গাইবান্ধা-৩ আসনে বিজয়ী নৌকার ইউনুস


191 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
গাইবান্ধা-৩ আসনে বিজয়ী নৌকার ইউনুস
জানুয়ারি ২৭, ২০১৯ জাতীয় ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন

অনলাইন ডেস্ক ::

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে স্থগিত গাইবান্ধা-৩ (সাদুল্যাপুর-পলাশবাড়ী) আসনে বিজয়ী হয়েছেন মহাজোট মনোনীত নৌকা প্রতীকে আওয়ামী লীগের প্রার্থী ডা. ইউনুস আলী সরকার।

রোববার সকাল ৮টা থেকে শুরু হওয়া ভোটগ্রহণ চলে বিকেল ৪টা পর্যন্ত। এরপর ভোট গণণা শেষে ফল ঘোষণা করা হয়।

বিজয়ী প্রার্থী ইউনুস আলী পেয়েছেন ১ লাখ ২১ হাজার ১৬৩ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী জাতীয় পার্টির দিলারা খন্দকার লাঙল প্রতীকে পেয়েছেন ২৪ হাজার ৩৮৫টি।

সাদুল্যাপুর ও পলাশবাড়ী উপজেলার সহকারী রিটার্নিং অফিসার ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার দপ্তর থেকে নির্বাচনের এই ফলাফল নিশ্চিত করা হয়েছে।

ঐক্যফ্রন্ট সমর্থিত ধানের শীষের প্রার্থী ড. টিআইএম ফজলে রাব্বী চৌধুরীর মৃত্যুতে গত ৩০ ডিসেম্বর জাতীয় সংসদ নির্বাচনের দিন এ আসনটির ভোটগ্রহণ সম্পন্ন হয়নি।

জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মাহবুবুর রহমান বলেন, এ আসনে মোট ভোটকেন্দ্র ১৩২টি। ভোটগ্রহণে ১৩২ জন প্রিসাইডিং কর্মকর্তা, ৭৮৬ জন সহকারী প্রিসাইডিং কর্মকর্তা ও ১ হাজার ৫৭২ জন পোলিং কর্মকর্তা নিয়োজিত ছিলেন।

ইউনুস ও দিলারা ছাড়াও আসনটিতে জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল (জাসদ) মনোনীত প্রার্থী ছিলেন এসএম খাদেমুল ইসলাম খুদি (মশাল), ন্যাশনাল পিপলস পার্টির (এনপিপি) মো. মিজানুর রহমান তিতু (আম) ও স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে আবু জাফর মো. জাহিদ (সিংহ) প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন।

দুপুরের পর এই আসনের নির্বাচন বর্জন করেন জাতীয় সমাজ তান্ত্রিক দল জাসদের প্রার্থী এসএম খাদেমুল ইসলাম খুদি। তিনি অভিযোগ করে বলেন, নৌকা মার্কার লোকজন দুপুর গড়ানোর পর থেকেই ভোট মেরে নিচ্ছেন।

গত বছরের ১৯ ডিসেম্বর গভীর রাতে ঐক্যফ্রন্ট প্রার্থী ড. টিআইএম ফজলে রাব্বী চৌধুরী মারা গেলে ২০ ডিসেম্বর নির্বাচন কমিশন গাইবান্ধা-৩ আসনে জাতীয় সংসদ নির্বাচন স্থগিত ঘোষণা করেন। পরে ২৭ জানুয়ারি নতুন করে ভোট গ্রহণের তারিখ নির্ধারণ করে পুনঃতফসিল ঘোষণা করা হয়।