ঘরকে মশামুক্ত রাখুন ঘরোয়া পদ্ধতিতেই


156 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
ঘরকে মশামুক্ত রাখুন ঘরোয়া পদ্ধতিতেই
সেপ্টেম্বর ৯, ২০১৯ ফটো গ্যালারি স্বাস্থ্য
Print Friendly, PDF & Email

অনলাইন ডেস্ক ::

বাড়ির আশপাশে অপরিষ্কার নালা বা জলাশয়ের কারণে মশার উপদ্রোপ বেশি হয়ে থাকে। সাধারণত দোকানে মশা তাড়ানোর যে স্প্রে বা কয়েল পাওয়া যায়, তা বেশিরভাগই বেশ বিষাক্ত। যা ঘরের মানুষ ও শিশুদের জন্য অত্যন্ত ক্ষতিকর।

ক্ষতিকর কয়েল ছাড়া কিছু ঘরোয়া পদ্ধতি প্রয়োগ করেও মশা দূর করা যায়। যেমন-
তুলসীগাছ : টবে, জানালার পাশে বা বারান্দায় কয়েকটি তুলসীগাছ লাগিয়ে রাখুন। দেখবেন মশা পালাবে।

কর্পূর : কর্পূরের গন্ধ একেবারেই সহ্য করতে পারে না মশা। একটি ৫০ গ্রামের কর্পূরের ট্যাবলেট একটি ছোট বাটিতে রেখে বাটিটি পানি দিয়ে পূর্ণ করুন। এরপর এটি ঘরের কোণে রেখে দিন। দুই দিন পর পানি পরিবর্তন করুন।

নিম তেল : নিমের গন্ধ মশা সহ্য করতে পারে না। নিম তেল গায়ে মাখলে মশার কামড় থেকে রেহাই পাওয়া যায়। শুধু নিমপাতা ঘরের কোণে রেখে দিলেও মশার উপদ্রব কমে যাবে।

রসুন : রসুনকে বলা হয় মশার যম। কয়েকটি রসুনের কোয়া থেঁতলে পানিতে সিদ্ধ করুন বা ব্লেন্ডারে ব্লেন্ড করুন। এবার ওই পানি সারা ঘরের বিভিন্ন জায়গায় স্প্রে করুন। দেখবেন মশা উধাও।

লেবু ও লবঙ্গ : একটি বা দুটি লেবু মাঝামাঝি কাটুন। এরপর কাটা লেবুর ভেতরের অংশে অনেকগুলো লবঙ্গ গেঁথে দিন। লবঙ্গের ফুল বাইরে থাকবে আর পেছনের অংশ যেন লেবুতে গেঁথে থাকে। এবার সেই লেবুর টুকরাগুলো প্লেটে করে ঘরের কোণে রেখে দিন। দেখবেন কিছুক্ষণের মধ্যেই ঘরে মশা নেই।

সুগন্ধি : মশারা সুগন্ধি খুব অপছন্দ করে। মশা তাড়াতে দেহে বা জামায় আতর, সুগন্ধি বা লোশন ব্যবহার করতে পারেন। রাতে ঘুমানোর আগেও শরীরে মাখতে পারেন। এতে কাজ হবে।