গভীর সুন্দরবনে ভাসমান বিওপি ক্যাম্প উদ্বোধন করলেন বিজিবির মহাপরিচালক


1668 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
গভীর সুন্দরবনে ভাসমান বিওপি ক্যাম্প উদ্বোধন করলেন বিজিবির মহাপরিচালক
মার্চ ৩০, ২০১৭ ফটো গ্যালারি সুন্দরবন
Print Friendly, PDF & Email

এম কামরুজ্জামান ::
নারী ও শিশু পাচার রোধ,  অবৈধ অনুপ্রবেশ বন্ধ , চোরাচালান রোধ আর জলদস্যু নিয়ন্ত্রনে স্থাপন করা হয়েছে বিজিবির ভাসমান বিওপি ক্যাম্প। বৃহষ্পতিবার দুপুরে  সুন্দরবনের গভীরে রায়মঙ্গল নদীর মোহনা সংলগ্ন আঠারোবেকি খালে রিভারাইন বর্ডার গার্ড কোম্পানির ভাসমান বিওপি – ২ এর  উদ্বোধন করা হয়েছে ।  বর্ডারগার্ড বাংলাদেশের মহাপরিচালক মেজর জেনারেল আবুল হোসেন এনডিসি, পিএসসি, প্রধান অতিখি হিসাবে উপস্থিত থেকে এই ভাসমান বিওপি ক্যাম্প উদ্বোধন করেন। এ সময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বিজিবির রিজিয়ন কমান্ডার ব্রিগেপিংার জেনারেল  কাজি তৌফিকুল ইসলাম, দক্ষিণ পশ্চিম রিজিয়ন যশোর, সেক্টর কমান্ডার খুলনা কর্নেল ইকবাল  এবং অধিনায়ক রিভারাইন বর্ডার গার্ড কোম্পানি এবং সদর দফতরের উর্ধতন কর্মকর্তা বৃন্দ।


সাতক্ষীরার সুন্দরবন সংলগ্ন নীলডুমুর বিজিবি ব্যাটালিয়ন থেকে নদীপথে প্রায়  ৬৫ কিলোমিটার দূরে এই ভাসমান বিওপি ক্যাম্প চালু করা হলো । এই ক্যাম্পটি ভারত সীমান্তের কাছে রায়মঙ্গল নদীর কাছাকাছি  রাখা হযেছে। উদ্ধোধন পরবর্তী প্রেস ব্রিফিংএ বিজিবি মহাপরিচারক সাংবাদিকদের বলেন, নদীপথ দিয়ে নারী ও শিশু পাচার বন্ধ,চোরাচালান প্রতিরোধ, অবৈধভাবে চলাচল কারি বিদেশী জাহাজ বন্ধ করা সহ জলদস্যু দমনের জন্য এই বিওপি স্থাপন করা হযৈছে। এ ছাড়া বির্স্তীর্ণ সুন্দরবনের সুরক্ষা  নিশ্চিত করতে এই ভাসমান বিওপি স্থাপনের প্রযোজন ছিন বলে তিনি জানান।
এ ছাড়া এই এলাকায মাছ ধরে জীবিকা নির্বাহ কারী হাজার হাজার জেলেদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করা সহ  জলদস্যুু ও ডাকাত নিয়ন্ত্রন এবং ৩৮ কিলোমিটার অরক্ষিত সীমান্ত এলাকা সুরক্ষা করা সম্ভব হবে   এই ভাসমান বিওপির মাধ্যমে।এলাকা সমুদ্র পর্যন্ত সার্বভৌ,ত্ব রক্ষা সহ নদী সীমান্তের ৭৫ কিলোমিটার ্ এলাকা পেট্রল করতে পারবে এই ভাসমান ক্যম্পের সদস্যরা।


ভাসমান এই বিওপিতে ২ জন অফিসার সহ মোট সদস্য থাকার ব্যবস্থা রয়েছে। আঠারোবেকি খালে স্থাপিত এই ভাসমান বিওপিটি দ্বিতীয় যা রিভরারাইন বর্ডারগার্ড কোম্পানি পরিচলনাা করবে। এর আগে সুন্দর বনের কাছিঘাটায়  ১৩ সালে ভাসমান বিওপি ১ চালু করা হয়।  মহা পরিচালক জানান,সুন্দরবনের সীমান্ত এলাকা অধিকতর সু রক্ষার  জন্য ভবিষ্যতে আরো দুটি ভাসমান বিওপি স্থাপন করা হবে।
##