গুরু-শিষ্য সম্পর্ক


416 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
গুরু-শিষ্য সম্পর্ক
ডিসেম্বর ২, ২০১৮ খেলা ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

অনলাইন ডেস্ক ::

বাংলাদেশ ঘরের মাঠে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে হোয়াইটওয়াশ করেছে। নিশ্চিত করেছে ২০১৪ সালের পর প্রথম সিরিজ জয়। দলের হয়ে সবাই দারুণ পারফর্ম করেছেন। দল গড়েছে বেশ কিছু রেকর্ড। বাংলাদেশের এই জয়ের স্কোরকার্ড যেমন বাঁধিয়ে রাখার মতো। তেমনি বাঁধিয়ে রাখার মতো দলের উদযাপনের ছবিগুলো। মেহেদি হাসান মিরাজ এবং বাংলাদেশ দলের কোচ স্টিভ রোডসের দারুণ এই ছবি সেটাই প্রমাণ করে।

 

মিরাজকে কোচ স্টিভ রোডসের আলিঙ্গন।

বাংলাদেশ দল ঢাকা টেস্টে সিরিজ জয়ের ম্যাচে নিজেদের টেস্ট ইতিহাসে প্রথম ইনিংস ব্যবধানে জয় পেয়েছে। প্রথমবার প্রতিপক্ষকে করিয়েছে ফলোঅন। এছাড়া বাংলাদেশ প্রথম ইনিংসে ৫০৮ রান করার পর ৩৯৭ রানের লিড পায়। যেটা টাইগারদের সবচেয়ে বড় লিডের রেকর্ড। ১২৮ বছর পরে কোন দলের টপ অর্ডারের পাঁচ ব্যাটসম্যান বোল্ড হলেন। আর কাজটা করলেন সাকিব-মিরাজ মিলে। এছাড়া বাংলাদেশের ১১ জন ব্যাটসম্যানই কমপক্ষে ১২ রান করেছে। টেস্টে মাত্র ছ’বার ঘটেছে এমনটা।

ঢাকা টেস্টে বাংলাদেশ দলের স্পিনার মেহেদি মিরাজ নিয়েছেন ১২ উইকেট। ক্যারিয়ারে দ্বিতীয়বার এক টেস্টে ১০ উইকেট নিলেন তিনি। বসলেন সাকিবের পাশে। হয়েছেন ঢাকা টেস্টের জয়ের নায়কও। আর তাই ম্যাচ শেষে তাকে শুধু আলিঙ্গনে বাঁধলেন না বাংলাদেশ দলের কোচ স্টিভ রোডস। যথারীতি কোলেই তুলে নিলেন।

 

ম্যাচ সেরা মেহেদি মিরাজকে উষ্ণ অভিনন্দন কোচের।

রোডসের বাংলাদেশ দলের সঙ্গে চলার পথ সহজ ছিল না। এই ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে তাদের মাটিতে বাজেভাবে হেরে হোয়াইটওয়াশ হয়েছিল বাংলাদেশ। কিন্তু রোডস ভেঙে পড়েননি। সে সময় ছুটি না নিয়ে তিনি আয়ার‌ল্যান্ড যান ‘এ’ দলের ম্যাচ দেখতে। সেখান থেকে এশিয়া কাপের দলে ডাকেন মিঠুন-মুমিনুলদের। এরপর ঘরের মাঠে সুযোগ দেন রাব্বিকে। এবার তুলে আনলেন সাদমান-নাঈমদের।

সবমিলিয়ে বাংলাদেশ দলের সঙ্গে কোচ স্টিভ রোডস কাজটা উপভোগ করছেন এটা বলাই যায়। ইংল্যান্ডে অনুষ্ঠিত বিশ্বকাপে দলের ভালো করার দিকে নজর তার। আর দলের সঙ্গে রোডসের সম্পর্কও বেশ উষ্ণ। মিরাজকে কোলে তুলে নেওয়া, সাকিব-মাশরাফির সঙ্গে তার আলাপ দেখেই বোঝা যায় তা। গুরু-শিষ্যর এমন সম্পর্ক এবং এক সঙ্গে কাজ করার মানসিকতা নিশ্চয় এগিয়ে নেবে বাংলাদেশ দলকে।