চলচ্চিত্র নিয়ে কাজ করতে চায় কালিগঞ্জের সৃজনশীল নতুন প্রজন্মের লেখক নাজমুল


267 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
চলচ্চিত্র নিয়ে কাজ করতে চায় কালিগঞ্জের সৃজনশীল নতুন প্রজন্মের লেখক নাজমুল
এপ্রিল ২২, ২০১৬ কালিগঞ্জ ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

সুকুমার দাশ বাচ্চু, কালিগঞ্জ :
আজ  বিশ্বের  প্রত্যেকটা  দেশই  তাদের  চলচ্চিত্র  উন্নয়নের  জন্য  কাজ  করে যাচ্ছে। বাংলাদেশ  ও  নিশ্চয় তাদের  ব্যাতিক্রম  নয় । কিন্তুু  বাংলাদেশের বর্তমান  চলচ্চিত্রের মান  দেখে  কোথাও  একটা  মনে  হয়,  বাংলাদেশ  হয়  তাদের চলচ্চিত্রের ঐতিহ্য হারিয়ে  ফেলেছে ? না  হয়  বর্তমান  সময়ের  প্রেক্ষাপটে বাংলাদেশ বিশ্বমানের চলচ্চিত্র নির্মান করতে পারছে না। অথচ চলচ্চিত্র উন্নয়নের জন্য নতুন প্রজন্মের সৃজনশীল মেধা সম্পন্ন  কিছু লেখক চলচ্চিত্রকে এগিয়ে নিতে নতুন নতুন কাহিনীর স্ক্রিপ্ট  লিখে যাচ্ছে। কিন্তু কোন ভাবেই সেগুলো  প্রকাশ করানোর  সুযোগ পাচ্ছে না। আমাদের দৃষ্টিতে ঠিক তেমনি একজন সৃজনশীল মেধা সম্পন্ন তরুন লেখকের সন্ধান পেয়েছি,যার লেখার মধ্যে সৃজনশীলতা এবং বর্তমান সময়ের প্রেক্ষাপটে বিশ্বমানের চলচ্চিত্র নির্মানে চমৎকার  স্ক্রিপ্ট  লিখে যাচ্ছে। তার স্ক্রিপ্ট গুলোর মধ্যে বর্তমান সময়ে  ঘটে যাওয়া সম-সময়িক ঘটনাবলি সান্নিবেসিত রয়েছে যেগুলো সাধারণ মানুষের হৃদয়ে একটু হলেও  নাড়া দিবে। চলচ্চিত্রের কাহিনীকার হিসাবে আতœপ্রকাশ করতে যাচ্ছে সাতক্ষীরা জেলার কালিগঞ্জ উপজেলার নাজমুল হোসাইন নামের এক তর”ন। নাজমুল কালিগঞ্জ কলেজের অনার্স তৃতীয় বর্ষের ছাত্র।  বর্তমান বাংলাদেশের চলচ্চিত্রের এ র্দুসময়ে তার লেখা এসব স্ক্রিপ্ট গুলো বাংলাদেশের চলচ্চিত্রকে এগিয়ে নিতে একটু হলেও সাহায্য করেবে তার এসব স্ক্রিপ্ট গুলোর   মধ্যে এমন একটা স্ক্রিপ্ট লেখা আছে যেটা হতে পারে বিশ্বের ঐসব মানুষদের বিবেককে জাগ্রত করানোর প্রতীক,যারা আমাদের মত সাধারণ মানুষ হয়েও অসাধারণ সব কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে। অথচ এসব বিষয় গুলো নিয়ে বর্তমান সময়ে খুব বেশি তৎপড়তা দেখা যায় না। কিšু— চলচ্চিত্রকে উন্নয়নের ধারায় ফিরিয়ে আনতে পৃথিবীর সাধারণ অসাধারণ সব বিষয় গুলোকে প্রাধান্য দিয়েয় ফিল্ম রিলিজ করানোটা আবশ্যক,তাই নতুন প্রজন্মের এসব সৃজনশীল মেধা সম্পন্ন  লেখকদের চলচ্চিত্র নির্মানের সামান্য তম সুযোগ দিলে বাংলাদেশের চলচ্চিত্র এক ধাপ যাবে তাতের কোন সন্দেহ নেই । সর্ব শেষ একটায় কথা যদি কোনো দেশের প্রকৃত উন্নয়ন ঘটাতে হয় তবে সে দেশের তরন সমাজকে জাগ্রত হতে হবে। কারন তারন্যের মেধা অস্বাভাবিক ধারালো হয়।