ঘামের দুর্গন্ধ দূর করার ৫ উপায়


313 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
ঘামের দুর্গন্ধ দূর করার ৫ উপায়
এপ্রিল ১২, ২০১৬ ফটো গ্যালারি স্বাস্থ্য
Print Friendly, PDF & Email

অনলাইন ডেস্ক
গরমে ঘাম হওয়াটাই স্বাভাবিক। কিন্তু কারও কারও ঘামে অধিক দুর্গন্ধের সৃষ্টি হয়ে থাকে। মূলত এই দুর্গন্ধের পিছনে ব্যাকটেরিয়া দায়ী, যা ঘাম থেকে সৃষ্টি হয় এবং পরবর্তীতে এই ব্যাকটেরিয়া বিভিন্ন রোগের সৃষ্টি করে থাকে। ঘামের দুর্গন্ধ দূর করার জন্য বিভিন্ন ডিওডোরেন্ট ব্যবহার করেন অনেকেই। তারপরও পুরোপুরি এই সমস্যা কাটিয়ে উঠা সম্ভব হয় না। চলুন, আজ জেনে নিই ঘামের দুর্গন্ধ দূর করার কিছু ঘরোয়া উপায়।

ভিনেগার: আপেল সাইডার ভিনেগার একটি তুলোর বলে ভিজিয়ে নিন। এবার এটি ঘাম হওয়ার জায়গাগুলোতে ঘষুন। ২ থেকে ৩ মিনিট অপেক্ষা করুন। তারপর ধুয়ে ফেলুন। প্রতিদিন এভাবে ব্যবহার করলে ঘামের দুর্গন্ধ অনেকটা কমে আসবে।

লেবুর রস: লেবুর রস শরীরের পিএচ লেভেল কমিয়ে দেয় ফলে ব্যাকটেরিয়া তৈরি হতে পারে না। যে সকল ব্যাকটেরিয়া শরীরে থাকে তাও মারা যায়। একটি লেবুকে দু’ভাগে ভাগ করে ফেলুন। এক অংশ দিয়ে বগলের নিচে ঘষুন। কিছুক্ষণ অপেক্ষা করুন। এরপর স্নান করে ধুয়ে ফেলুন। যতদিন ঘামের দুর্গন্ধ দূর না হয় ততদিন এভাবে ব্যবহার করুন।

বেকিং সোডা: এক টেবিল চামচ বেকিং সোডা ও লেবুর রস মিশিয়ে বগলে লাগান। দুই মিনিট পর পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। দেখবেন কয়েক সপ্তাহের মধ্যে আপনার ঘামের দুর্গন্ধ দূর হয়ে গেছে।

টমেটো: টমেটোর অ্যান্টিসেপটিক উপাদানসমূহ ব্যাকটেরিয়াকে মেরে ফেলে ফলে ঘাম থেকে আর দুর্গন্ধ সৃষ্টি হতে পারে না। ৭/৮টি টমেটোর রস বের করে নিন। এবার এক বালতি পানিতে টমেটোর রস মিশিয়ে নিন। এই পানি দিয়ে স্নান করুন। এভাবে টানা কয়েকদিন ব্যবহার করলে ঘামের দুর্গন্ধ দূর হবে।

শালগম: শালগমের অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল উপাদান ব্যাক্টেরিয়া মেরে ফেলে ঘাম থেকে দুর্গন্ধ হওয়া প্রতিরোধ করে থাকে। এছাড়া শালগমে আছে ভিটামিন সি যা শরীরের অন্যান্য গন্ধ দূর করে থাকে। প্রথমে শালগমের রস করে নিন। এবার তুলোর বলে শালগমের জুস ভিজিয়ে ঘাম হবার জায়গাগুলোতে ঘষুন। শুকিয়ে আসলে কুসুম গুরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এটি আপনাকে ১০ ঘণ্টা পর্যন্ত ঘামের দুর্গন্ধ হাত থেকে রক্ষা করবে।