবাড়ীসহ আরও ৬টি জেলায়ও সেখানকার শ্রমিক নেতারা পরিবহন ধর্মঘট পালন করছেন বলেও জানান তিনি।
প্রসঙ্গত, ২০১১ সালের ১৩ আগস্ট ঢাকা-মানিকগঞ্জ এলাকার জোকা এলাকায় চুয়াডাঙ্গা ডিলাক্সের একটি বাসের সঙ্গে মাইক্রোবাসের সংঘর্ষে চলচ্চিত্রকার তারেক মাসুদ ও সাংবাদিক মিশুক মুনীরসহ পাঁচজন নিহত হন। এ ঘটনায় দায়ের করা মামলায় মানিকগঞ্জ অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালত চালক জামির হোসেনকে যাবজ্জীবন কারাদ- দেন। #

খুলনায় পাসপোর্ট সেবা সপ্তাহের উদ্বোধন
খুলনা ব্যুরো ঃ‘পাসপোর্ট নাগরিক অধিকার : নি:স্বার্থ সেবাই অঙ্গীকার’ প্রতিপাদ্য নিয়ে খুলনায় রোববার থেকে পাসপোর্ট সেবা সপ্তাহের উদ্বোধন করা হয়েছে। সকাল সাড়ে ১০টায় বিভাগীয় পাসপোর্ট ও ভিসা অফিসে আনুষ্ঠানিকভাবে এ সপ্তাহের উদ্বোধন করেন কেএমপি কমিশনার নিবাস চন্দ্র মাঝি।
বিভাগীয় পাসপোর্ট ও ভিসা অফিসের পরিচালক মোঃ সাইদুর রহমান অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন। বিশেষ অতিথি ছিলেন খুলনা প্রেসক্লাবের সভাপতি এস এম হাবিব। এ সময় পাসপোর্ট অফিসের কর্মকর্তা-কর্মচারী, গণমাধ্যম প্রতিনিধি এবং সেবাপ্রত্যাশিরা উপস্থিত ছিলেন।
বিভাগীয় পাসপোর্ট ও ভিসা অফিসের পরিচালক মোঃ সাইদুর রহমান জানান, পাসপোর্ট অফিসকে পুরোপুরি ডিজিটালাইজড করা হয়েছে। যে কোন নাগরিক যে কোন স্থান থেকে পাসপোর্টের কার্যক্রম সম্পর্কে বিস্তারিত অবহিত হতে পারবেন।
#